গরমকালে ত্বকের পরিচর্যায় কীভাবে কাজে লাগে জাম ফল?

ত্বক মোলায়েম এবং নরম রাখতে সাহায্য করে জাম। এই ফলে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন। যার সাহায্যে ত্বকের রুক্ষ-শুষ্কভাব দূর হয়।

  • Publish Date - 10:27 pm, Sat, 12 June 21 Edited By: Sohini chakrabarty
গরমকালে ত্বকের পরিচর্যায় কীভাবে কাজে লাগে জাম ফল?
ত্বকের যত্নে ব্যবহার করুন জাম।

প্রাকৃতিক উপকরণের সাহায্যে চুল এবং ত্বকের পরিচর্যা করার ব্যাপারে সবসময়ই উৎসাহ দেন বিউটিশিয়ানরা। তাই গরমকালে ত্বকের যত্নে থাকুক জাম ফল। গরমে এমনিতেও ত্বকের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দেয়। আর এর মধ্যে অনেক সমস্যারই সমাধান হয় জামের সাহায্যে।

ত্বকের কোন সমস্যায় কীভাবে কাজ করে জাম ফল 

১। ত্বক মোলায়েম এবং নরম রাখতে সাহায্য করে জাম। এই ফলে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন। যার সাহায্যে ত্বকের রুক্ষ-শুষ্কভাব দূর হয়। এছাড়াও আরও অনেক ভিটামিন এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান রয়েছে জামের মধ্যে। যার ফলে ত্বকের জেল্লাভাব বজায় থাকে। ত্বক আর্দ্র রাখতেও সাহায্য করে জাম ফল।

২। গরমকালে ব্রনর সমস্যায় নাজেহাল হন প্রায় সকলেই। বিশেষ যাঁদের তৈলাক্ত ত্বকের সমস্যা রয়েছে, তাঁদের তো সাংঘাতিক ভাবে ব্রনর সমস্যা দেখা দেয় গরমকালে। জামের মধ্যে রয়েছে অনেক অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান, যা ব্রনর সমস্যা কমাতে সাহায্য করে। তাই জামুন সিড পাউডার যুক্ত কোনও ফেসপ্যাক ব্যবহার করা যেতে পারে। এর ফলে ব্রন, র‍্যাশ, অ্যালার্জি, ব্ল্যাকহেডস… এইসব সমস্যা দূর হবে।

৩। প্রবাদে আছে জাম খেলে রক্ত ভাল হয়। অর্থাৎ সঠিক ভাবে ব্লাড পিউরিফিকেশন হয়। রক্ত পরিশ্রুত হলে, ব্লাড ডিটক্সিফিকেশনের মাধ্যমে রক্তের দূষিত উপাদান বেরিয়ে গেলে, ত্বকের অনেক সমস্যায় কমে যায়। বিশেষ করে ব্রনর সমস্যার সমাধান হয়।

৪। যাঁদের অয়েলি স্কিনের সমস্যা রয়েছে, তাঁদের ক্ষেত্রে জামের মধ্যে থাকা astringent দারুণ ভাবে কাজ করে। এর ফলে ত্বকের অতিরিক্ত তেলতেলে ভাব কমে যায়। গোলাপ জলের সঙ্গে জামের পাল্প মিশিয়ে মুখে মাখলে তৈলাক্ত ত্বকের সমস্যা দূর হয়। ত্বকের অতিরিক্ত তেল বেরিয়ে যায়।

৫। ত্বকের মধ্যে কোনও দাগ-ছোপ থাকলে সেটাও দূর হয় জামের সাহায্যেই। ভিটামিন সি, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপকরণ এইসব দাগ-ছোপ, ডার্ক সার্কেল, কালচে ভাব দূর করতে সাহায্য করে।

আরও পড়ুন- লিচু দিয়ে তৈরি এই পাঁচটি ফেস প্যাক ত্বক ভাল রাখবে

৬। অসময়ে ত্বকে বলিরেখা বা রিঙ্কেলস পড়তে দেয় না। অর্থাৎ অ্যান্টি-এজিং উপাদান হিসেবে কাজ করে জাম ফল। তাই ফেসপ্যাক কিংবা স্ক্রাবার অথবা এসেনসিয়াল অয়েল কেনার আগে দেখে নিন জামুন বা জামের উপকরণ রয়েছে কিনা।