বাংলা পেরিয়ে বিপ্লবের রাজ্যেও ‘খেলা হবে দিবস’ পালন করবে তৃণমূল

TMC: ১৬ আগস্ট খেলা হবে দিবস পালন করবে রাজ্য। তবে শুধু বাংলাতেই নয়, এবার বিজেপি শাসিত ত্রিপুরাতেও 'খেলা হবে' দিবস পালন করবে তৃণমূল (TMC)।

বাংলা পেরিয়ে বিপ্লবের রাজ্যেও 'খেলা হবে দিবস' পালন করবে তৃণমূল
ফাইল চিত্র

প্রদীপ্তকান্তি ঘোষ: ‘খেলা হবে’ (Khela Hobe)। একুশের বিধানসভা ভোটের প্রচারে বেরিয়ে বারবার এই শব্দবন্ধ দিয়ে বিরোধীদের চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Banerjee)। বাংলায় মোদী-শাহের বিজয়রথ আটকে তৃতীয় বারের জন্য ক্ষমতায় তৃণমূল। সেই স্লোগানকেই জায়গা দিয়েছেন ক্যালেন্ডারে। ১৬ আগস্ট খেলা হবে দিবস পালন করবে রাজ্য। তবে শুধু বাংলাতেই নয়, এবার বিজেপি শাসিত ত্রিপুরাতেও ‘খেলা হবে’ দিবস পালন করবে তৃণমূল (TMC)।

ঠিক হয়েছে, সেদিন আবার ত্রিপুরায় যাবেন গত শনিবার ও রবিবার বিপ্লব-রাজ্যে আক্রান্ত হওয়া সুদীপ রাহা, জয়া দত্তরা। ১৬ আগস্ট ত্রিপুরা রাজ্যে ‘খেলা হবে’ দিবসের সূচনায় থাকবেন তাঁরাইষ

শনিবারই সুদীপ, জয়ারা আক্রান্ত হন ত্রিপুরায়। রবিবার  মোট ১৪ জন তৃণমূল নেতা-কর্মী গ্রেফতার হন বিজেপি শাসিত পড়শি রাজ্যে। ওই দিন সন্ধ্যায় অবশ্য জামিনে মুক্তি পান তাঁরা সবাই। তাঁদের নিয়ে কলকাতা ফিরে আসেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যয়।

এদিকে এখনই ত্রিপুরার খেলায় তাঁরা এগিয়ে গিয়েছেন ১ গোলের ব্যবধানে। সে দাবি করতে শুরু করেছেন বঙ্গের শাসক শিবির। কুণাল ঘোষরা বলছেন, ভয় পেয়ে গিয়েছেন বিপ্লব দেব। তাই ‘আমি আছি,’ ‘আমি আছি’ বলে নিজের দলকেই আশ্বস্ত করছেন তিনি। যদিও বিজেপি বলছে, খেলার আগেই তো চোট পেতে শুরু করেছেন অনেকে। যাঁরা খেলার কথা বলছেন, তাঁরা কোথায়? দু’পক্ষের খেলার মাঝেই বিপ্লব দেবের রাজ্যে ‘খেলা হবে’ দিবস পালন করার সিদ্ধান্ত নিল তৃণমূল। আর তাৎপর্যপূর্ণভাবে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে ফের ত্রিপুরায় যাবেন সুদীপ-জয়ারা।

সোমবার ত্রিপুরায় দলের প্রতিদিনকার কাজকর্ম দেখা, সংগঠন বৃদ্ধি-সহ দলীয় কাজকর্মের জন্য ছ’জনের কমিটি তৈরি করে ফেলেছে তৃণমূল। সেই কমিটিতে থাকবেন কুণাল ঘোষ, মলয় ঘটক, ব্রাত্য বসু, জয়া দত্ত, দেবাংশু ভট্টাচার্য এবং সুদীপ রাহা। আর দোলা সেন, ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায় আর সমীর চক্রবর্তীরা মাঝেমধ্যে যাবেন।

বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন,’খেলা হবে’স্লোগানের সামনেই ধরাশায়ী হয়েছে বিজেপি। তাই রাজ্যে ‘খেলা হবে দিবস’ পালন করা হবে। আর দিন কয়েক আগে সেই দিবসের তারিখ ঘোষণা করে তৃণমূল সুপ্রিমো বলেছেন, “মানুন ছাই না মানুন খেলা হবে কথাটা খুব পপুলার হয়ে গিয়েছে। সংসদ থেকে শুরু করে দিল্লি, রাজস্থান, গুজরাট সব জায়গায়। খেলা তো হবেই।” আপাতত পাখির চোখ করা ত্রিপুরা দিয়েই ১৬ আগস্ট ‘খেলা হবে’ দিবস পালন করতে চলেছেন মমতা-অভিষেকরা। আরও পড়ুন: ‘দৃষ্টান্তমূলক’ কাজের সম্মান, ‘মুখ্যমন্ত্রীর পুলিশ পদক’ পাচ্ছেন কলকাতার পুলিশ কমিশনার-সহ ৭ আইপিএস

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla