Police arrest theft case: কিলো কিলো রুপো নিয়ে চম্পট দিল খোদ পুলিশকর্মী, বাইকের সূত্র ধরেই খোঁজ পেল পুলিশ

Police arrest theft case: কিলো কিলো রুপো নিয়ে চম্পট দিল খোদ পুলিশকর্মী, বাইকের সূত্র ধরেই খোঁজ পেল পুলিশ
বাইক নিয়ে পালিয়ে যান পুলিশকর্মী

Police arrest theft case: গত ফেব্রুয়ারি মাসে রুপো খোয়া যায় এক ব্যবসায়ীর। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতেই এই গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: tannistha bhandari

May 12, 2022 | 8:32 PM

কলকাতা : ছোটখাটো চুরি নয়, কিলো কিলো রুপো নিয়ে পালিয়ে গিয়েছিলেন পুলিশ কর্মী। তদন্ত এগোতেই এমন প্রমাণ আসতে শুরু করে পুলিশের হাতে। যে বাইক নিয়ে চুরি করা হয়েছিল, সেটির সূত্র ধরেই দুষ্কৃতীর খোঁজ চালাতে শুরু করে পুলিশ। অবশেষে হাতেনাতে ধরা পড়লেন সেই ব্যক্তি। আর তারপরই জানা গেল, দুষ্কৃতী আসলে কেউ নন, বিধাননগর কমিশনারেটের একজন কনস্টেবল। কার্যত রক্ষকই যেন এখানে ভক্ষকের ভূমিকায়। যে পুলিশ মানুষের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকেন, তাঁরাই যদি এ ভাবে মানুষকে বিপদে ফেলেন, তাহলে সাধারণ মানুষ কার ওপর ভরসা করবে? সেই প্রশ্নই উঠেছে।

কুড়ি কিলো রুপো লুঠের ঘটনায় বিধান নগর পুলিশ কমিশনারেটের কনস্টেবল সোমনাথ দাসকে গ্রেফতার করেছে শিয়ালদহ জিআরপি। বৃহস্পতিবার তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, গত ফেব্রুয়ারি মাসের ২২ তারিখে এই ঘটনা ঘটে। ওই দিন ঝাড়খণ্ডের দেওঘরের বাসিন্দা, পেশায় ব্যবসায়ী শ্যামসুন্দর সাউ বড় বাজারে রুপো নিতে এসেছিলেন। কিন্তু হাওড়া স্টেশন থেকে ট্রেনের টিকিট না পেয়ে বিধান নগর রোড স্টেশন থেকে গঙ্গাসাগর এক্সপ্রেসের টিকিট কেটেছিলেন তিনি। কিন্তু, বিকেলে ট্রেন ধরার সময় অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবক তাঁর কাছে এসে পুলিশ পরিচয় দিয়ে থানায় যেতে বলেন।

এরপর ট্যাক্সিতে চাপিয়ে ব্যবসায়ীকে এদিক-ওদিক ঘোরাতে থাকেন বলে অভিযোগ। পরে তিন জন দুষ্কৃতী মিলে ২০ কেজি রুপোর ব্যাগ নিয়ে নেমে যায়। ব্যবসায়ীকে দমদম কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারের কাছে নিয়ে গিয়ে নামিয়ে দেওয়া হয়। একটি বাইকে চেপে এক দুষ্কৃতী চলে যান বলে অভিযোগ। পরে পুলিশের সাহায্য নিয়ে ওই ব্যবসায়ী রেল পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন।

সেই অভিযোগের ভিত্তিতে, কলকাতা পুলিশের সাহায্য নিয়ে সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে পুলিশ। যুবকদের ছবি মিলে গেলেও তাঁদের শনাক্ত করা যায়নি, তবে লুঠের ঘটনায় ব্যবহৃত মোটরবাইকটি শণাক্ত করা যায়। এরপরই জানা যায়, মোটরবাইকের মালিক দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসিন্দা। বর্তমানে বাগুইআটির বাসিন্দা একজন মোটরবাইকটি ব্যবহার করছে, সেই তথ্যও আসে পুলিশের হাতে। প্রমাণের ভিত্তিতে শিয়ালদহ জিআরপি বাগুইহাটি থেকে সোমনাথ দাস নামে ওই পুলিশ কনস্টেবলকে গ্রেফতার করেছে।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA