Drinking Water: চা কিংবা কফি পানের পর জল খেতে নিষেধ করা হয়, কেন জানেন?

Health Tips: সকালে বিছানা ছাড়ার পর প্রাণবন্ত হয়ে উঠতে এক কাপ চা না হলে  আপনার চলে না? অথচ যতবারই আপনি চা পানের পর জলের গ্লাসের দিকে হাত বাড়ান ততবারাই ব্রেনের অন্দরে কে যেন বলে— ‘ চা পানের পর কখনওই জল পান করা উচিত নয়!’

Drinking Water: চা  কিংবা কফি পানের পর জল খেতে নিষেধ করা হয়, কেন জানেন?
TV9 Bangla Digital

| Edited By: dipta das

May 18, 2022 | 11:17 PM

ছোট থেকেই নিশ্চয় শুনেছেন মা-ঠাকুমারা বারবার করে বলছেন— ‘চা-কফি (Tea or Coffee)খাওয়ার পরে জল খেতে নেই!’প্রশ্ন হচ্ছে এই কথার কি সত্যিই কোনও গুরুত্ব রয়েছে? সত্যিই তো! এক গ্লাস নির্দোষ জল স্বাস্থ্যের কতটুকুই বা ক্ষতি করতে পারে? তাছাড়া স্বাস্থ্যবিশেষজ্ঞরা তো বারংবার বলেন যে শরীর সুস্থ (Healthy Life) রাখতে হলে পর্যাপ্ত জল পান (Drinking Water) করতেই হবে? তবে কি উষ্ণ চা এবং কফি পানের পর শীতল জল পান একটা বড়সড় বৈপরীত্য হয়ে যাবে বলেই এমন নিদান চালু হয়েছে? দেখা যাক। চা পানের পর জল পান করলে কী হয়?

সকালে বিছানা ছাড়ার পর প্রাণবন্ত হয়ে উঠতে এক কাপ চা না হলে  আপনার চলে না? অথচ যতবারই আপনি চা পানের পর জলের গ্লাসের দিকে হাত বাড়ান ততবারাই ব্রেনের অন্দরে কে যেন বলে— ‘ চা পানের পর কখনওই জল পান করা উচিত নয়!’ এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি, চা পানের পরে জল পান করলে তা যে বড়সড় ভয়ঙ্কর ব্যাধির জন্ম দিতে পারে এমন বৈজ্ঞানিক তথ্য কারও হাতে নেই। তবে হ্যাঁ, মনে করা হয়, চা বা কফির মতো কোনও উষ্ণ পানীয় গ্রহণ করার পর সঙ্গে সঙ্গে ঠান্ডা জল পান করলে তা পাইরিয়া-এর মতো সমস্যা তৈরি করতে পারে। প্রশ্ন হল কী এই পাইরিয়া?

পাইরিয়া মাড়ির রোগ হিসেবে পরিচিত। পাইরিয়া দাঁতের একধরনের রোগ যা দাঁতের আশেপাশের কোষকলাকে আক্রান্ত করে। এই রোগের প্রথম স্তরে অসুখটিকে জিঞ্জিভাইটিস বলা হয়। এক্ষেত্রে মাড়ি ফুলে যায়, লাল হয়। এমনকী রক্তও পড়তে পারে। এই রোগের গুরুতর অবস্থাকে বলা হয় ‘পেরিওডন্টাইটিস’। এই সময় মাড়িতে দাঁত আলগা হয়ে যেতে পারে। এমনকী দাঁতও পড়েও যেতে পারে। মুখ থেকে চরম দুর্গন্ধও বেরতে পারে। পাইরিয়া সাধারণত দাঁতের চারপাশের কোষে ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণের কারণে হয়।

এছাড়া উষ্ণ চা বা কফি পানের পর জল পান করলে হজমেরও সমস্যা হতে পারে। হতে পারে অ্যাসিডিটি ও বুক জ্বালার মতো সমস্যাও! তবে কি চা বা কফি পানের আগে জল পান?

চা বা কফি পানের আগে জল পানের উদ্দেশ্য একটাই, আর তা হল স্টমাকে অ্যাসিডের মাত্রা কমিয়ে দেওয়া। চায়ের পিএইচ লেভেল মোটামুটি ৬। অর্থাৎ চা একটু অম্লধর্মী। কফির পিএইচ লেভেল ৫। কফিও প্রায় চায়ের মতোই অম্লধর্মী বা অ্যাসিডিক। অর্থাৎ চা কিংবা কফি পানের ফলে আমাদের পাকস্থলীতে অ্যাসিডের মাত্রা বাড়ে। তাই সকালে প্রায় খালি পেটে আমরা যখন চা কিংবা কফি পান করি তখন স্টমাকে অ্যাসিডের মাত্রা বাড়ে। প্রতিদিন এভাবে চা কিংবা কফি পান করলে তা স্টমাকে আলসারের মাত্রা বাড়িয়ে তুলতে পারে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চা পানের আগে জল পান করলে স্টমাকে অ্যাসিডের মাত্রা কমে যায়।

এবার আসা যাক দাঁতের প্রসঙ্গে। খুব ঠান্ডা বা খুব গরম পানীয় বা খাদ্য দাঁতের পক্ষে ক্ষতিকর। কারণ দাঁতের উপর থাকে এনামেল নামক একটি বিশেষ সুরক্ষার আবরণ। খুব শীতল বা খুব উষ্ণ বস্তুর সংস্পর্শে সেই এনামেল ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ধরতে পারে ফাটলও। বিশেষ খুব দ্রুত গরম ও ঠান্ডার বৈপরীত্যের কারণে দাঁতের এনামেলের বেশি ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা থাকে। তবে স্বাভাবিক উষ্ণতার জল পানের পরে উষ্ণ চা পানে ততটা ক্ষতি হয় না কারণ, সেক্ষেত্রে দাঁত উষ্ণ হওয়ার জন্য অনেকটা সময় পায়। তবে উষ্ণ দাঁতে শীতল জল ঢাললে তা অত দ্রুত শীতল হতে পারে না। এনামেলের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কাও তাই বেশি থাকে।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla