Malala on Taliban’s Hizab Law: ‘মেয়েরা কাজ করুক, তালিব সরকার চায় না’, তালিবানের হিজাব-নির্দেশ নিয়ে মুখ খুললেন মালালা

Malala on Taliban's Hizab Law: 'মেয়েরা কাজ করুক, তালিব সরকার চায় না', তালিবানের হিজাব-নির্দেশ নিয়ে মুখ খুললেন মালালা
টুইট করলেন মালালা ইউসুফজাই। নিজস্ব চিত্র।

Afghanistan: নোবেল বিজয়ী এই কন্যার আবেদন, বিশ্বের সমস্ত শক্তি যেন এই তালিবানি নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ায়। এই ধরনের সিদ্ধান্ত মানবাধিকার লঙ্ঘনের সমান।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: সায়নী জোয়ারদার

May 12, 2022 | 4:51 PM

নয়াদিল্লি: সম্প্রতি তালিবানি নির্দেশ কায়েম হয়েছে আফগানিস্তানে। মহিলাদের হিজাব পরার নির্দেশ জারি করেছে সরকার। এই নির্দেশ নিয়ে মুখ খুললেন নোবেল-কন্যা মালালা ইউসুফজাই। তাঁর মতে, তালিবানের এই নির্দেশ আসলে আফগান নারীদের প্রগতিতে রুখে দেওয়ার চেষ্টা। মালালা বলেন, “জনজীবন থেকে মেয়ে ও মহিলাদের মুছে দিতে চাইছে তালিবান। ওরা চাইছে মেয়েরা যাতে স্কুলে যেতে না পারে, মহিলারা যাতে কর্মক্ষেত্রে যেতে না পারেন। ওরা বাড়ির পুরুষ ছাড়া মেয়েদের বেড়াতে যাওয়ার অনুমতি দিচ্ছে না, ওরা বলছে মেয়েদের বাইরে বেরোতে হলে আপাদমস্তক ঢেকে বেরোতে হবে।” সোমবার টুইটারে এই বার্তা দেন মালালা। নোবেল বিজয়ী এই কন্যার আবেদন, বিশ্বের সমস্ত শক্তি যেন এই তালিবানি নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ায়। এই ধরনের সিদ্ধান্ত মানবাধিকার লঙ্ঘনের সমান।

মালালার সংযোজন, ‘আফগান মহিলাদের নিয়ে আমাদের চিন্তা কিন্তু এখনও থেকেই যাচ্ছে। কারণ, তালিবান দেওয়া কথার খেলাপ করতে শুরু করেছে। আমাদের সকলকে একত্রিত হতে হবে। বিশেষ করে মুসলিম অধ্যুষিত দেশগুলিকে আফগানিস্তানের পাশে দাঁড়াতে হবে।’ এর আগে রাষ্ট্রপুঞ্জের মহাসচিব অ্যান্টোনিও গাতেরাসও তালিবান সরকারের ‘ফতোয়া’ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। ধীরে ধীরে তালিবান আফগান নারীদের মানবাধিকারে হস্তক্ষেপ করছে বলেই মনে করছে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিশেষজ্ঞদের।

গত বছরই আফগানিস্তানের মসনদ দখল করে তালিবান। তালিবানি শাসন সে দেশে কায়েম হওয়ার পর থেকেই আতঙ্ক বেড়েছিল মহিলাদের মধ্যে। কারণ, ইতিহাস বলছে নারীর স্বাধিকারে হস্তক্ষেপ করা তালিবানদের পুরনো অভ্যাস। যদিও প্রথম দিকে তারা বলেছিল, সময়ের উপযোগী শাসনব্যস্থাতেই ভরসা তাদের। কিন্তু সময় যত এগিয়েছে, পুরনো চেহারাই সামনে এসেছে।

এর আগে মেয়েদের স্কুলে যাওয়া নিয়ে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল। একইসঙ্গে মহিলাদের গাড়ি চালানোর অধিকারও কেড়ে নেওয়া হয়। তবে মেয়েদের স্টিয়ারিং ধরা নিয়ে সরাসরি কোনও নিষেধাজ্ঞা জারি করেনি তারা। বরং কাবুল-সহ একাধিক প্রদেশে মেয়েদের ড্রাইভিং লাইসেন্স দেওয়াই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। যা হতবাক করেছিল গোটা বিশ্বকে। এর দিন কয়েকের মধ্যেই আবার আফগানি মুলুকে মহিলাদের হিজাব পরার নির্দেশ দিল তালিবান সরকার।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA