‘বাংলার ভুল ত্রিপুরায় করবেন না’, দল ভারী করতে সিপিএম কর্মীদের তৃণমূলে আহ্বান ব্রাত্যর

ব্রাত্য বুঝিয়ে দিতে চেয়েছেন যে, কট্টর তৃণমূল বিরোধিতার ফল ভাল নাও হতে পারে।

'বাংলার ভুল ত্রিপুরায় করবেন না', দল ভারী করতে সিপিএম কর্মীদের তৃণমূলে আহ্বান ব্রাত্যর
ছবি-টুইটার

আগরতলা: এক নয়, একাধিক ভুলের কারণেই পশ্চিমবঙ্গে ৩৪ বছর শাসন করা দলের বিধায়ক সংখ্যা বর্তমানে শূন্য। কিন্তু এ রাজ্যে যে ভুল সিপিএম করেছে, তা যেন ত্রিপুরার সিপিএম না করে। না, কোনও বামপন্থী নেতার মন্তব্য নয়। শনিবার আগরতলায় এই মন্তব্য করতে শোনা যায় তৃণমূল বিধায়ক তথা এ রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুকে। অর্থাৎ, ঘুরিয়ে যেন কোথাও তিনি বুঝিয়ে দিতে চেয়েছেন যে, কট্টর তৃণমূল বিরোধিতার ফল ভাল নাও হতে পারে। একই সঙ্গে সিপিএম কর্মীদেরও সরাসরি তৃণমূলে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

সিপিএম এবং তৃণমূল, ত্রিপুরায় উভয়েরই লড়াই বিজেপির বিরুদ্ধে। তা ইতিমধ্যেই স্পষ্ট। তবে পশ্চিমবঙ্গের সমীকরণ নিয়ে যে দক্ষিণ-পূর্বের রাজ্যে ভোটে লড়াই করা যাবে না, সেটা ভালভাবেই জানে তৃণমূল। আর সেই কারণেই বিজেপিকে নিশানায় নেওয়ার পাশাপাশি প্রতি পদক্ষেপেই সিপিএমের উদ্দেশ্যেও প্রচ্ছন্ন বার্তা থাকছে। শনিবার আগরতলার এক হোটেলে সাংবাদিক বৈঠক করে সেই বার্তাই যেন মানিক সরকারদের কাছে পৌঁছে দিতে চাইলেন তৃণমূল নেতারা।

ব্রাত্য এ দিন বলেন, “আমি বামপন্থী কর্মীদের অনুরোধ করব, আপনাদের নেতারা যদি আমাদের পাশে না থাকে, তাহলে আপনারা আমাদের সঙ্গে চলে আসুন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল সম্পূর্ণভাবে আপনাদের সঙ্গে আছে। বাংলার সিপিএম যে ভুল করেছে, ত্রিপুরার সিপিএম-কে সেই একই ভুল না করার অনুরোধ জানাচ্ছি। যে বিজেমূল স্লোগান আপনারা তুলেছিলেন, সেটা এখন প্রত্যাহার করতে হচ্ছে। এই একই ঐতিহাসিক ভুলের পুনরাবৃত্তি দয়া করে ত্রিপুরায় করবেন না।”

ত্রিপুরার মাটিতে ব্রাত্য বসুর এই মন্তব্য যে নানা আঙ্গিকে গুরুত্বপূর্ণ, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। কারণ ত্রিপুরায় তৃণমূল যতই ক্ষমতা দখলের জন্য ঝাঁপাক না কেন, ২০২৩ সালের মধ্যে সংগঠন সেই পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া আদৌ কতটা সম্ভব, তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ। এরই মধ্যে জল্পনা তৈরি হয়েছে তৃণমূলের এই লড়াইয়ে সিপিএম আদৌ পাশে থাকবে কি না সেটা নিয়ে। এমন সম্ভাবনা অবশ্য খুব একটা নেই বলেই খবর সিপিএম সূত্রে।

যদিও শুক্রবার এই নিয়ে যখন দলের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরির কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল তখন তিনি বলেন, “ত্রিপুরায় তৃণমূল থেকে সবাই বিজেপিতে গিয়েছিল। আমরাই বিজেপির বিরুদ্ধে আছি। আমরাই মার খাচ্ছি। তবে নির্বাচন এখনও বাকি আছে। গঙ্গা দিয়ে অনেক জল বইবে। বিজেপিকে হারানোই আমাদের পার্টির মূল লক্ষ্য।” আরও পড়ুন: তৃণমূলের সঙ্গে কোনও মূল্যেই হাত মেলাবে না সিপিএম, জল্পনায় জল সীতারামের

 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla