১০০ শতাংশ টিকাপ্রাপ্ত দুই গ্রামের মানুষ, বাকি নেই কেউ

টুইটারে এই টিকাকরণের খবর জানিয়েছেন ত্রিপুরার (Tripura) মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব (Biplab Deb)। যত সম্ভব বেশি মানুষকে টিকা দেওয়াই লক্ষ্য সরকারের।

১০০ শতাংশ টিকাপ্রাপ্ত দুই গ্রামের মানুষ, বাকি নেই কেউ
প্রতীকী চিত্র

আগরতলা: টিকাকরণে বিশেষ জোর দিয়েছে ত্রিপুরা। রাজ্যের দুটি গ্রাম ১০০ শতাংশ টিকাপ্রাপ্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন সে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। মঙ্গলখালি গ্রাম পঞ্চায়েত ও পূর্ণা গ্রাম পঞ্চায়েতের বাসিন্দাদের প্রত্যেককে টিকা দেওয়া হয়েছে। টুইটারে এই খবর জানিয়েছেন বিপ্লব দেব।

টুইটারে বিপ্লব দেব লিখেছেন, ত্রিপুরায় যত বেশি সম্ভব মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। উত্তর ত্রিপুরা জেলার যুবরাজনগর ব্লকের মঙ্গলখালি গ্রাম পঞ্চায়েতে কেউ টিকা পেতে বাকি নেই। আগামী দিনে যত দ্রুত সম্ভব গোটা ত্রিপুরাকে ভ্যাকসিন দেওয়ার ব্যবস্থা করছে সরকার। এটা সবে শুরু। খুব শীঘ্রই পুরো ত্রিপুরার মানুষ টিকাপ্রাপ্ত হবে।

গতকাল সোমবারই দু’দিনের বিশেষ টিকাকরণ প্রক্রিয়া শুরু করেছেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। রাজ্য জুড়ে ১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সীদের টিকা দেওয়ার জন্য এই বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি। রাজ্য জুড়ে ১,৩৪২টি ক্যাম্প তৈরি করে টিকা দেওয়া হয়েছে। সোমবার আগরতলার আইএমএ হাউস থেকে এই প্রোগ্রামের সূচনা করেন বিপ্লব দেব। এ দিনই ভ্যাকসিন প্রক্রিয়া নিয়ে মোদী সরকারের প্রশংসা করে একটি ফেসবুক পোস্টও করেন তিনি।

ফেসবুকে বিরোধীদের কটাক্ষ করে তিনি লিখেছেন, নিন্দুকদের যাঁরা কোভিডের দেশীয় ভ্যাকসিন নিয়ে সমালোচনা করতেন তাঁরাই এখন টিকা নেওয়ার জন্য সবার আগে লাইনে দাঁড়াচ্ছেন। তাঁর দাবি, কেউ কল্পনাও করেননি দেশের মাটিতেই তৈরি হবে কোভিড প্রতিষেধক টিকা। প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে বিপ্লব দেব লিখেছেন, ‘কোভিডের প্রথম পর্বে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশের ১৩০ কোটি মানুষকে রক্ষা করতে লকডাউন ঘোষণা করেছিলেন। তখন অনেকে সমালোচনা করেছিলেন। কিন্তু সবাই ঘরে থাকলেও প্রধানমন্ত্রী বসে ছিলেন না। সারা দেশের স্বাস্থ্য পরিকাঠামোকে ঢেলে সাজাতে নিরলস ভাবে কাজ করে গিয়েছেন তিনি। তার ফল আজ চাক্ষুষ করা যাচ্ছে।’

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla