Mamata Banerjee: ‘শুধু কুটুস কুটুস’, অভিষেকের সঙ্গে বিরোধ নিয়ে মুখ খুললেন মমতা

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: tannistha bhandari

Updated on: Sep 08, 2022 | 3:25 PM

Mamata Banerjee in TMC Rally: মমতা তথা দলের একাংশের সঙ্গে অভিষেকের মত পার্থক্য নিয়ে কানাঘুষো শোনা গিয়েছে বিভিন্ন সময়। অনুব্রত ও শতাব্দীর দ্বন্দ্বের কথাও তৃণমূলে নতুন নয়।

Mamata Banerjee: 'শুধু কুটুস কুটুস', অভিষেকের সঙ্গে বিরোধ নিয়ে মুখ খুললেন মমতা
তৃণমূলের অন্দরে বিরোধ নেই বোঝালেন মমতা

কলকাতা : বর্তমানে তৃণমূলে সেকেন্ড-ইন-কমান্ড বলেই পরিচিত অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক তিনি। অভিষেকের সঙ্গে কোনও নীতি নিয়ে মত পার্থক্য তৈরি হয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তথা দলের পুরনো নেতাদের, এমন কানাঘুষো মাঝে মধ্যে শোনা গিয়েছে রাজনৈতিক মহলে। মাস কয়েক আগে অভিষেকের দলীয় পদে ইস্তফা নিয়েও জল্পনা তৈরি হয়েছিল। তবে এ সব বিরোধের কথা যে নিছকই অপপ্রচার, তেমনটাই দাবি করলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দলের শীর্ষ নেতৃত্বের মধ্যে যে কোনও বিরোধ নেই, বৃহস্পতিবার তৃণমূলের মেগা সমাবেশ থেকে সেই বার্তা স্পষ্ট করলেন তিনি।

এ দিন বক্তব্যের শুরুতেই তিনি দাবি করেন, দলীয় নেতাদের মধ্যে বিরোধের কথা যে মাঝে মধ্যেই সামনে আসে, তা ঠিক নয়। এই প্রসঙ্গে তিনি তাঁর ও অভিষেকের উদাহরণ উল্লেখ করেন। অনুব্রত মণ্ডল ও শতাব্দী রায়ের মধ্যে বিরোধের কথাও ঠিক নয় বলেও উল্লেখ করেন তিনি। মমতা বলেন, ‘সারাক্ষণ কুটুস কুটুস! কেউ ভাল দেখতে পারে না।’ তাঁর কথায়, শতাব্দীর সঙ্গে কেষ্টর বিরোধ বাঁধিয়ে দেওয়া হচ্ছে। কখনও তাঁর সঙ্গে অভিষেকের বিরোধ তৈরি করা হচ্ছে। মমতা সাফ জানান, ‘যতই চেষ্টা কর, এই ভাগাভাগিগুলো হওয়ার নয়।’ মিথ্যা খবর এ ভাবে প্রতিদিন প্রচার করা যাবে না বলেও মন্তব্য করেন মমতা।

অভিষেক সক্রিয় রাজনীতিতে পা দেওয়ার পর একাধিকবার দলের শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে তাঁর মত পার্থক্যের বিষয়ে চর্চা হয়েছে। বিশেষত ‘এক ব্যক্তি, এক পদ’ নীতি কার্যকর করা নিয়ে অভিষেক ভিন্ন মত পোষণ করেছিলেন বলে শোনা গিয়েছিল। শুধু তাই নয়, করোনার ওমিক্রন ঢেউ চলাকালীন সাংসদ অভিষেক ডায়মন্ড হারবারে গিয়ে যে বক্তব্য পেশ করেছিলেন, তাতেও তৈরি হয়েছিল বিতর্ক। করোনা আবহে রাজনৈতিক কর্মসূচি বন্ধ রাখা উচিত বলে ‘ব্যক্তিগত মত’ পোষণ করেছিলেন তিনি। আর সেই বক্তব্যের পর দলের সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় প্রকাশ্যে বলেছিলেন, ‘দলের সাধারণ সম্পাদকের ব্যক্তিগত মত থাকতে পারে না।’

তবে এ দিন সমাবেশের মঞ্চে পরপর বক্তব্য রাখতে দেখা গিয়েছে অভিষেক ও কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়কে। অভিষেক তাঁর বক্তব্যে সাফ জানিয়েছেন, ‘তৃণমূলে কোনও লবি নেই। একটাই লবি, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের লবি।’

এ দিন মঞ্চে কার্যত দলীয় ঐক্যের বার্তা দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। শুধু শীর্ষ নেতৃত্ব নয়, জেলায় জেলায় যে ভাবে অন্তর্দ্বন্দ্বের সামনে আসে, তাতে পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে মমতার এই বার্তা তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে। উল্লেখ্য, বীরভূমে অনুব্রত মণ্ডল ও শতাব্দী রায়ের বিরোধের বিষয়টা সামনে এসেছে একাধিকবার। এ দিন সেই অভিযোগও কার্যত নস্যাৎ করলেন মমতা।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla