Kerala High Court: বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সঙ্গমে ধর্ষণের অভিযোগ করতে পারেন না কোনও বিবাহিত মহিলা: কেরল হাইকোর্ট

Kerala High Court: যদি কোনও পুরুষ কোনও বিবাহিত মহিলাকে বিবাহের প্রতিশ্রুতি দিয়ে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেন, তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ ধোপে টিকবে না।তাৎপর্যপূর্ণ পর্যবেক্ষণ কেরল হাইকোর্টের।

Kerala High Court: বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সঙ্গমে ধর্ষণের অভিযোগ করতে পারেন না কোনও বিবাহিত মহিলা: কেরল হাইকোর্ট
কেরল হাইকোর্ট (ফাইল ছবি)
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Amartya Lahiri

Nov 25, 2022 | 5:22 PM

তিরুবনন্তপুরম: যদি কোনও পুরুষ কোনও বিবাহিত মহিলাকে বিবাহের প্রতিশ্রুতি দিয়ে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেন, তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ ধোপে টিকবে না। তাৎপর্যপূর্ণ পর্যবেক্ষণ কেরল হাইকোর্টের (Kerala High Court)। কেরলের কোল্লাম জেলার এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ করেছিলেন এক বিবাহিত মহিলা। বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর), মামলাটি খারিজ করে দিয়েছে হাইকোর্ট। আদালত জানিয়েছে, এই ক্ষেত্রে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬ ধারার অধীনে ধর্ষণের অভিযোগ আনা যায় না।

মামলাটি ২০১৮ সালের। পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত ব্যক্তি এক মহিলাকে বিবাহের প্রতিশ্রুতি দিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় এবং ভারতে বেশ কয়েকবার যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছিলেন। ওই ব্যক্তির সঙ্গে সম্পর্ক হওয়ার সময় মহিলার বিবাহিত ছিলেন, কিন্তু স্বামীর সঙ্গে তাঁর কোনও সম্পর্ক ছিল না। বিবাহ বিচ্ছেদের আবেদন করেছিলেন তিনি। মহিলার দাবি, অভিযুক্ত তাঁকে বারবার বিবাহের প্রতিশ্রুতি দেওয়াতেই তিনি যৌন সম্পর্কে সম্মতি জানিয়েছিলেন।

বিচারপতি কওসর এদাপ্পাগথের এক বিচারপতির বেঞ্চ জানিয়েছে, যখন কোনও বিবাহিত মহিলা স্বেচ্ছায় কোনও পুরুষের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেন, তখন তিনি এটা জেনেই এগোন যে, ওই ব্যক্তির সঙ্গে আইনত বিবাহ করা তাঁর পক্ষে সম্ভব নয়। কাজেই এই ক্ষেত্রে তাঁর পক্ষে ধর্ষণের অভিযোগ করা সম্ভব নয়। বিচারপতি কওসর এদাপ্পাগথ আরও বলেন, “আবেদনকারীর বিশদ বিবৃতি থেকে বোঝা যাচ্ছে, যৌন সম্পর্কে দুই পক্ষেরই সম্মতি ছিল। এরপর তিনি বলতে পারেন না যে তাদের যৌন সম্পর্ক ছিল বৈধ বিবাহের আইনি বিশ্বাসের ভিত্তিতে। অভিযুক্তকে প্রতারণার অপরাধে দোষী সাব্যস্ত করার মতো কোনো উপাদানও নেই।” এরপরই মামলাটি খারিজ করে দেয় আদালত।

উল্লেখ্য, গত মাসে কেরল হাইকোর্টের এই বেঞ্চই এক বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণের মামলায় প্রায় একই ধরণের পর্যবেক্ষণ দিয়েছিল। সেই ক্ষেত্রে ৩৩ বছরের এক বিবাহিত ব্যক্তির বিরুদ্ধে বিবাহের প্রতিশ্রুতি দিয়ে এক মহিলাকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছিল। সেই ক্ষেত্রে আদালত জানিয়েছিল, ওই মহিলা যৌন সম্পর্ক স্থাপনের আগেই জানতেন যে ওই ব্যক্তি বিবাহিত। সেটা জেনেও তিনি যৌন সম্পর্কে এগিয়েছিলেন। কাজেই এই ক্ষেত্রে মিথ্য়া প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ করতে পারেন না তিনি।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla