করোনাকালে পড়ুয়াদের কমল চাপ, বাদ পড়ল দশম-দ্বাদশ শ্রেণির পাঠক্রমের ৩০ শতাংশ

রাজ্যে ইতিমধ্যেই প্রথম থেকে একাদশ শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে এবং সমস্ত পড়ুয়াদের পরবর্তীতে শ্রেণিতে উত্তীর্ণ করে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

করোনাকালে পড়ুয়াদের কমল চাপ, বাদ পড়ল দশম-দ্বাদশ শ্রেণির পাঠক্রমের ৩০ শতাংশ
ফাইল চিত্র।

আগরতলা: বাতিল হচ্ছে না দশম-দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা, তবে করোনাকালে পড়ুয়াদের উপর চাপ কমাতে ৩০ শতাংশ পাঠক্রম কমাল ত্রিপুরা বোর্ড অব সেকেন্ডারি এডুকেশন। এ দিন বোর্ডের সভাপতি ডঃ ভবতোষ সাহা জানান, ২০২২ সালে যে সমস্ত পড়ুয়ারা দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের ক্ষেত্রেও এই নিয়ম জারি থাকবে।

গত বছরই করোনা সংক্রমণের কারণে নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের পাঠ্যসূচি ৩০ শতাংশ হ্রাস করা হয়েছিল। চলতি বছরও করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে বন্ধ হয়ে যায় সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, প্রভাব পড়ে স্বাভাবিক পঠনপাঠনের ক্ষেত্রেও। এ দিন ত্রিপুরা বোর্ড অব সেকেন্ডারি এডুকেশনের তরফে ঘোষণা করা হয়, “গত বছর যেভাবে দশম-দ্বাদশ শ্রেণির পাঠ্যসূচি হ্রাস করা হয়েছিল, তা আগামী বছরের পড়ুয়াদের জন্যও কার্যকর থাকবে।”

গত বছর করোনা সংক্রমণের কারণে দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা বাতিল হয়ে গেলেও, গত মাসেই রাজ্যের শিক্ষা পর্ষদের তরফে জানানো হয় গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলির উপরই পরীক্ষা নেওয়া হবে। তার উপর ভিত্তি করেই রেজাল্ট তৈরি করা হবে। তবে রাজ্যে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে না আসায় পড়ুয়াদের অভিভাবকদের কাছ থেকেই পরীক্ষার বিষয়ে মতামত জানতে চাওয়া হয়েছে। এর ভিত্তিতেই এ দিন বৈঠক হবে এবং তারপরই দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষা নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

ইতিমধ্যেই রাজ্যের প্রথম থেকে একাদশ শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে এবং সমস্ত পড়ুয়াদের পরবর্তীতে শ্রেণিতে উত্তীর্ণ করে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। স্কুল খোলার পরে তাদের পরীক্ষা নেওয়ার ব্যবস্থা করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী রতন লাল নাথ।

আরও পড়ুন: সর্দিকাশিতেই সীমাবদ্ধ থাকবে করোনার তৃতীয় ঢেউ! মানতে হবে টিকাকরণের ৭টি নিয়ম

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla