Calcutta High Court: ‘আবাসনের ভোটেও প্রশাসক বসিয়েছে রাজ্য’! হাইকোর্টের নির্দেশ, ‘ভোট হবে ইমেলে’

Calcutta High Court: 'আবাসনের ভোটেও প্রশাসক বসিয়েছে রাজ্য'! হাইকোর্টের নির্দেশ, 'ভোট হবে ইমেলে'
ফাইল ছবি

Owner Association Election: আদালতের নির্দেশ ইমেলের মাধ্যমে আগামী ২৬ মে এই ভোট করতে হবে।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: সায়নী জোয়ারদার

May 12, 2022 | 7:30 PM

কলকাতা: পঞ্চায়েত, পুরসভা থেকে স্কুল, কলেজ কিংবা সমবায়ের ভোটে বারবারই সরকারি হস্তক্ষেপের অভিযোগ ওঠে। কিন্তু তা বলে আবাসনের ভোটেও এমন ঘটনা! ভাবতে অবাক লাগলেও এমন অভিযোগই পৌঁছেছে আদালতের দরজায়। আর স্বচ্ছতার কথা মাথায় রেখেই সেই মামলার ভিত্তিতে আদালতের রায়, এই ভোট অনলাইনে হবে। বৃহস্পতিবার এরকমই এক মামলার শুনানি ছিল কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি রাজাশেখর মান্থার এজলাসে। রাজারহাটের একটি আবাসনের ভোটে সরকারি হস্তক্ষেপের অভিযোগকে সামনে রেখে এই মামলা হয়। সেই মামলার শুনানি চলাকালীন বিচারপতি রাজাশেখর মান্থা মন্তব্য করেন, রাজ্যের পুরভোট থেকে স্কুল কলেজ সমবায়-সহ সর্বত্র সরকারি হস্তক্ষেপ হচ্ছে। আদালত তা চায় না। তাই আবাসনের এই ভোট ইমেলের মাধ্যমে হোক, নির্দেশ দেয় হাইকোর্ট।

কোথাকার এই আবাসন?

রাজারহাটের রোজ ডেল গার্ডেন অ্যাপার্টমেন্ট ওনার অ্যাসোসিয়েশন। প্রায় ৬০০ জন সদস্য রয়েছেন এই অ্যাসোসিয়েশনে। সম্প্রতি অনলাইনে এই আবাসনের ভোট ঘোষণা করা হয়। অভিযোগ, রাজ্যের সমবায় দফতর সেই ভোটকে বাতিল ঘোষণা করে প্রশাসক বসিয়ে দেয়। এরপরই সরকারের এই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেন এই অ্যাপার্টমেন্ট ওনার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি রঞ্জন বসু-সহ অন্যরা।

মামলাকারীর আইনজীবী কী বলছেন

মামলাকারীদের এক আইনজীবী শ্রীজীব চক্রবর্তী বৃহস্পতিবার আদালতে জানান, ‘এই অ্যাসোসিয়েশনে মোট ৬০০ জন সদস্য আছেন। অথচ রাজ্য সরকার মনে হচ্ছে সেখানে ভোটই করতে দিতে চায় না। নির্বাচনের আগেই একজন প্রশাসক বসিয়ে দিল। শুধু তাই নয়, এমন একজনকে এখানে প্রশাসক হিসাবে বসানো হয়েছে, যিনি এখানকার নন। প্রশাসক বহিরাগত।’ শ্রীজীব চক্রবর্তী আদালতে প্রশ্ন তোলেন, কী করে এরকম একজনকে প্রশাসক করা হল? তিনি কী করে সমস্ত বিষয়ে হস্তক্ষেপই বা করতে পারেন?

কী নির্দেশ হাইকোর্টের?

মামলাকারীর আইনজীবীর বক্তব্য শুনে বিচারপতি রাজাশেখর মান্থা মন্তব্য করেন, ‘রাজ্যের সমস্ত লোকাল বডি নির্বাচনে সরকারি হস্তক্ষেপ হচ্ছে। স্কুল, কলেজ, সমবায় সর্বত্র। আদালত এই হস্তক্ষেপ চায় না।’ এরপরই আবাসনের অ্যাসোসিয়েশনের সমস্ত নথি খতিয়ে দেখেন বিচারপতি এবং প্রশাসক বসানোর নির্দেশ খারিজ করে দেন।

পাশাপাশি আদালতের নির্দেশ ইমেলের মাধ্যমে আগামী ২৬ মে এই ভোট করতে হবে। এই নির্বাচনে যাতে স্বচ্ছতায় কোনও ঘাটতি না হয়, সে কারণে আদালত নির্দেশ দিয়েছে অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি নির্বাচনের নোটিস জারি করবেন। ১৭ মে’র মধ্যে সদস্যের তালিকা নোটিস বোর্ডে টাঙাতে হবে। ১৯ মে মনোনয়ন দাখিল করতে হবে। প্রত্যেক সদস্যের ইমেল আইডি প্রকাশ করতে হবে। অ্যাসোসিয়েশনের নিধারিত ইমেল আইডিতেই ভোট দান করবেন সদস্যরা, নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA