‘খেলা দিবসে’র আগে ত্রিপুরা যাচ্ছেন তৃণমূল সাংসদেরা, ফের যেতে পারেন জয়া, সুদীপ, দেবাংশুও

নামলেও গ্রেফতার করা হতে পারে জয়া দত্ত, সুদীপ রাহাদের। এমনটাই আশঙ্কা করছে ঘাসফুল শিবির।

'খেলা দিবসে'র আগে ত্রিপুরা যাচ্ছেন তৃণমূল সাংসদেরা, ফের যেতে পারেন জয়া, সুদীপ, দেবাংশুও
ফাইল ছবি

আগরতলা: ফের ত্রিপুরা (Tripura) যাচ্ছে তৃণমূলের (TMC) প্রতিনিধি দল। আগামিকাল, শুক্রবার ত্রিপুরা যাচ্ছেন রাজ্যের মন্ত্রী ব্রাত্য বসু এবং চার তৃণমূল সাংসদ অর্পিতা ঘোষ, অপরূপা পোদ্দার, আবীর বিশ্বাস ও প্রতিমা মণ্ডল। নির্যাতিত তৃণমূল কর্মীদের পাশে দাঁড়াতে তাঁরা ত্রিপুরা যাচ্ছেন বলে দাবি ঘাসফুল শিবিরের। অন্যদিকে, শুক্রবারই ত্রিপুরা জুড়ে বিজেপির বিশেষ কর্মসূচি রয়েছে। মূলত মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের ওপর হামলার চেষ্টা হয়েছে, এই অভিযোগেই পথে নামবে বিজেপি। আর অবশ্যই সেই মিছিলে বিজেপির নিশানায় থাকবে তৃণমূল।

ত্রিপুরাকেই এখন পাখির চোখ করে এগোচ্ছে তৃণমূল। ২০২৪-এর মধ্যে সর্বভারতীয় দল হিসেবে বিস্তার বাড়ানোর যে প্রচেষ্টা তৃণমূল চালাচ্ছে, তাতে তাদের প্রথম লক্ষ্য প্রতিবেশী রাজ্য ত্রিপুরা। ইতিমধ্যেই সে রাজ্যে শুরু হয়েছে দুই শিবিরের জোর টক্কর। ত্রিপুরায় গিয়ে গ্রেফতার হয়েছেন তৃণমূলের যুব নেতারা। এমনকি তৃণমূলের অভিযোগ, গতকল বুধবার রাতভর পুলিশ তল্লাশি চালিয়েছে আমবাসায়, যেখানে আক্রান্ত হয়েছিলেন দেবাংশু ভট্টাচার্য, সুদীপ রাহা ও জয়া দত্ত। তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ টুইটে দাবি করেছেন, তৃণমূলের সে দিনের গাড়ির চালকসহ কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, তৃণমূলের দাবি, জয়া, সুদীপ, দেবাংশুরা ত্রিপুরা গেলে বিমানবন্দর থেকেই যাতে তাঁদের ফের গ্রেফতার করা হয়, তার জন্য মামলা সাজাচ্ছে ত্রিপুরা পুলিশ।

অন্যদিকে, বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু বলেছেন, ‘আমাদের বিরুদ্ধে তো কত মামলা দিয়েছে। এবার ওরাও একটু দেখুক, মামলা ব্যাপারটা কি ? করোনা পরিস্থিতিতেও ত্রিপুরা গিয়েছে, থানায় পুলিশের কাজে বাধা দিয়েছে, মামলা তো হবেই। উল্লেখ্য, পুলিশের কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে ত্রিপুরায়।

এ দিকে, আগামী ১৬ অগস্ট অন্যান্য রাজ্যের মতো ত্রিপুরাতেও তৃণমূল ‘খেলা হবে’ দিবস পালন করবে। পাহাড় থেকে সমতল সব জায়গায় ওই দিন পালন করার কথা বলা হয়েছে। খেলা দিবস উপলক্ষে ১ লক্ষ ফুটবল বিতরণ করা হবে ত্রিপুরায়। এই বিশেষ কর্মসূচির আগে বেশিভাগ সাংসদকেই ত্রিপুরা যাওয়ার বার্তা দেওয়া হয়েছে দলের তরফে। বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি থাকা জয়া দত্ত, সুদীপ রাহাও আগামী ১৬ অগস্ট ফের ত্রিপুরা যাবেব বলে জানা গিয়েছে।

এ দিকে আবার শুক্রবার ত্রিপুরা জুড়ে বিজেপির বিশেষ কর্মসূচি। মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের ওপর হামলার চেষ্টার অভিযোগ তুলে পথে নামবে গেরুয়া শিবির। মিছিল, সভার মাধ্যমে প্রতিবাদ জানাবে বিজেপি। আগরতলাতেও কর্মসূচি রয়েছে। দুপুর ২ টো থেকে ওই মিছিল হবে। মুখ্যমন্ত্রীর ওপর হামলার চেষ্টার অভিযোগ করেছেন দলের সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) বি এল সন্তোষ। কয়েকদিন আগেই অভিযোগ ওঠে, বিপ্লব দেবের ওপর কেউ বা কারা হামলার চেষ্টা করেছে। আরও পড়ুন: ঠিক কী হয়েছিল রাজ্যসভায়? সামনে এল সেই ভিডিয়ো

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla