Taliban at Panjshir: হাতে সোনা আর বান্ডিল বান্ডিল টাকা, সালেহর বাড়িতে ঢুকে পড়ল তালিবরা!

Taliban at Panjshir: ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে বেশ কয়েকজনের তালিবের হাতে বান্ডিল বান্ডিল টাকা আর সোনার বিস্কুট।

Taliban at Panjshir: হাতে সোনা আর বান্ডিল বান্ডিল টাকা, সালেহর বাড়িতে ঢুকে পড়ল তালিবরা!
আফগানিস্তাানের প্রাক্তন উপ রাষ্ট্রপতি আমরুল্লাহ সালেহ (ফাইল ছবি)

কাবুল: আফগানিস্তান (Afghanistan) দখল করতে কার্যত তেমন বাধার মুখে পড়তে হয়নি তালিবানকে (Taliban)। যেমনটা আশঙ্কা করা হয়েছিল তার অনেক আগেই কাবুল দখল করে ফেলে তারা। কিন্তু তালিবানের কাছে চ্যালেঞ্জ ছিল পঞ্জশীর (Pamjshir)। হিন্দুকুশ পর্বতের কোলে এই আফগান প্রদেশে আগেও কখনও তালিবান প্রবেশ করতে পারেনি। তবে এবার তালিবানের চেহারা আগের থেকে অনেকটাই আলাদা। অনেক উন্নত অস্ত্রশস্ত্র রয়েছে তাদের হাতে। তাই আফগানদের সেই দূর্গেও পৌঁছে গিয়েছে তারা। প্রতিরোধ বাহিনীর সঙ্গে লড়াইয়ের খবর প্রকাশ্যে আসছে বারবার। এরই মধ্যে একটি ভিডিয়োতে তালিবান দাবি করেছে তারা প্রাক্তন আফগান উপ রাষ্ট্রপতি আমরুল্লাহ সালেহর বাড়িতে ঢুকে ভাঙচুর চালিয়েছে। সেখান থেকে পেয়েছে প্রচুর টাকা আর অনেক সোনা।

প্রেসিডেন্ট আসরাফ ঘানি দেশ ছেড়ে চলে যাওয়ার পর আফগানদের রক্ষা করার প্রতিশ্রতি দেন আমরুল্লাহ সালেহ। তাঁর নেতৃত্বেই পঞ্জশীরে তালিবানের বিরুদ্ধে লড়াই করছে প্রতিরোধ বাহিনী। তিনি দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন বলে শোনা গেলেও, সেই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন সালেহ। তিনি জানান, তিনি পঞ্জশীরেই রয়েছেন। প্রতিরোধ বাহিনীর কম্যান্ডার ও রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে তিনিও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছেন। কয়েকদিন আগেই তিনি বলেছিলেন, ‘আমি পঞ্জশীরেই রয়েছি। আমি আমার ঘাঁটিতেই রয়েছি। তালিবান ছাড়াও পাকিস্তানি ও আল কায়েদা জঙ্গিরাও একযোগে হামলা চালাচ্ছে। পরিস্থিতি অবশ্যই কঠিন, তবে আমাদের কম্যান্ডার ও রাজনৈতিক নেতারা তা সামাল দেওয়ার চেষ্টা করছেন। তবে একচুল জমিও আমরা তালিবানের কাছে হারাইনি।’

আর সেই বিবৃতি প্রকাশের কয়েকদিনের মধ্যেই সালেহর বাড়িতে ঢুকে পড়ার দাবি করল তালিবান। সোমবার সালেহর বাড়ি তছনছ করেছে বলে দাবি করেছে তালিবান। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিয়োতে তারা দাবি করেছে সালেহর বাড়ি থেকে ৬০ লক্ষ ডলার নগদ টাকা ও ১৫টি সোনার বাট পেয়েছে। সে সব হাতে নিয়েই ভিডিয়োতে এই দাবি করেছে তালিবরা। আফগান সংবাদমাধ্যম টোলো নিউজ সূত্রে খবর, পঞ্জশীরেই এই ভিডিয়ো তোলা হয়েছে বলে তালিবানের দাবি। এ ব্যাপারে এখনও প্রতিরোধ বাহিনী বা আমরুল্লাহ সালেহর তরফে কোনও ব্যাখ্যা দেওয়া হয়নি। কোনও কোনও সূত্রের দাবি, আফগানিস্তান ছেড়ে তাজিকিস্তানে চলে গিয়েছেন সালেহ।

গত সপ্তাহেই প্রাক্তন আমরুল্লাহ সালেহর ভাই রোহুউল্লাহ সালেহকে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে তালিবান। সূত্র জানিয়েছে, পঞ্জশীরে তালিবানের সঙ্গে সংঘর্ষের ফলেই তাঁর মৃত্যু হয়। শনিবার পঞ্জশীর উপত্যকায় তাঁর দেহ তালিবানরাই উদ্ধার করেছে বলে খবর। আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম সূত্রে দাবি, প্রথমে রোহুউল্লাহর উপর শারীরিক নির্যাতন করা হয়। এরপর নৃশংসভাবে মেরে ফেলা হয় তাঁকে।

আরও পড়ুন: মাথা থেকে পা অবধি মোড়া কালো কাপড়ে, পরিচয় জানাই দায়! তালিবরাজে নারী স্বাধীনতার নিদারুণ উদাহরণ

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla