New Chief Justice UU Lalit : দেশের ৪৯ তম প্রধান বিচারপতি ইউ ইউ ললিত, শপথ নিয়েই বাবার পা ছুঁয়ে প্রণাম

49th CJI of India : দেশের ৪৯ তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে শপথ নিলেন বিচারপতি ইউ ইউ ললিত। তাঁকে শপথ বাক্য় পাঠ করালেন রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু।

New Chief Justice UU Lalit : দেশের ৪৯ তম প্রধান বিচারপতি ইউ ইউ ললিত, শপথ নিয়েই বাবার পা ছুঁয়ে প্রণাম
রাষ্ট্রপতি ভবনে শপথ নিলেন বিচারপতি ইউ ইউ ললিত (ছবি সৌজন্য়ে : ANI)
TV9 Bangla Digital

| Edited By: অঙ্কিতা পাল

Aug 27, 2022 | 5:37 PM

নয়া দিল্লি : দেশের ৪৯ তম প্রধান বিচারপতি হিসেব শপথ নিলেন বিচারপতি উদয় উমেশ ললিত। শনিবার রাষ্ট্রপতি ভবনে দেশের প্রধান বিচারপতি পদে তাঁকে শপথবাক্য পাঠ করালেন রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু। প্রধান বিচারপতি হিসেবে শপথ নিলেও সেই পদে তাঁর মেয়াদ খুব বেশিদিন নয়। আগামী নভেম্বরেই তাঁর অবসর নেওয়ার পালা। তবে দেশের প্রধান বিচারপতি হিসেবে ৭৪ দিনের এই ছোট্ট সফরেই অভাবনীয় কাজ করার কথা বলেছেন তিনি।

এই শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপরাষ্ট্রপতি জগদীপ ধনখড়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, প্রাক্তন উপরাষ্ট্রপতি এম বেঙ্কাইয়া নাইডু ও আইনমন্ত্রী কিরেণ রিজিজু সহ অন্যান্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি এন ভি রমণও। এদিকে প্রধান বিচারপতি পদে শপথ নিয়ে পরিবারের বড়দের থেকে আশীর্বাদ নেন বিচারপতি ইউ ইউ ললিত। তাঁর ৯০ বছর বয়সী বাবা এবং হাই কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি উমেশ রাঙ্গানাথ ললিতের পাঁ ছুয়ে প্রণাম করেন তিনি। গতকাল প্রধান বিচারপতি পদে শেষ দিন ছিল দেশের প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি এন ভি রমণের। তিনি তাঁর বিদায়ী বক্তৃতায় আবেগপ্রবণ হয়ে নিজের জীবনের এক একটি অধ্য়ায় ভাগ করে নেন সকলের সঙ্গে। প্রধান বিচারপতি পদে তাঁর মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই পরবর্তী প্রধান বিচারপতি পদে নয়া বিচারপতির সুপারিশ চেয়ে এন ভি রমণের কাছে চিঠি পাঠিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী কিরেণ রিজিজু। সেই চিঠির জবাবে বিচারপতি ইউ ইউ ললিতের নাম প্রস্তাব করেছিলেন এন ভি রমণ। তারপর এন ভি রমণের প্রস্তাবেই সায় দিয়ে দেশের ৪৯ তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে বিচারপতি উদয় উমেশ ললিতের নাম ঘোষণা করা হয় আইন মন্ত্রকের তরফে। এবার আজ সেই পদে শপথ নিলেন বিচারপতি ইউ ইউ ললিত।

এদিকে দেশের প্রধান বিচারপতি নির্বাচনের নিয়ম অনুযায়ী, সুপ্রিম কোর্টের প্রবীণতম বিচারপতিকেই দেশের প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিযুক্ত করা হয়। এন ভি রমণের পর বিচারপতি ইউ ইউ ললিতই ছিলেন সবচেয়ে প্রবীণ বিচারপতি। তবে এই পদে তার মেয়াদ তিন মাসেরও কম। ৮ নভেম্বরই তাঁর অবসর নেওয়ার পালা। তবে তাঁর ৭৪ দিনের সফরের আগে দেশের বিচারব্যবস্থা নিয়ে তিনি বলেন,’আমাদের কঠোর পরিশ্রম করতে হবে যাতে আমরা বলতে পারি সারা বছর ধরে অন্তত একটি সাংবিধানিক বেঞ্চ কাজ করেছে।’ গতকাল সুপ্রিম কোর্টের বার অ্য়াসোসিয়েশনের তরফে এন ভি রমণের বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে উপস্থিত থেকে তিনি বলেন, কোন মামলার শুনানি আগে করতে হবে তার সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য শীঘ্রই কোনও পথ খুঁজে বের করতে হবে। তিনি জানিয়েছেন, বিচারব্যবস্থার সরল ও স্বচ্ছতার বিষয়টিকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

১৯৫৭ সালের ৯ নভেম্বর মহারাষ্ট্রের জন্মগ্রহণ করেন প্রধান বিচারপতি ইউ ইউ ললিত। আইনজীবী হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন ১৯৮৩ সালের জুন মাসে। বম্বে হাইকোর্টে অনুশীলন করেন বম্বে হাইকোর্টে। দেশের শীর্ষ আদালত সিনিয়র আইনজীবী হিসেবে তাঁকে ২০০৪ সালে মনোনীত করে। তারপর বারের তরফে বিচারপতি হিসেবে তাঁর নাম সুপারিশ করা হয়। ২০১৪ সালের ১৩ অগস্ট সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হিসেবে নিযুক্ত হন উদয় উমেশ ললিত। 2G স্পেকট্রাম কেলেঙ্কারি মামলায় সিবিআই-র পাবলিক প্রসিকিউটরের ভূমিকাও পালন করেন তিনি। তিনিই দেশের দ্বিতীয় প্রধান বিচারপতি যিনি সরাসরি বার থেকে শীর্ষ আদালতের বিচারপতি হিসেবে নিযুক্ত হয়েছেন।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla