সিব্বলদের বিহার ভোটের প্রচারে সামিল করতে চায়নি কংগ্রেস, বিস্ফোরক দাবি ঘনিষ্ঠ সূত্রের

বিহার বিধানসভা নির্বাচন প্রসঙ্গে কংগ্রেস নেতা কপিল সিব্বল ঘনিষ্ঠ সূত্রের বিস্ফোরক দাবি, তাঁকে প্রচারে সামিল করতে চায়নি দল, পরোক্ষে জবাব অধীর চৌধুরিকে

সিব্বলদের বিহার ভোটের প্রচারে সামিল করতে চায়নি কংগ্রেস, বিস্ফোরক দাবি ঘনিষ্ঠ সূত্রের
কপিল সিব্বল ছবি: পিটিআই
ঋদ্ধীশ দত্ত

|

Nov 27, 2020 | 7:27 AM

TV9 বাংলা ডিজিটাল: বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াই অনেক দূরের কথা। কংগ্রেস (Indian National Congress) জ্বলছে নিজের ঘরের আগুনেই। বিশেষ করে বিহার বিধানসভা (Bihar Election 2020) নির্বাচনে কংগ্রেসের ভরাডুবির পর সেই আগুন দাবানলের আকার নিয়েছে। ভোট প্রচারে রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi) নিজে অংশ নেওয়ার পরও কংগ্রেসের এত খারাপ ফলের কারণ ক্রমশ স্পষ্ট হচ্ছে। পাল্লা দিয়ে দলের অন্তর্কলহের ছবি রোজই প্রকাশ্যে আসছে।

কংগ্রেসের বরিষ্ঠ নেতা তথা রাজ্যসভার সাংসদ কপিল সিব্বল (Kapil Sibal) দু’দিন আগে সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, বিহার-সহ বাকি রাজ্যের উপনির্বাচনকেও দল যথেষ্ট গুরুত্ব দেয়নি। হাইকমান্ডের নেতৃত্ব ও দল পরিচালনার পদ্ধতি নিয়েও সওয়াল তোলেন তিনি। এরপর লোকসভার কংগ্রেস দলনেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী তোপ দাগেন নিজের সতীর্থের বিরুদ্ধে। অসংবেদনশীল মন্তব্য না করে দল ছেড়ে যাওয়ার বা নতুন দল গঠন করার পরামর্শ সিব্বলকে (Kapil Sibal News) দেন তিনি। সঙ্গে প্রশ্নও করেন, এতই দরদ যখন কপিল সিব্বল নিজে বিহার ও মধ্য প্রদেশে গেলেন না কেন?

সুপ্রিম কোর্টের বরিষ্ঠ আইনজীবী অধীরের মন্তব্যের প্রেক্ষিতে কোনও জবাব দেননি ঠিকই। তবে ‘বিক্ষুব্ধ’ নেতার ঘনিষ্ঠ মহল জানাচ্ছে, অধীরের এহেন মন্তব্যে তাজ্জব হয়ে গিয়েছেন সিব্বল। কেননা, গত অগস্ট মাসে সোনিয়া গান্ধীকে চিঠি দেওয়া ২৩ জন ‘বিদ্রোহী’ নেতার মধ্যে সিব্বলেরও নাম ছিল। সেই ২৩ নেতার কাউকেই তারপর থেকে দলীয় কোনও কর্মসূচিতে সামিল করা হয়নি। বিহার বিধানসভা বা অন্য উপনির্বাচনের জন্য প্রচারের তালিকায় তো রাখা-ই হয়নি। অধীর লোকসভায় দলনেতা হওয়া সত্ত্বেও এই বিষয়টির সঙ্গে কী ভাবে অবগত নন, সেটাই ভেবে পাচ্ছেন না সিব্বল।

আরও পড়ুন: ‘বিভিন্ন পদ থেকে সরানো হয়েছিল সৌমিত্রকে, মৃত্যুর পর নাটক হল’, বিস্ফোরক অধীর

ঘনিষ্ঠ সূত্র আরও জানিয়েছে, কপিল সিব্বল কংগ্রেসেই রয়েছেন এবং সেখানেই থাকতে চান। কিন্তু এই বাস্তবটাও তিনি স্বীকার করেন যে দলের ভিতরে গুরুতর কিছু সমস্যা রয়েছে। সেটা অবিলম্বে মেটানো প্রয়োজন। যতদিন না কংগ্রেস আমূল পরিবর্তনের জন্য কোনও পদক্ষেপ করছে, ততদিন বিজেপি বা নরেন্দ্র মোদী সরকারের সঙ্গে টক্কর দেওয়া আকাশকুসুম স্বপ্নই থেকে যাবে তাদের।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla