Kolkata Municipal Election 2021 Date: ‘৩০ এপ্রিলের মধ্যেই বাকি নির্বাচন’, বাংলার পুরভোট নিয়ে হাইকোর্টকে জানালেন এজি

Calcutta High Court: এজি জানান, বকেয়া পুরভোট সম্পর্কে রাজ্য সরকারের কাছ থেকে লিখিত দেওয়া হয়েছে তাঁর কাছে। ৩০ এপ্রিলের মধ্যে বকেয়া সমস্ত পুরভোট হবে।

Kolkata Municipal Election 2021 Date: '৩০ এপ্রিলের মধ্যেই বাকি নির্বাচন', বাংলার পুরভোট নিয়ে হাইকোর্টকে জানালেন এজি
পুরভোট নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে শুনানি ছিল বৃহস্পতিবার। ফাইল চিত্র।

কলকাতা: ৩০ এপ্রিলের মধ্যে রাজ্যের সমস্ত বকেয়া পুরসভায় ভোট করতে হবে। বৃহস্পতিবার কলকাতা হাইকোর্টে জানালেন অ্যাডভোকেট জেনারেল বা এজি। পুরভোট নিয়ে হাইকোর্টে বিজেপি যে মামলা করেছিল, এদিন সেই মামলার শুনানিতেই তথ্য পেশ করেন এজি। এজলাসে তিনি জানান, এ নিয়ে লিখিতভাবে তাঁর কাছে তথ্য এসেছে।

কেন সবক’টি পুরসভায় একসঙ্গে ভোট হবে না তা জানতে চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিল বিজেপি। সেই মামলার শুনানিতে আদালত রাজ্য এবং নির্বাচন কমিশনকে হলফনামা দিয়ে নিজেদের বক্তব্য জানাতে বলেছিল। এরকমই এক শুনানি চলাকালীন নির্বাচন কমিশনের তরফে আইনজীবী বলেছিলেন, মামলা বিচারাধীন। তাই কমিশন এখনই কোনও ভোট নিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করবে না। এদিকে বৃহস্পতিবার সকালেই রাজ্য নির্বাচন কমিশন বিজ্ঞপ্তি জারি করে কলকাতার পুরভোট নিয়ে।

এদিনই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর বেলা দেড়টা নাগাদ ফের বিজেপি আদালতে যায়। তাদের বক্তব্য, নির্বাচন কমিশন হলফনামায় জানিয়েছে তারা এমন কিছু করবে না যাতে আদালতের অসম্মান হয়। অথচ মামলা চলছে, এর মধ্যে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে ফেলল। শুরুতেই বিজেপির আইনজীবী বলেন, কমিশনের আইনজীবী বলেছিলেন তারপরও বিজ্ঞপ্তি জারি। এটা ঠিক নয়। বিজ্ঞপ্তিতে স্থগিতাদেশ দিক আদালত।

এরই জবাবে এজি বলেন, ‘আমরা আগেই বলেছি ১৯ ডিসেম্বর ভোট। আজ কবে, কী হবে সেই নির্ঘণ্ট জারি হয়েছে।’ বিজেপির আইনজীবী বলেন, ভোট নিয়ে তাদের কোনও আপত্তি নেই। কিন্তু সব ভোট একসঙ্গে করানো হোক সেটাই দাবি করা হয়েছে।

বিজেপির আইনজীবী পিনাকী আনন্দ বলেন, ‘২০২০ তে জানানো হয়েছিল কোভিডের জন্য ভোট করতে চাইছে না। এখন ত্রিপুরায় ভোট হচ্ছে। ভোটে আপত্তি নেই। কিন্তু বলার পরেও কেন ভোটের বিজ্ঞপ্তি কমিশন জারি করল সেটাই জানার।’

এরপরই প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘আপনারা সোমবার সব কাগজপত্র নিয়ে প্রপার অ্যাপ্লিকেশন করুন, দেখব।’ একই সঙ্গে তিনি জানান, এর মধ্যে রাজ্য নির্বাচন কমিশনও জানাক, তারা কেন বিজ্ঞপ্তি জারি করল।

এ নিয়েই এজি জানান, বকেয়া পুরভোট সম্পর্কে রাজ্য সরকারের কাছ থেকে লিখিত দেওয়া হয়েছে তাঁর কাছে। ৩০ এপ্রিলের মধ্যে বকেয়া সমস্ত পুরভোট হবে। কলকাতা বাদ দিলে ১১১টি পুরভোট বাকি রয়েছে। সেগুলি ৩০ এপ্রিলের মধ্যে হবে। তবে দফায় দফায় এই নির্বাচন করা হবে। এজলাসে দাঁড়িয়ে এজির এদিনের বক্তব্য নিঃসন্দেহে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ।

সোমবার মূলত নজরে থাকবে দু’টি বিষয়—

১. কমিশনের আইনজীবী কেন বলেছিলেন মামলা চলাকালীন বিজ্ঞপ্তি জারি করবেন না। কেনই বা তবে বৃহস্পতিবার বিজ্ঞপ্তি জারি হল

২. ৩০ এপ্রিলের মধ্যে কি বাকি পুরসভাগুলির ভোট হবে? কারণ, এজি নিজে প্রধান বিচারপতির সামনে দাঁড়িয়ে বলেছেন, ৩০ এপ্রিলের মধ্যে ভোট করতে চায় রাজ্য। এর গুরুত্ব অনেকটা বেশি।

আরও পড়ুন: ভোটের ফলপ্রকাশ সম্ভবত ২১ ডিসেম্বর, আজ থেকেই কলকাতাজুড়ে বলবৎ আদর্শ আচরণ বিধি

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla