২৫০ টাকাতেই মিলতে পারে দুটি ডোজ়! শিশুদের উপরও ট্রায়ালের অনুমতি পেল বায়োলজিক্যাল-ই

২৫০ টাকাতেই মিলতে পারে দুটি ডোজ়! শিশুদের উপরও ট্রায়ালের অনুমতি পেল বায়োলজিক্যাল-ই
ফাইল ছবি

শিশুদের ভ্যাকসিনে দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফার ট্রায়ালের অনুমতি দেওয়ার পাশাপাশি ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া প্রাপ্তবয়স্কদের উপর তৃতীয় দফার ট্রায়াল চালানোর অনুমতিও দিয়েছে। 

TV9 Bangla Digital

| Edited By: ঈপ্সা চ্যাটার্জী

Sep 04, 2021 | 6:50 AM

নয়া দিল্লি: তৃতীয় ঢেউ থেকে শিশুদের সুরক্ষা জোগাতে পারে বায়োলজিক্যাল-ই’ (Biological-E)-র করোনা টিকা। শিশুদের জন্য করোনা টিকার প্রথম দফা ট্রায়ালে সাফল্য মেলার পর এ বার পরবর্তী পরীক্ষা নিরীক্ষারও অনুমতি মিলল। শুক্রবারই কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছে যে, বায়োলজিক্যাল-ই সংস্থাকে দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফার ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

৫ থেকে ১৮ বছর বয়সীদের উপর এই ট্রায়াল চালানো হবে বলে জানানো হয়েছে বায়োটেকনোলজি বিভাগের তরফে। বায়োলজিক্যাল-ই সংস্থার তৈরি করোনা টিকা কোর্বেভ্যাক্স (Corbevax)সম্পূর্ণ দেশীয় পদ্ধতিতে তৈরি প্রোটিন ভিত্তিক ভ্যাকসিন।  বায়োটেকনোলজি বিভাগের সহায়তায় এই ভ্যাকসিন তৈরি করা হয়েছে।

শিশুদের ভ্যাকসিনে দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফার ট্রায়ালের অনুমতি দেওয়ার পাশাপাশি ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া প্রাপ্তবয়স্কদের উপর তৃতীয় দফার ট্রায়াল চালানোর অনুমতিও দিয়েছে।  প্রথম ও দ্বিতীয় দফার ট্রায়ালে প্রাপ্ত তথ্যের পর্যালোচনা করার পর এক্সপার্ট কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতেই তৃতীয় দফা ট্রায়ালের অনুমতি মিলেছে বলে জানা গিয়েছে।

এই বিষয়ে বায়োটেকনোলজি বিভাগের তরফে বলা হয়, “১ সেপ্টেম্বরই শিশু ও নাবালক/নাবালিকাদের উপর কোর্বেভ্যাক্সের দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফার ট্রায়ালের অনুমতি মিলেছে। শিশুদের দেহে প্রবেশের পর এই প্রোটিন ভিত্তিক ভ্যাকসিনটি কতটা প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে, সহন ক্ষমতা কত ও দেহে করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে সক্ষম হচ্ছে কিনা, তা দেখা হবে।”

অন্যদিকে, বায়োলজিক্যাল-ই সংস্থার ম্যানেজিং ডিরেক্টর মহিমা দাতলা জানান, ট্রায়ালের অনুমোদন পাওয়ায় এ বার সংস্থার তরফে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কাছেও অনুমোদনের জন্য আবেদন পাঠানো হবে।  তিনি বলেন, ” এই অনুমোদন পেয়ে আমরা অত্যন্ত খুশি। দেশের টিকা চাহিদা পূরণ করতে আমাদের তৈরি ভ্যাকসিন বিশেষ ভূমিকা পালন করবে বলেই আশাবাদী। শীঘ্রই আমরা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদনের জন্যও আবেদন পাঠাবো।”

উল্লেখ্য, বায়োলজিক্যাল-ই ভ্যাকসিন তৈরির ঘোষণার পরই কেন্দ্রের তরফে ৩০ কোটি ডোজ় কেনার বরাত দিয়েছে কেন্দ্র। ইতিমধ্যেই ভ্য়াকসিন কেনার জন্য সংস্থাকে দেড় হাজার কোটি টাকাও দেওয়া হয়েছে।

এখনও অবধি দেশে কেবল একটি টিকাই শিশুদের উপর প্রয়োগের অনুমতি মিলেছে। সম্প্রতিই ডিসিজিআই জ়াইডাস ক্যাডিলার সূচবিহীন ভ্যাকসিন জ়াইকোব-ডিকে ১২ থেকে ১৮ বছর বয়সীদের উপর জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োগের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।  শিশুদের জন্য টিকা তৈরির লাইনে রয়েছে সেরাম ও ভারত বায়োটেক সংস্থাও। একদিকে যেমন কোভ্যাক্সিনের ট্রায়াল চলছে, অন্যদিকে গত জুলাই মাসেই ডিসিজিআইয়ের তরফে সেরাম ইন্সটিটিউট অব ইন্ডিয়াকে তাদের নতুন টিকা কোভোভ্যাক্সের দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফার ট্রায়াল চালানোর অনুমতি দেওয়া হয় ২ থেকে ১৭ বছর বয়সীদের উপর।

মেড ইন ইন্ডিয়া ভ্যাকসিন কোর্বেভ্যাক্সের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল এর দাম। দেশের সবচেয়ে সস্তা করোনা প্রতিষেধক হতে পারে কোর্বেভ্যাক্স।  এই প্রতিষেধকের ২ ডোজ়ের দাম হতে পারে স্রেফ ২৫০ টাকা। আগামী অক্টোবরেই এই ভ্যাকসিন বাজারে আসার সম্ভাবনা রয়েছে। আরও পড়ুন: বিধানসভায় সুড়ঙ্গ! অজানা ইতিহাসের হাতছানি? 

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA