‘জানি না কীভাবে শুরু করব…’, সুশান্তের জন্মদিনে অভিনেতার অপ্রকাশিত ভিডিয়ো শেয়ার অঙ্কিতার

বিহঙ্গী বিশ্বাস

বিহঙ্গী বিশ্বাস |

Updated on: Jan 21, 2021 | 2:37 PM

মনের স্মৃতি এক্কেবারে টাটকা, ঘর জুড়ে ছড়িয়ে রয়েছে সুশান্তের টুকরো স্মৃতি। আর ফোনে সযত্নে রাখা আছে পাঁচ বছর আগে শেষ হয়ে যাওয়া এক সম্পর্কের কিছু না পড়া চ্যাপ্টার।

'জানি না কীভাবে শুরু করব...', সুশান্তের জন্মদিনে অভিনেতার অপ্রকাশিত ভিডিয়ো শেয়ার অঙ্কিতার
আদুরে দিন-- সুশান্ত এবং অঙ্কিতা।

মনের স্মৃতি এক্কেবারে টাটকা, ঘর জুড়ে ছড়িয়ে রয়েছে সুশান্তের টুকরো স্মৃতি। আর ফোনে সযত্নে রাখা আছে পাঁচ বছর আগে শেষ হয়ে যাওয়া এক সম্পর্কের কিছু না পড়া চ্যাপ্টার। সুশান্ত সিং রাজপুতের জন্মদিনে এত দিন আগলে রাখা সেই চ্যাপ্টারই প্রথম বার প্রকাশ্যে নিয়ে এলেন অঙ্কিতা লোখন্ডে। শেয়ার করলেন এমন কিছু অপ্রকাশিত ভিডিয়ো যা আগে কেউ কোনওদিন দেখেননি।

শাহরুখ খানের ‘জাবড়া ফ্যান’ ছিলেন সুশান্ত। মনে মনে আইডলও মানতেন। চুপিচুপি কপিও করতেন সেই সিগনেচার পোস্ট। অঙ্কিতার শেয়ার করা ভিডিয়োতে সুশান্ত যেন কিং খান। দুই হাত বাড়িয়ে লিপ দিচ্ছেন শাহরুখের আইকনিক গান ‘জাদু তেরি নজর’-এর সঙ্গে। হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন অঙ্কিতার দিকেও। অঙ্কিতাও উঠে এসে জয়েক করছেন সুশান্তকে। নাচের আড়ালে আরও গাঢ় হচ্ছে প্রেম। ভিডিয়োটি ভাল করলে লক্ষ করলে দেখা যায়, যে সময়ে ভিডিয়োটি শুট হয়েছিল, সে সময় সুশান্তের বড় বড় চুল। ঠিক যেমন ধোনি’র বায়োপিকে রেখেছিলেন তিনি। ‘দ্য আনটোল্ড স্টোরি…এমএস ধোনি’ মুক্তি পেয়েছিল ২০১৬ সালে। সুতরাং ধরে নেওয়াই যায় ভিডিয়োটি তার আগের। ১৪- ১৫ সাল নাগাদ। সে সময় সুশান্ত-অঙ্কিতার ‘পবিত্র রিস্তা’য় তৃতীয় ব্যক্তি আসেননি, তৈরি হয় নি ঝামেলাও, ভালবাসায় ছিলেন তাঁরা, ডুবে ছিলেন প্রেমে।

আর একটি ভিডিয়োও শেয়ার করেছেন অঙ্কিতা। প্রিয় পোষ্যর সঙ্গে সারা বাড়ি দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন সুশান্ত। মুখ জোড়া হাসি, ক্লান্তি? অবসাদ? মানসিক অস্থিরতা? চিহ্নমাত্র নেই। অঙ্কিতার লিখেছেন, “জানি না কোথা থেকে শুরু করব, জানি না কী লিখব। আজ তোমার কিছু পুরনো ভিডিয়ো শেয়ার করব সুশান্ত। এভাবেই সেলিব্রেট করব তোমায়। তোমার সঙ্গে কাটান সেই সব মুহূর্ত…আনন্দের মুহূর্ত। এভাবেই মনে রাখতে চাই তোমাকে। হাসিখুশি, রোম্যান্টিক, আদুরে…”।

View this post on Instagram

A post shared by Ankita Lokhande (@lokhandeankita)

গত ১৪ জুন সুশান্তের মৃত্যুর পর সংবাদমাধ্যম অঙ্কিতার সঙ্গে যোগাযোগ করলে ‘হোয়াট’ বলে ফোন কেটে দিয়েছিলেন অঙ্কিতা। অঙ্কিতার ঘনিষ্ঠরা জানিয়েছিলেন মাঝে মধ্যেই নাকি অজ্ঞান হয়ে যাচ্ছেন তিনি। এক মাস পর সুশান্তের উদ্দেশ্যে তিন শব্দের পোস্ট করেছিলেন অঙ্কিতা। লিখেছিলেন, “চাইল্ড অব গড”। সুশান্ত মারা গিয়েছেন সাত মাস। ‘পবিত্র রিস্তা’ কি ভুলতে পেরেছেন অঙ্কিতা?

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla