ক্রিসমাস এসে গেলেও ভিড় নেই সান্তাক্লজের বাড়িতে, ল্যাপল্যান্ডের পর্যটন শিল্পে বড়সড় ক্ষতির আশঙ্কা

কোভিড বিধি-নিষেধের জন্যই চলতি বছর সান্তাক্লজের বাড়িতে পৌঁছতে পারেননি পর্যটকরা।

ক্রিসমাস এসে গেলেও ভিড় নেই সান্তাক্লজের বাড়িতে, ল্যাপল্যান্ডের পর্যটন শিল্পে বড়সড় ক্ষতির আশঙ্কা
অন্যান্য বছর ক্রিসমাস উপলক্ষ্যে ল্যাপল্যান্ডে সান্তাক্লজের বাড়ি দেখতে প্রচুর পর্যটকের আনাগোনা হয় বলে ব্যবসায় লাভের মুখ দেখেন ব্যবসায়ীরা।

ক্রিসমাস তো এসে গিয়েছে। কিন্তু করোনা আতঙ্কে সান্তাক্লজের বাড়িতে এবার ভিড় জমাননি পর্যটকরা। উত্তর ফিনল্যান্ডের ল্যাপল্যান্ডে রোভানিএমি-তে রয়েছে ফিনিশ (ফিনল্যান্ডের অধিবাসী) সান্তাক্লজের বাড়ি। প্রতি বছরে সেখানে ভিড় জমান আট থেকে আশি। ছোট্ট বাচ্চাদের নিয়ে সান্তার বাড়িতে ঘুরতে যান মা-বাবারা।

কিন্তু এবার সেইসবের বালাই নেই। কোভিডের দাপটে এবছর চরম কড়াকড়ি ফিনল্যান্ডে। ইউরোপের অন্যান্য অনেক দেশেই করোনায় সংক্রমণ ভয়াবহ আকার নিলেও সেভাবে প্রভাব ফেলেনি ফিনল্যান্ডে। কিন্তু সতর্কতায় কোনও রকম ত্রুটি রাখেনি সে দেশের সরকার। বাইরের পর্যটকদের এখনও ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না ফিনল্যান্ডে।

আরও পড়ুন- সান্তাক্লজের বাড়ি আসলে কোথায়? ক্রিসমাস ইভের আগে জানুন সান্তা-র অজানা গল্প

আর এই বিধি-নিষেধের জন্যই চলতি বছর সান্তাক্লজের বাড়িতে পৌঁছতে পারেননি পর্যটকরা। মন্দা হয়েছে উত্তর ফিনল্যান্ডের পর্যটন শিল্পেও। অন্যান্য বছর ক্রিসমাস উপলক্ষ্যে ল্যাপল্যান্ডে সান্তাক্লজের বাড়ি দেখতে প্রচুর পর্যটকের আনাগোনা হয় বলে ব্যবসায় লাভের মুখ দেখেন ব্যবসায়ীরা। তবে এবছর সে গুড়ে বালি। নিয়মের কড়াকড়ির জন্য কেউ আসতে পারেননি।

বিজনেস ফিনল্যান্ডের ট্র্যাভেল ইন্ডাস্ট্রির পরিসংখ্যান অনুযায়ী ২০২০-তে প্রায় ৭৮ শতাংশ কমে গিয়েছে পর্যটকের আগমন। এর জন্য স্থানীয় ব্যবসায়ীরা চরম দুর্দশায় পড়েছে। ব্যবসা তো লাটে উঠেইছে। বড়সড় ক্ষতির আশঙ্কা করছেন তাঁরা। পর্যটনের সঙ্গে যুক্ত সমস্ত ক্ষেত্রেই যেমন-হোটেল, রেস্তোরাঁয় ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে। রোভানিএমি-র ট্যুরিস্ট বোর্ডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর সান্না কারক্কাইনেন-এর কথায় স্থানীয় ব্যবসার জন্য ক্রিসমাসের সময়টা এবার আতঙ্কে পরিণত হয়েছে।

রাজধানী হেলসিঙ্কি-সহ প্রায় পুরো ফিনল্যান্ড জুড়েই চলেছিল কড়া লকডাউন। সেই জন্যই হয়তো অতিমারী চরমতম প্রভাব থেকে রেহাই পেয়েছে সান্তাক্লজের দেশ। কিন্তু যেহেতু ইউরোপে করোনার সংক্রমণ নতুন করে মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে ফলে আবারও হয়তো সুরক্ষার খাতিরে এবং করোনা রুখতে নিয়মের কড়াকড়ি করবে ফিনল্যান্ড।

সান্তাক্লজের বাড়িতে পর্যটকরা না আসায় স্নোমোবাইল ট্যুর বা আইস সুইমিংয়ের মতো ইভেন্ট যে সব সংস্থা আয়োজন করে তারাও ব্যবসায় মার খেয়েছে। স্থানীয়রা অবশ্য আশা করছেন যে হয়তো এই উৎসবের মরশুম তাদের ভাল খবর দেবে, কারণ নতুন ভাবে কড়াকড়ির নির্দেশ এখনও দেয়নি ফিনল্যান্ড সরকার।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla