Face Masks During Exercise: ব্যায়ামের সময় মাস্ক পরলে গুরুতর ক্ষতির সম্ভাবনা কি আদেও আছে? কী জানালো এই গবেষণা?

ফেস মাস্ক ব্যবহার করে ব্যায়াম করলে কি স্বাস্থ্যের ক্ষতি হয়? নতুন গবেষণা কিন্তু সম্পূর্ণ অন্য তথ্য সামনে এনেছে। জানা গেছে, ফেস মাস্ক ব্যায়ামের সময় কোনোরকম ক্ষতি করতে পারে না।

Face Masks During Exercise: ব্যায়ামের সময় মাস্ক পরলে গুরুতর ক্ষতির সম্ভাবনা কি আদেও আছে? কী জানালো এই গবেষণা?

কীভাবে মাস্ক পরে কাজ করবেন তা নিয়ে চিন্তিত? স্পোর্টস হেলথ-এ প্রকাশিত একটি নতুন গবেষণাপত্র দেখিয়েছে যে ব্যায়ামের সময় মাস্ক পরে থাকলে শরীরের তাপমাত্রা বা হৃদস্পন্দন উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পায় না।

ইউনিভার্সিটি অব কানেকটিকাটের কোরে স্ট্রিংগার ইনস্টিটিউটের স্পোর্ট সেফটি ডিরেক্টর আয়ামি ইয়োশিহারা চার ধরনের ফেস মাস্ক পরীক্ষা করেছেন। এগুলির মধ্যে ছিল একটি সার্জিক্যাল মাস্ক; একটি N95; একটি গেটার (যা ঘাড়কে ঢেকে রেখে নাক এবং মুখের উপর দিয়ে যায়) এবং একটি স্পোর্টস মাস্ক। ফেস মাস্ক যারা ব্যবহার করেননি তুলনায় মাস্ক ব্যবহারকারীদের কারোরই শরীরের তাপমাত্রা বা হৃদস্পন্দন উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পায়নি।

অংশগ্রহণকারীরা ৯০ ডিগ্রি ফারেনহাইট (৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াস) পরিবেশে ৬০ মিনিট ধরে হাঁটেন বা জগিং করেন। এর পাশাপাশি তাঁরা একদম সামান্য মানের ব্যায়ামও করেছিল। ইয়োশিহারা এবং তাঁর দল ফেস মাস্কের ভেতরের এবং বাইরের আর্দ্রতা আর তাপমাত্রারও পরিমাপ করেছিলেন। তাঁরা অংশগ্রহণকারীদের ফেস মাস্কের ভিতরে এবং বাইরে একটি সেন্সর লাগিয়েছিলেন।

Face Mask During Exercise

গবেষণায় তারা জানতে পারে যে স্পোর্টস মাস্ক এবং গেটার মাস্ক উল্লেখযোগ্যভাবে বেশি আর্দ্র হয়ে উঠেছে। এর কারণ এই মাস্কগুলির উপকরণগুলি নিঃশ্বাসের সময় বাতাস থেকে বেশি পরিমাণে জলীয় বাষ্প শোষণ করে। যদিও অংশগ্রহণকারীরা মাস্কের ভেতরে আর্দ্রতা এবং তাপমাত্রার পরিবর্তনের কারণে ফেস মাস্ক পরে ব্যায়ামের সময় শ্বাসকষ্টের রিপোর্ট করেছিলেন। যদিও, রিপোর্ট করা এই অস্বস্তির সঙ্গে শরীরের তাপমাত্রা বা হৃদস্পন্দনের পরিমাপের কোনও সম্পর্ক ছিল না।

ইয়োশিহারা আশা করেন যে এই গবেষণা যেসব ক্রীড়াবিদ গ্রীষ্মকালে বা শরৎকালে কোনও প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করবেন তাঁদের জন্য বিশেষ উপকারি হয়ে উঠতে পারে। কারণ এই সময় পরিবেশের তাপমাত্রা অনেক বেশি থাকে। একটি বিজ্ঞপ্তিতে ইয়োশিহারার উদ্ধৃতি দিয়ে বলা হয়েছে, “গরমে একদম সামান্য থেকে শুরু করে মাঝারি মানের ব্যায়ামের সময় মুখোশ ব্যবহার করা যাবে এবং তা সম্পূর্ণরূপে নিরাপদ।”

ইয়োশিহারা আরও বলেন যে, “এই গবেষণার আগে কেউ জানত না যে গরমে মাস্ক পরে ব্যায়াম করলে একজন ব্যক্তির চাপ অতিরিক্ত বাড়বে কি না। যদিও আমরা জানি যে কোভিডের সংক্রমণ রোধে মাস্ক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, কিন্তু আমরা জানতাম না যে গরমে মাস্ক পরে ব্যায়াম করা ঠিক কি না। যেখানে আপনার শরীর ইতিমধ্যেই অতিরিক্ত চাপের সঙ্গে মোকাবিলা করছে, সেখানে মাস্ক আপনার নিরাপত্তার উপর প্রভাব ফেলবে কি না তা জানা প্রয়োজনীয়।”

আরও পড়ুন: হৃদরোগের অন্যতম প্রধান কারণ হল ডায়াবেটিস, প্রতিকারের উপায়গুলো জেনে নিন…

আরও পড়ুন: কফি শট খেলে বাড়তে পারে শারীরিক ক্ষমতা, পাশাপাশি কমবে ওজনও!

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla