CWG 2022: পাক ভারোত্তোলকের সোনা জয়ের প্রেরণা ভারতের চানু!

Commonwealth Games 2022: ছয়দিনের অপেক্ষার পর পাকিস্তানে ঝুলিতে কমনওয়েলথ গেমস থেকে এসেছে সোনার পদক। ৪০৫ কেজি ওজন তুলে সোনা জিতেছেন ভারোত্তোলক নূহ দস্তগীর বাট। ম্যাচ জয়ের পর মিস্টার বাট অকপটে জানিয়ে দিলেন, তিনি মীরাবাঈ চানুর ফ্যান।

CWG 2022: পাক ভারোত্তোলকের সোনা জয়ের প্রেরণা ভারতের চানু!
নূর মীরাবাঈ চানুর ফ্যান
Image Credit source: Twitter
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Tithimala Maji

Aug 04, 2022 | 6:45 PM

বার্মিংহ্যাম: একে কি বলবেন? কাটা ঘায়ে নুনের ছিটে! ভারতের অ্যাথলিটরা বার্মিংহ্যাম কমনওয়েলথ গেমসে ভুরি ভুরি পদক জিতছেন। ভারোত্তোলনে দশ খানা পদক ইতিমধ্যেই জিতে ফেলেছে ভারত। রয়েছে তিন তিনটি সোনা। দেখেশুনে দীর্ঘশ্বাস ফেলা ছাড়া উপায় ছিল না পড়শি দেশ পাকিস্তানের। অবশেষে ছয়দিনের অপেক্ষার পর পাকিস্তানের ঘরে এসেছে পদক। ভারোত্তোলনে সোনা জিতেছেন নূহ দস্তগীর ভাট। একমাত্র সোনাজয়ীকে নিয়ে আহ্লাদের শেষ নেই পাকিস্তানের। সে তো হবেই। সেই ২০০৬ সালের মেলবোর্ন কমনওয়েলথ গেমসে পাকিস্তানের হয় প্রথম স্বর্ণপদক পেয়েছিলেন সুজাউদ্দিন মালিক। ১৬ বছরের অপেক্ষার পর এল দ্বিতীয় সোনা। পাকিস্তানের জাতীয় হিরো বনে গিয়েছেন নূহ। তবে সেই উদযাপনে কিছুটা হলেও ভাঁটা ফেলেছে একমাত্র সোনাজয়ীর মন্তব্য। বার্মিংহ্যাম কমনওয়েলথ গেমসে এখনও পর্যন্ত পাকিস্তানের একমাত্র পদকজয়ী দরাজ প্রশংসা করলেন মীরাবাঈ চানুর। পদক জিতেই জানিয়ে দিলেন, তিনি মীরাবাঈয়ের ‘জাবরা ফ্যান’। তাঁর অনুপ্রেরণার উৎস হলেন মণিপুরী ভারোত্তোলক।

২৪ বছরের নূহ নেমেছিলেন ভারোত্তোলনে ১০৯ কেজির হেভিওয়েট বিভাগে। স্ন্যাচে ১৭৩ কেজি তোলার পর ক্লিন অ্যান্ড জার্কে তোলেন ২৩২ কেজি। রেকর্ড ৪০৫ কেজি ওজন তুলে সোনার পদক জিতে নেন তরুণ পাক অ্যাথলিট। কিন্তু জানেন কি, নূহ দস্তগীরের ইভেন্ট শেষ হওয়ার পর তাঁকে সশরীরে এসে অভিনন্দন জানানো প্রথম মানুষটি হলেন মীরাবাঈ চানু। অলিম্পিক পদকজয়ী চানু শুধু ভারতই নন, প্রতিবেশী দেশগুলির তরুণ ভারোত্তোলকদেরও এখন অনুপ্রেরণা কারণ। এই দাবি স্বয়ং পাকিস্তানের সোনাজয়ী ভারোত্তোলক নূহ দস্তগীরের। সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নূহ বলেন, “আমার কাছে এটা দারুণ মুহূর্ত। উনি এসে অভিনন্দন জানালেন। আমার পারফরম্যান্সের প্রশংসা করলেন। আমরা মীরাবাঈকে অনুপ্রেরণা হিসেবে দেখি।” এখানেই শেষ না করে আরও বললেন, “উনি দেখিয়ে দিয়েছেন যে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলিও অলিম্পিকে পদক জিততে পারে। টোকিয়ো অলিম্পিকে চানুর রুপো জয়ে আমরা ভীষণ গর্বিত।” ১০৯ কেজি হেভিওয়েট বিভাগে গতকালই ব্রোঞ্জ জিতেছেন ভারতের গুরদীপ সিং। গত সাত থেকে আট বছর ধরে নূহ এবং গুরদীপের বন্ধুত্ব। বিদেশে একসঙ্গে অনুশীলন থেকে ব্যক্তিগত কথাবার্তা চালাচালি-সবটাই হয়।

সোনাজয়ী নূহ এখন ন্যাশনাল হিরো। গোটা দেশ তাঁকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছে। আফ্রিদিরা লম্বা লম্বা টুইট করেছেন। তবে এত প্রশংসার মাঝে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতীয় অ্যাথলিটদের অনুপ্ররণা, বন্ধু টন্ধু বলে আবার বিপদ বাড়ালেন নাতো পড়শি দেশের ভারোত্তোলক! কারণ অতীতে ভারতীয় খেলোয়াড়দের অনুরাগী হওয়ার ‘অপরাধে’ জেলে ঢোকানোর নজির গড়েছে পাকিস্তান। নিজেকে বিরাট কোহলির ভক্ত বলায় এক পাকিস্তানি ক্রিকেট অনুরাগীর জেল হয়ে গিয়েছিল। তা নিয়ে কম জলঘোলা হয়নি ওয়াঘার এপার-ওপারে। চানুর ভক্ত হওয়ার অপরাধে কি পাক ভারোত্তোলককেও দায় নিতে হবে?

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla