Premature Grey Hair: কম বয়সে চুল সাদা হচ্ছে? ঘরোয়া এই কয়েকটি উপায়ে মিলবে সমাধান

প্রিম্যাচিওর গ্রে হেয়ারের সমস্যা কমাতে ঘরোয়া পদ্ধতিতে কী কী করবেন, দেখে নিন।

Premature Grey Hair: কম বয়সে চুল সাদা হচ্ছে? ঘরোয়া এই কয়েকটি উপায়ে মিলবে সমাধান
অসময়ে চুল সাদা হয়ে যাওয়ার সমস্যা এড়াবেন কীভাবে?
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Sohini chakrabarty

Jul 31, 2021 | 8:34 PM

অসময়ে চুল সাদা হয়ে যাওয়া বা পেকে যাওয়ার সমস্যা কিন্তু এখন প্রায় সকলেরই আছে। বার্ধ্যকেই কেবল চুলে সাদা পাক ধরবে, এমনটা আজকাল আর হচ্ছে না। বরং বয়সের বাধা না মেনে অকালেই পাকছে চুল। এই ‘প্রিম্যাচিওর গ্রে হেয়ার’ দেখলেই আপনার মন খারাপ হয়ে যায়। মূলত খাবারের অনিয়ম, মানসিক চাপ কিংবা অবসাদ- এইসব কারণে অল্প বয়সেই চুল সাদা হয়ে যাওয়ার সমস্যা দেখা দেয়। তাই এই সমস্যা এড়িয়ে চলার জন্য কী কী করতে হবে দেখে নিন।

  • চুলের স্বাস্থ্যের জন্য তেল-মশলাদার খাবার কখনই ভাল নয়। এছাড়া ডিপ ফ্রাই বা ফাস্টফুড, ভাজাভুজি না খাওয়াই ভাল।
  • মদ্যপানে হ্রাস টানতেই হবে। কারণ অতিরিক্ত মদ্যপান চুলের স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর।
  • স্ট্রেস কমাতে নিয়মিত যোগাসন, মেডিটেশন, একসারসাইজ করুন। ভাল গান শুনুন। উপকার পাবেন।
  • শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সুদৃঢ় করুন। তাহলে মন, মেজাজ, স্বাস্থ্য, চুল, ত্বক- সবকিছুই থাকবে একদম ফ্রেশ।
  • শরীরে ভিটামিন বা প্রোটিং কিংবা মিনারলস- মোট কথা পুষ্টির ঘাটতি হতে দেবেন না।

এছাড়াও অকালে চুল পেকে যাওয়া রুখতে যা যা ব্যবহার করবেন-

আমলকি গুঁড়ো- একটা লোহার পাত্রে এক কাপ আমলকির গুঁড়ো ছাই হয়ে না যাওয়া পর্যন্ত গরম করুন। তারপর সেটা মিশিয়ে দিন ৫০০ মিলিমিটার নারকেলে তেলে। আমলকির গুঁড়ো (ছাই হয়ে যাওয়া) মেশানোর সময় হাল্কা আঁচে নারকেল তেল গরম করতে হবে প্রায় ২০ মিনিট ধরে। ঠাণ্ডা হলে এই মিশ্রণ ২৪ ঘণ্টার জন্য রেখে দিন। তারপর পরের দিন ছাঁকনি দিয়ে ছেঁকে তেল আলাদা পাত্রে ঢেলে নিন। এবার এই তেল দিয়ে মাথায় ম্যাসাজ করুন।

কারি পাতা- কারি পাতা গুঁড়ো করে বা বেটে নিন। এর সঙ্গে মিশিয়ে দিন আমলকি গুঁড়ো আর ব্রাহ্মি পাউডার। এবার হেয়ার মাস্ক হিসেবে এই মিশ্রণ ব্যবহার করুন। চুলের গোড়াতেও এই মিশ্রণ লাগাবেন। অন্তত এক ঘণ্টা রেখে তারপর যেকোনও হার্বাল শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

ইন্ডিগো এবং হেনা- ইন্ডিগো অর্থাৎ নীল- এর সঙ্গে মেহেন্দি মিশিয়ে চুলে রঙ করতে পারেন। যেকোনও কেমিক্যাল মিশ্রিত হেয়ার কালারের তুলনায় এই রঙ চুলের পক্ষে ভাল। যে জায়গায় চুল সাদা হয়ে গিয়েছে, সেখানে এই রঙ লাগালে কিছুটা ডিপ রঙ দেখাবে।

নারকেল তেল- নারকেল তেলের সঙ্গে পাতিলেবুর রস মিশিয়ে লাগালে চুলের রঙ গাঢ় থাকে। এই দুই উপকরণের রাসায়নিক প্রতিক্রিয়ার ফলে দীর্ঘদিন চুল কালো থাকে।

ব্ল্যাক টি- হাল্কা গরম জলে ব্ল্যাক টি ভিজিয়ে রাখুন। তারপর সেটা মিক্সিতে বেটে নিন। এবার এর সঙ্গে সামান্য লেবুর রস মিশিয়ে ওই মাস্ক চুলে লাগান। এর ফলে চুলের সাদা হয়ে যাওয়ার সমস্যা যেমন কমবে, তেমনই চুল নরম, উজ্জ্বল এবং মোলায়েম হবে। অর্থাৎ ভাল কন্ডিশনারেরও কাজ করবে এই হেয়ার প্যাক বা মাস্ক।

হার্বাল মিক্সচার- বাড়িতেই একটি হার্বাল মিশ্রণ তৈরি করতে পারেন। এটা তৈরি করার জন্য প্রয়োজন এক চা-চামচ আমলকি গুঁড়ো, ২ চা-চামচ ব্ল্যাক টি, এক চা-চামচ স্ট্রং কফি, kaththa টুকরো আধা ইঞ্চি, walnut bark এক টুকরো, এক চা-চামচ নীল, এক চা-চামচ ব্রাহ্মি পাউডার, এক চা-চামচ ত্রিফলা। ২ লিটার জলে এই সমস্ত উপকরণ দিয়ে হাল্কা আঁচে ভাল করে ফুটিয়ে নিতে হবে। তারপর ছাকনি দিয়ে মিশ্রণ ছেঁকে একটি বোতলে রেখে দিন। শ্যাম্পু করার আগে চুলের গোড়া এবং যেসব অংশ সাদা হয়েছে সেখানে এই উপকরণ লাগান। কয়েকদিন ব্যবহার করলেই ফারাক বুঝতে পারবেন।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla