তিন দিনের মধ্যে জবাব দিতে হবে, চিঠিতে আলাপনকে কী লিখল কেন্দ্র?

প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকে উপস্থিতি না থেকে আইন-বিরোধী কাজ করেছেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় (Alapan Bandopadhyay)। চিঠিতে সেই বার্তাই দেওয়া হয়েছে।

তিন দিনের মধ্যে জবাব দিতে হবে, চিঠিতে আলাপনকে কী লিখল কেন্দ্র?
ফাইল ছবি
tannistha bhandari

|

Jun 01, 2021 | 3:25 PM

কলকাতা: রাজ্যে ইয়াস নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) বৈঠকের পর থেকেই শিরোনামে রয়েছেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় (Alapan Bandopadhyay)। গত কালই অবসর নিয়েছেন তিনি। এর মধ্যেই প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকে উপস্থিত না হওয়ার কারণ জানতে চেয়ে তাঁকে চিঠি দিল কেন্দ্র।  বিপর্যয় মোকাবিলা আইনে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়ে তিন দিনের মধ্যে জবাব চাওয়া হয়েছে তাঁর কাছ থেকে।

গত কাল, সোমবারই কেন্দ্রের তরফ থেকে সেই চিঠি এসেছে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্য সচিবের কাছে। এর আগে বৈঠকের দিন রাতেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি দিয়ে ৩০ মে তাঁকে দিল্লিতে ঢেকে পাঠানো হয়। তাঁকে দিল্লিতে নর্থ ব্লকে হাজির হতে বলে চিঠি দেওয়া হয়েছিল আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে। কিন্তু সেখানে উপস্থিত না হয়ে অবসর নেও্য়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। মনে করা হয়েছিল, তাঁর অনুপস্থিতির কারণ জানতে চেয়েই চিঠি দেওয়া হয়েছে আলাপনকে। কিন্তু আজ, চিঠি প্রকাশ্যে আসতেই দেখা গেল, আদতে কলাইকুন্ডার বৈঠকে উপস্থিত না থাকার কারণ জানতে চাওয়া হয়েছে তাঁর কাছে।

চিঠিতে স্পষ্ট লেখা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকে উপস্থিত থাকার কথা ছিল মুখ্য সচিবের। কিন্তু দেখা যায়, তিনি মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকস্থলে আসেন। বৈঠকে যোগ না দিয়ে মূখ্যমন্ত্রীর সঙ্গেই ফিরে যান। প্রধানমন্ত্রী তথা ন্যাশনাল ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অথরিটির চেয়ারম্যান নরেন্দ্র মোদীর বৈঠকে উপস্থিত না হওয়ায় আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে বিপর্যয় মোকাবিলা আইন ভঙ্গ করার অভিযোগ উঠেছে। বিপর্যয় মোকাবিল আইন ভঙ্গ করার জন্য কেন তাঁর বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হবে না? সেই জবাব দিয়ে তিন দিনের মধ্যে চিঠির উত্তর দিতে হবে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

আরও পড়ুন: ‘উনি টুইট করা বন্ধ করুন!’ মমতার ‘ব্যক্তিগত বার্তা’ প্রকাশ্যে আনায় ধনখড়ের ওপর ক্ষুদ্ধ তৃণমূল

উল্লেখ্য,  গত ২৪ মে চিঠি দিয়ে মুখ্যসচিবের মেয়াদ বৃদ্ধিতে সিলমোহর দেয় কেন্দ্র। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর ইয়াস পরবর্তী রিভিউ বৈঠকের পর থেকেই পাল্টে যায় ছবিটা। ওই দিন রাতেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি দিয়ে ৩০ মে তাঁকে দিল্লিতে ঢেকে পাঠানো হয়। কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের ক্ষুব্ধ হন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি সংবাদিক বৈঠক করে বলেন, ‘আমাকে আপনারা যা খুশি করুন, আমার অফিসারদের কিছু বলবেন না।’ এরপরই গত কাল, অবসর নেন আলাপন। তাঁকে মুখ্যমন্ত্রীর উপদেষ্টা পদে রাখেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla