Mamata Banerjee at Assembly: ‘আপনি যাদের চাকরি দিয়েছিলেন, তাঁদের চাকরি থাকবে তো?’, বিধানসভায় তোপ মমতার

Mamata Banerjee at Assembly: 'আপনি যাদের চাকরি দিয়েছিলেন, তাঁদের চাকরি থাকবে তো?', বিধানসভায় তোপ মমতার
নিয়োগ নিয়ে শুভেন্দুকে আক্রমণ মমতার

Mamata Banerjee at Assembly: বিধানসভায় নাম না করে বিরোধী দলনেতাকে আক্রমণ করলেন মমতা। 'দাদামণি' বলে সম্বোধন করলেন মমতা।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: tannistha bhandari

Jun 20, 2022 | 2:02 PM

কলকাতা: নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে উত্তাল গোটা রাজ্য। একের পর এক মামলায় চাকরি থেকে বরখাস্ত করার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। এরই মধ্যে বিধানসভায় বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে কটাক্ষ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নাম না করে শুভেন্দুকে আক্রমণ করেছেন তিনি। মেদিনীপুরে কী ভাবে চাকরি নিয়ে যাওয়া হয়েছিল, সেই তথ্য তাঁর কাছে আছে বলে দাবি করেছেন মমতা।

সোমবার বিশেষ অধিবেশনে যোগ দিতে বিধানসভায় গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। বিধানসভা কক্ষে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘মেদিনীপুরের চাকরি কী ভাবে নিয়ে গিয়েছ আমরা জানি, পুরুলিয়ার চাকরি কী ভাবে মেদিনীপুরে নিয়ে গিয়েছিলে?’ কার্যত নিয়োগ দুর্নীতিতে যে শুভেন্দু অধিকারীর যোগ রয়েছে, তেমন ইঙ্গিত দিয়েছেন মমতা। শুধু তাই নয়, শুভেন্দুকে ‘দাদামণি’ বলে কটাক্ষ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘দাদামণি আপনি যাদের চাকরি দিয়েছিলেন, তাদের চাকরিও থাকবে তো?’

তবে শুভেন্দু অধিকারীর দাবি, কোথাকার চাকরি কোথায় গিয়েছে, সে সব জানেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ‘ভাইপো’ জানেন বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

সম্প্রতি এসএসসি থেকে প্রাথমিক, একাধিক নিয়োগে দুর্নীতি ও বেনিয়মের অভিযোগ নিয়ে মামলা হয়েছে। বেনিয়মের অভিযোগে নাম জড়িয়েছে প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় থেকে শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারীর নামও। তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদও করা হয়েছে সিবিআই-এর তরফে। প্রভাব খাটিয়ে চাকরি দেওয়ার মত অভিযোগও সামনে এসেছে। এই ইস্যুতে সরব হয়েছে বিরোধীরা। শুভেন্দু অধিকারীকেও এই দুর্নীতি নিয়ে তোপ দাগতে দেখা গিয়েছে। আর এবার সেই নন্দীগ্রামের বিধায়ক তথা রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রীকে কটাক্ষ করলেন খোদ মমতা। এ ছাড়াও এ দিন বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী দাবি করেন, কারও চাকরি যাক, তা তিনি চান না। তাঁর দাবি, এটা ত্রিপুরা নয়, তাই চাকরি যাবে না কারও।

এই খবরটিও পড়ুন

উল্লেখ্য, সম্প্রতি রাজ্যের মৎস্যমন্ত্রী অখিল গিরিও দাবি করেন, ২০১২ সালে প্রাথমিকে যে নিয়োগ হয়েছিল, সেই সময় রাজ্যের মন্ত্রী ছিলেন শুভেন্দু, তাই সেই নিয়োগের তদন্ত হওয়া উচিত। তবে, বিরোধী দলনেতা এইসব অভিযোগকে গুরুত্ব দিতে রাজি নন।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA