Diabetes Care: ওমিক্রন আতঙ্কের মধ্যে সুস্থ থাকতে বিশেষ যত্ন নিন ডায়াবিটিকরা! মেনে চলুন এই কয়েকটি অভ্যাস

Diabetes Care: ওমিক্রন আতঙ্কের মধ্যে সুস্থ থাকতে বিশেষ যত্ন নিন ডায়াবিটিকরা! মেনে চলুন এই কয়েকটি অভ্যাস
ডায়াবিটিসের রোগীরা সতর্ক থাকুন

এই সংক্রমণের সময়ে যাঁদের অন্য কোনও শারীরিক সমস্যা রয়েছে তাঁদের বিশেষ যত্ন নেওয়া প্রয়োজন। ডায়াবিটিস বা উচ্চরক্তচাপের মত সমস্যায় কিন্তু শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম থাকে

TV9 Bangla Digital

| Edited By: Reshmi Pramanik

Jan 28, 2022 | 6:38 PM

বিশ্বজুড়ে বাড়ছে ওমিক্রন ( Omicron)। প্রতিদিন এই ভাইরাসের কবলে পড়ে আক্রান্ত হচ্ছেন বহু মানুষ। সাধারণ জ্বর-সর্দির ( Flu) সমস্যাই এর প্রাথমিক লক্ষণ। কিন্তু সকলেই বাড়ুতে থেকে সুস্থ হয়ে উঠছেন। তবুও কিন্তু মেনে চলতে হবে যাবতীয় স্বাস্থ্যবিধি। নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখা এবং মাস্ক পরার পাশাপাশি কারণ ছাড়া বাড়ির বাইরে বেরোবেন না। যাঁদের ডায়াবিটিস ( Diabetes) রয়েছে তাঁদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম থাকে সুস্থ মানুষের চেয়ে। আর তাই তাঁদের ক্ষেত্রে বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করা প্রয়োজন। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় মাঝে মধ্যেই ভুল বার্তা ছড়ায়। আর তাই গুজবে কান না দিয়ে সমস্যা হলে সরাসরি চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করুন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইন মেনে চলুন। এছাড়াও আরও যে যে বিষয় অভ্যাসের মধ্যে রাখবেন-

বাড়িতে গ্লুকোমিটার রাখুন- যাঁদের ডায়াবিটিস রয়েছে তাঁদের সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখা জরুরি। সুগার বাড়লে যেমন সংক্রমণের আশঙ্কা থাকে তেমনই রোগ জটিলতার দিকে যেতে পারে। তবে অযথা আতঙ্কিত হবেন না। মাস্ক পরা, হাত ধোওয়া, স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া এসব নিয়ম মেনে চলুন। প্রয়োজনীয় ওষুধ খান। ওষুধ নিজে থেকে বন্ধ করে তদেবেন না। যদি দেখেন য্ে নিয়ম মানার পরও সুগার বাড়ছে তাহলে কিন্তু অতি অবশ্যই চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করবেন।

অক্সিমিটার-  এই সময় সব বাড়িতেই কিন্তু অক্সিমিটার রাখা জরুরি। কারণ কোভিডের গত দুই ঢেউয়ে অনেকের শরীরেই কমে গিয়েছিল অক্সিজেনের মাত্রা। সেই সঙ্গে ছিল শ্বাসকষ্টের সমস্যা। আর তাই অক্সিজেনের মাত্রাও সীমার মধ্যে থাকা জরুরি। ১০ দিনে একবার নিজের অক্সিজেন মাত্রা, পালস রেট এসব দেখে নিতেই পারেন।

সমস্যা হলে এড়িয়ে যাবেন না- শরীরে যদি কোনও সমস্যা হয় তাহলে তা এড়িয়ে যাবেন না বা চেপে যাবেন না। এই সময় সকলেরই সুস্থ থাকার খুব প্রয়োজন। আর তাই চিকিৎসকের কাছে যান। পরামর্শ নিন। প্রয়োজনীয় পরীক্ষা করান। ওষুধ খান। সর্বোপরি নিয়ম মেনে চলতে হবে।

নিয়ম মেনে চলুন- অনেকেই বাড়ির বাইরে বেরোলে ঠিক করে মাস্ক পরেন না। অনেকের মধ্যে নিয়মিত হাত ধোয়ার অভ্যাস নেই। এসব হলে মুশকিল। নিয়ম মেনে যেমন মাস্ক পরবেন, সঠিক মাস্ক বাছবেন তেমনই বার বার হাত ধুতে হবে। চোখে-নাকে-মুখে হাত দিয়ে দেবেন না সহজে। সঙ্গে স্যানিটাইজার রাখুন। বাইরে থেকে কিছু কিনে আনলে তা ধুয়ে-মুছে তবেই ব্যবহার করুন।

পুষ্টিকর খাবার- রোজকার ডায়েটে যাতে প্রয়োজনীয় খনিজ, ভিটামিন, প্রোটিন থাকে সেদিকে খেয়াল রাখুন। রঙিন মিষ্টি পানীয়, প্যাকেটজাত খাবার, প্রক্রিয়াজাত খাবার এসব কিন্তু পুরোপুরি এড়িয়ে চলুন। বাইরের ভাজা, অতিরিক্ত মশলা দেওয়া খাবার খাবেন না। বাড়ির তৈরি ঘরোয়া খাবার খান। মিষ্টি, ময়দা একেবারেই বাদ দিন। এতে শরীর থাকবে সুস্থ। ডায়াবিটিস থাকবে নিয়ন্ত্রণে।

নিজে সচল থাকুন- নিজেকেও কিন্তু প্রতিদিন নানা কাজের মধ্যে থাকতে হবে। অযথা ভয় পেয়ে বাড়িতে বসে থাকবেন না। এতে সমস্যা বাড়বে। প্রতিদিন ৩০ মিনিট হাঁটুন। শরীরচর্চা করুন। মন ভাল থাকুন। শরীরচর্চা, হাঁটা, ব্যায়াম প্রত্যেকের জন্যই ভীষণ প্রয়োজন।

Disclaimer: এই প্রতিবেদনটি শুধুমাত্র তথ্যের জন্য, কোনও ওষুধ বা চিকিৎসা সংক্রান্ত নয়। বিস্তারিত তথ্যের জন্য আপনার চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করুন। 

আরও পড়ুন: Healthy Heart: দীর্ঘদিন সুস্থ থাকতে হার্টের যত্ন নেওয়া প্রয়োজন! কো কোন অভ্যাস গড়ে তুলবেন? জানুন…

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA