Child Assault case: স্কুলের হোমওয়ার্ক শেষ করেনি ৮ বছরের ক্ষুদে, রাগে ছেলেকে ফ্যান থেকে ঝুলিয়ে দিলেন পিতা

Child Abuse, শিশুটির মামার থেকে জানা নিয়েছে অভিযুক্ত ব্যক্তি প্রতিনিয়তই তাঁর নিজের ছেলেকে নানারকমভাবে নিগ্রহ করত। এই ঘটনা যেদিন ঘটে সেদিন শিশুটির মা মোবাইলের ভিডিয়ো রেকর্ডিং চালু করে ফোনটিকে লুকিয়ে রাখেন, সেখানেই নির্যাতনের মারাত্মক দৃশ্য ধরা পড়েছে।

Child Assault case: স্কুলের হোমওয়ার্ক শেষ করেনি ৮ বছরের ক্ষুদে, রাগে ছেলেকে ফ্যান থেকে ঝুলিয়ে দিলেন পিতা
ছবি- প্রতীকী চিত্র

উদয়পুর: কখন কোন কারণে কেউ দুঃখিত হয়ে পড়েছেন, সেটা বুঝে ওঠা বর্তমান পরিস্থিতিতে খুবই কঠিন।রাগ, দুঃখ থেকেই মানুষ এমন কিছু ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলে, সেই সিদ্ধান্ত তাঁর পাশাপাশি পরিবারকেও ক্ষতিগ্রস্ত করে। রাগে এমনই এক সিদ্ধান্ত নিলেন রাজস্থানের এক ব্যক্তি। সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে একবারও ভেবে দেখলেন না নিজের পরিবার, নিজের ৮ বছর বয়সী পুত্র সন্তানের কথা। এই ঘটনা চমকে উঠেছেন অনেকে।

জানা গিয়েছে রাজস্থানের (Rajasthan) এক ব্যক্তি তাঁর নিজের ছেলেকে সিলিং ফ্যান থেকে ঝুলিয়ে দিয়েছেন। কারণ সেই ক্ষুদে তাঁর স্কুলের দেওয়া হোমওয়ার্ক শেষ করেননি। অভিযুক্ত পিতা সেই শিশুকে শারীরিকভাবে নিগ্রহ করেছে বলেও অভিযোগ। ইতিমধ্যেই নির্যাতনের সেই ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়েছে। রাজস্থানের বুন্দি জেলার দাবি এলাকায় এই ঘটনাটি ঘটেছে। এই ঘটনার পরই ওই শিশুকে নিয়ে তাঁর মা চিত্তরগড়ে এক আত্মীয়ের বাড়িতে চলে যান। সেই আত্মীয়ের সহায়তাতেই এই ঘটনা নিয়ে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

শিশুটির মামার থেকে জানা নিয়েছে অভিযুক্ত ব্যক্তি প্রতিনিয়তই তাঁর নিজের ছেলেকে নানারকমভাবে নিগ্রহ করত। এই ঘটনা যেদিন ঘটে সেদিন শিশুটির মা মোবাইলের ভিডিয়ো রেকর্ডিং চালু করে ফোনটিকে লুকিয়ে রাখেন, সেখানেই নির্যাতনের মারাত্মক দৃশ্য ধরা পড়েছে। জানা গিয়েছে অভিযুক্ত ব্যক্তি খনিতে কাজ করেন। নভেম্বরের ১৭ তারিখই ঘটে এই ঘটনা। ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে শিশুটি তাঁর বাবাকে অনুরোধ করছে তাঁকে যেন না ঝোলানো হয়। কিন্তু তাঁর বাবা কথা শোনেননি। মহিলাকেও তাঁকে সাহায্য করতে দেখা গিয়েছে। মহিলার দাবি, নিজের স্বামীর নির্মমতা মোবাইলে রেকর্ড করার জন্যেই তিনি তাঁর স্বামীকে সাহায্য করার অভিনয় করে গিয়েছেন।

মহিলা মোবাইলের ভিডিয়ো রেকর্ডিং চালু করে মোবাইলটিকে জানালার ওপর রেখে দিয়েছিলেন। নির্যাতিত শিশুর মামার থেকে জানা গিয়েছে ওই ব্যক্তি প্রতিনিয়ত নিজের ৮ বছর বয়সী ছেলে ও ৫ বছর বয়সী মেয়েকে প্রতিনিয়ত নির্যাতন করতেন। এই ঘটনায় একটি মামলা রুজু হয়েছে। থানায় অভিযোগ দায়েরের পর পরিবার যথেষ্ট ভয়ের মধ্যেই আছেন বলেই তাঁরা জানিয়েছেন। শিশু সুরক্ষা কমিশন এই ঘটনার বিস্তারিত রিপোর্ট ৩ দিনের মধ্যে পুলিশকে জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে।

আরও পড়ুন PM Modi on Constitution Day: ‘নিজেদের মূল্যায়ন করা উচিত সংবিধান দিবসে’, কর্তব্যের পথে এগিয়ে চলার বার্তা প্রধানমন্ত্রীর

আরও পড়ুন Crack in Farmers Union: চিড় সংযুক্ত কিসান মোর্চার ঐক্যে, ভোটমুখী রাজ্যে রাজনীতিতে পা বাড়াচ্ছেন একাধিক নেতা

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla