Shraddha Walkar murder case: আফতাব ভাল নেই, হল না পলিগ্রাফ টেস্ট

শ্রদ্ধা ওয়াকার খুনের ঘটনায় এবার আফতাবের পরিবারের বয়ান রেকর্ড দিল্লি পুলিশ। প্রয়োজনে আবার তাঁদের ডাকা হতে পারে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

Shraddha Walkar murder case: আফতাব ভাল নেই, হল না পলিগ্রাফ টেস্ট
অভিযুক্ত আফতাব আমিন।
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Sukla Bhattacharjee

Nov 23, 2022 | 8:16 PM

নয়া দিল্লি: আফতাব ভাল নেই। তাই বুধবার তার পলিগ্রাফ টেস্ট হল না। তবে বৃহস্পতিবার আফতাবের পলিগ্রাফ পরীক্ষা করা হতে পারে বলে তিহার জেলের তরফে জানানো হয়েছে। অন্যদিকে, শ্রদ্ধা ওয়াকার খুনের ঘটনায় এবার আফতাবের পরিবারের বয়ান রেকর্ড দিল্লি পুলিশ। প্রয়োজনে আবার তাঁদের ডাকা হতে পারে বলে পুলিশ জানিয়েছে। কেননা এবার শ্রদ্ধা হত্যাকাণ্ডের তদন্তে আফতাবের পরিবারের নাম উঠে এসেছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, দু-বছর আগে আফতাবের সঙ্গে মহারাষ্ট্রের পালঘরে থাকাকালীন প্রাণহানির আশঙ্কা করে পালঘরের তুলিনি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছিলেন শ্রদ্ধা। পুলিশকে চিঠি দিয়ে তিনি জানিয়েছিলেন, আফতাব পুনাওয়ালা তাঁকে মারধর করে এবং হত্যা করে দেহ টুকরো টুকরো করে দেওয়ার হুমকি দিয়েছে। আর একথা আফতাবের পরিবারও জানে বলে শ্রদ্ধা চিঠিতে জানিয়েছিলেন। তাই এবার শ্রদ্ধা ওয়াকার খুনের ঘটনায় আফতাবের পরিবারকে জিজ্ঞাসাবাদ করল পুলিশ।

অন্যদিকে, বছর দুয়েক আগে শ্রদ্ধা ওয়াকার আফতাবের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করলেও কেন তুলিনি পুলিশ পদক্ষেপ করেনি, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। এপ্রসঙ্গে তুলিনি পুলিশ জানায়, শ্রদ্ধা ওয়াকার ২০২০ সালের ২৩ নভেম্বর আফতাবের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করলেও দিন কয়েক পরেই সেটি তুলে নেন। ফলে মামলাটি ‘ক্লোজড’ হয়ে যায়।

এদিকে, এদিন আফতাবের পলিগ্রাফ পরীক্ষা করার চেষ্টা হয়েছিল। কিন্তু, আফতাব শারীরিক ও মানসিক দিক থেকে সুস্থ না থাকায় পলিগ্রাফ পরীক্ষা করা সম্ভব হয়নি বলে তিহার জেল সূত্রে খবর। বিশেষজ্ঞদের মতে,পলিগ্রাফ পরীক্ষার মাধ্যমে অবসাদ পরিমাপ করা হয়, যেটা স্বাভাবিকভাবে মানসিক সক্রিয়তা, হার্ট রেট বাড়িয়ে দেয়। তখন ব্যক্তি মিথ্যা বলতে পারে। তাই এদিন আফতাবের পলিগ্রাফ পরীক্ষা করা হয়নি। সবকিছু ঠিক থাকলে বৃহস্পতিবার তার পলিগ্রাফ পরীক্ষা হতে পারে।

প্রসঙ্গত, মাস ছয়েক আগে ছত্তরপুরে ফ্ল্যাটেই আফতাব আমিন পুনাওয়ালা গার্লফ্রেন্ড শ্রদ্ধা ওয়াকারকে হত্যা করে তাঁর দেহ ৩৫ টুকরো করেছে বলে অভিযোগ। পুলিশি জেরায় অভিযুক্ত জানিয়েছে, শ্রদ্ধার দেহের টুকরোগুলি সে প্রায় ছয় মাস ফ্ল্যাটের মধ্যেই ফ্রিজে সংরক্ষণ করে রেখেছিল। তারপর সেগুলি মেহরৌলির জঙ্গলে ফেলে দেয়। মঙ্গলবার আদালতেও গার্লফ্রেন্ড শ্রদ্ধা ওয়াকারকে হত্যা করার কথা স্বীকার করেছে আফতাব পুনাওয়ালা। তবে ‘রাগের মাথায়’ খুন করেছে বলে সে জানিয়েছে। এরপরই বয়ানের সত্যতা নিশ্চিত করতে দিল্লি হাইকোর্টের বিচারপতি আফতাবের পুলিশি হেফাজতের মেয়াদ আরও ৪ দিন বাড়িয়ে দিয়ে তার পলিগ্রাফি পরীক্ষা করার নির্দেশ দেন।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla