মারাত্মক: পাক গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে গ্রেফতার রেলের কর্মী

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: অরিজিৎ দে

Updated on: Sep 10, 2021 | 8:39 PM

isi agent, পুলিশ সূত্রে জানা গেছে ধৃতের নাম ভরত বাওড়ি। ধৃত জানিয়েছেন মধুচক্রের ফাঁদ পেতে তাঁকে ফাঁসানো হয়েছে। ভরত বাওড়ি জয়পুর রেলওয়ে স্টেশনের নিকটে একটি ডাকঘরে কর্মরত ছিলেন।

মারাত্মক: পাক গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে গ্রেফতার রেলের কর্মী
ডানকুনি থেকে গ্রেফতার প্রাক্তন গাড়ি চালক (প্রতীকী ছবি)

জয়পুর: ভারতীয় রেলের (Indian Railway) এক কর্মীর বিরুদ্ধে দেশের গোপন তথ্য পাকিস্তানে পাচারের মারাত্মক অভিযোগ। রাজস্থানের (Rajasthan) রাজধানী জয়পুরে ভারতীয় রেলের ডাক বিভাগের ২৭ বছর বয়সী ওই কর্মীর বিরুদ্ধে সেনা বাহিনীর (Indian Army) গোপন তথ্য পাক এজেন্টের হাতে তুলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ইতিমধ্যেই এ নিয়ে একটি অভিযোগ নথিভুক্ত হয়েছে। তদন্ত চালাচ্ছে পুলিশ।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর গোয়েন্দা বিভাগ ও রাজ্যের গোয়েন্দা দফতর অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে। তদন্তে উঠে আসছে রেলের ওই কর্মী পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই-এর এক এজেন্টের সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়াকে (social media) হাতিয়ার করে গোপন তথ্য আদান প্রদান করতেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃতের নাম ভরত বাওড়ি। পুলিশি জেরায় সে জানায় মধুচক্রের ফাঁদ পেতে তাঁকে ফাঁসানো হয়েছে। ভরত বাওড়ি জয়পুর রেলওয়ে স্টেশন পার্শ্বস্ত একটি ডাকঘরে কর্মরত ছিলেন। বিগত ৬ মাস ধরে অর্থের বিনিময়ে দেশের নিরাপত্তা বিষয়ক বহু তথ্য ওই রেলওয়ে কর্মী পাক গুপ্তচরক সংস্থাকে সরবরাহ করেছেন বলে অভিযোগ।

ধৃতকে জেরা করার সময়, তিনি জানান, যোধপুর জেলার খেদাপা গ্রামে তাঁর বাড়ি। তিন বছর আগে এমটিএস (MTS) পরীক্ষা দিয়ে ডাক ঘরের (Post Office) এই চাকরিটি তিনি পেয়েছিলেন। পুলিশ আধিকারিকদের (Police Officer) থেকে পাওয়া তথ্য থেকে জানতে পারা যাচ্ছে যে, ৪ – ৫ মাস আগে ফেসবুকে একটি মেয়ের সঙ্গে তাঁর আলাপ হয় এবং তাঁরা ফোন কল ও ভিডিও কলের মাধ্যমে কথা বলতো।

ওই মহিলা তাকে জানান , তিনি নার্সিং পড়ার পাশাপাশি ডাক্তারিতে ভর্তি হওয়ার জন্য তৈরি হচ্ছেন। এক আত্মীয়কে জয়পুরে স্থানান্তরিত করা বাহানায় তিনি ধৃতের কাছে সেনা ইউনিটের ছবি চেয়ে পাঠান।অভিযুক্ত জানান, রহস্যময় সেই নারী তার বিশ্বাস অর্জন করার তিনি তার সঙ্গে দেখা করতে জয়পুর আসছেন এই বিষয়ে বেশ কিছু জাল ছবি পাঠান।যখন ওই মহিলা ধৃত ডাক কর্মীর থেকে সেনার গোপন চিঠির ছবি চেয়ে পাঠাতেন, তিনি তার কথামতো হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে চিঠির খাম খুলে তার ছবি তুলে পাঠাতেন।

অভিযুক্তের থেকে পাওয়া তথ্য যাচাই করে দেখার পর সরকারী গোপনীয়তা আইন ,১৯২৩ অনুসারে তার বিরুদ্ধে একটি মামলা রুজু করেছে পুলিশ। তদন্তকারী আধিকারিকদের ধৃত জানিয়েছেন তার ওই মহিলা বন্ধুর অনুরোধে তিনি ফোনের সিম কার্ড ও হোয়াটসঅ্যাপের (Whatsapp) ওটিপি ওই মহিলাকে দিয়ে দেন। ধৃতকে জেরা করে পাওয়া তথ্য বিশ্লেষণের পর তদন্তকারীদের চোখ কপালে উঠেছে। এই বিষয়ে আরও বিস্তারিত তদন্তের প্রয়োজন রয়েছে বলে জানিয়েছেন আধিকারিকরা।

আরও পড়ুন প্রাক্তন আফগান উপরাষ্ট্রপতি আমরুল্লাহর ভাইকে নৃশংসভাবে খুন করল তালিবান

আরও পড়ুন ‘গণতান্ত্রিক পটভূমিতে প্রাধান্য পাবে সংখ্যাগরিষ্ঠের মতই’, বিশেষ পর্যবেক্ষণ সুপ্রিম কোর্টের

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla