Singhu Murder: পাশবিক! সিঙ্ঘু সীমান্তে ব্যারিকেড থেকে ঝুলছে হাত-পা কাটা দেহ

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: Soumya Saha

Updated on: Oct 15, 2021 | 1:45 PM

Murder at Farmer Protest Site: বীভৎস সে দৃশ্য। আজ সকালে যখন দেহটি প্রথম চোখে পড়, তখন তা পুলিশের ব্যারিকেড উল্টো করে তার সঙ্গে ঝোলানো ছিল। চোখগুলো যেন ঠিকরে বেরিয়ে আসছে। একটি হাতের কবজির পর বাকি অংশ আর নেই। পা দিয়েও রক্ত বেরিয়েছে প্রচুর।

Singhu Murder: পাশবিক! সিঙ্ঘু সীমান্তে ব্যারিকেড থেকে ঝুলছে হাত-পা কাটা দেহ
ফুটপাত থেকে এক মহিলার দেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য(প্রতীকী ছবি)

নয়া দিল্লি: হাড় হিম করে দেওয়া খুন দিল্লির সিঙ্ঘু সীমান্তে। কৃষকরা সিঙ্ঘুর যেখানে আন্দোলন করছিলেন এতদিন, তার কাছেই একটি ব্যারিকেডের সঙ্গে এক যুবকের রক্তাক্ত দেহ ঝুলতে দেখা যায়। বছর পয়ত্রিশের ওই যুবকের হাত কবজি থেকে কাটা ছিল। আশেপাশের রক্তের দাগ স্পষ্ট। আজ সকালে দেহটি ঝুলে থাকতে দেখা যায়। এর পর থেকেই এলাকায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

সোনিপতের ডিএসপি হংসরাজ জানিয়েছেন, আজ ভোর পাঁচটা নাগাদ হাত-পা কাটা একটি দেহ কৃষকদের আন্দোলন মঞ্চের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। এই ঘটনার সঙ্গে কে জড়িত তা এখনও জানা যায়নি। অজ্ঞাত পরিচয় ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। মৃত ব্যক্তির নাম লখবির সিং। তিনি তনতরণ জেলার বাসিন্দা।

এদিকে আজ সকালে এই দেহ উদ্ধারের পাশাপাশি একটি ভিডিয়োও প্রকাশ্যে এসেছে। প্রাথমিকভাবে অনুমান করা হচ্ছে নিহংস নামে এক শিখ গোষ্ঠী তাঁকে এই নৃশংসভাবে খুন করেছে। দেখা যাচ্ছে, লখবির সিংয়ের একটা হাত কেটে দিচ্ছে ওই উন্মত্ত দুষ্কৃতীরা। গলগল করে রক্ত বেরোচ্ছে হাতের কবজি থেকে। পায়ের ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপ বসানো হচ্ছে। সারা শরীর রক্ত মাখামাখি। কিন্তু তখনও প্রাণ রয়েছে। আর তার মধ্যেই উন্মত্ত খুনীদের দল লখবীরের শরীরের উপর উঠে লাফাচ্ছে।

এ এক নারকীয় ঘটনার সাক্ষী থাকল দেশ। বীভৎস সে দৃশ্য। আজ সকালে যখন দেহটি প্রথম চোখে পড়, তখন তা পুলিশের ব্যারিকেড উল্টো করে তার সঙ্গে ঝোলানো ছিল। চোখগুলো যেন ঠিকরে বেরিয়ে আসছে। একটি হাতের কবজির পর বাকি অংশ আর নেই। পা দিয়েও রক্ত বেরিয়েছে প্রচুর। রক্তে ভেজা শরীর। চারিদিকে রক্তের ছিটে। যদিও ওই ভিডিয়োগুলি সম্পর্কে এখনই কিছু বলতে চাইছে না পুলিশ।

লখবীরের দেহ আপাতত উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। একাধিক রিপোর্টে বলা হচ্ছে, লখবীর নামে ওই ব্যক্তি নাকি পবিত্র শিখ ধর্মগ্রন্থ গুরু গ্রন্থসাহিবের অবমাননা করেছিলেন। আর সেই কারণেই তাঁর উপর চড়াও হয় নিহংস গোষ্ঠী। তবে ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

আর এই পাশবিক হত্যায় ইতিমধ্যেই সরব হতে শুরু করেছেন রাজনীতিকরা। বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য ইতিমধ্যেই বিষয়টি নিয়ে টুইট করেছেন। লখিমপুরের ঘটনা এবং তারপর এই সিঙ্ঘু সীমান্তের পাশবিক হত্যা নিয়ে তোপ দেগেছেন কৃষক নেতা রাকেশ টিকাইতের বিরুদ্ধে।

আরও পড়ুন : ১৪৫ ফুটের বেশি মণ্ডপকে অনুমতি কেন? শ্রীভূমির হাত ধরে মন খারাপের স্মৃতি ফিরল দেশপ্রিয় পার্কে

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla