Indian Cricket: প্রোটিয়া সিরিজ থেকেই বাবল মুক্তি রাহুলদের

Indian Cricket: প্রোটিয়া সিরিজ থেকেই বাবল মুক্তি রাহুলদের
বাবলমুক্তি রাহুলদের। ছবি: টুইটার

এক সাক্ষাৎকারে বিসিসিআই সচিব জয় শাহ বলেন, 'এ বারের আইপিএলে এটাই শেষ বায়ো-বাবল। ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ থেকেই আর বলয়ে থাকতে হবে না ক্রিকেটারদের। তবে নিয়ম মেনেই প্রত্যেক ক্রিকেটারদের কোভিড পরীক্ষা হবে।'

TV9 Bangla Digital

| Edited By: Kaustav Ganguly

May 29, 2022 | 2:36 PM

আমদাবাদ: আগেই আন্দাজ পাওয়া গিয়েছিল। সেটাই সত্যি হল। ভারত (India)-দক্ষিণ আফ্রিকা (South Africa) সিরিজে থাকছে না বায়ো বাবল (Bio Bubble)। অবশেষে বাবল যন্ত্রণা থেকে মুক্তি কেএল রাহুল (KL Rahul), ঋষভ পন্থদের। সামনের মাসেই দেশের মাঠে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ৫ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে টিম ইন্ডিয়া। রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি, জসপ্রীত বুমরা, মহম্মদ সামিদের বিশ্রাম দিয়েই দল গড়া হয়েছে। সিরিজে নেতৃত্ব দেবেন কেএল রাহুল। ভাইস ক্যাপ্টেন ঋষভ পন্থ। পাঁচটা আলাদা ভেনুতে হবে ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা টি-টোয়েন্টি সিরিজ। সিরিজের ভেনু ঘোষণার পরই আন্দাজ করা গিয়েছিল, আসন্ন সিরিজে বায়ো বাবলে থাকতে হবে না ক্রিকেটারদের। সেই খবরেই শিলমোহর দিলেন বোর্ড সচিব জয় শাহ। আইপিএল ফাইনালের জন্য এই মুহূর্তে আমদাবাদে আছেন বোর্ড সচিব।

এক সাক্ষাৎকারে বিসিসিআই সচিব জয় শাহ বলেন, ‘এ বারের আইপিএলে এটাই শেষ বায়ো-বাবল। ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ থেকেই আর বলয়ে থাকতে হবে না ক্রিকেটারদের। তবে নিয়ম মেনেই প্রত্যেক ক্রিকেটারদের কোভিড পরীক্ষা হবে।’ কোভিড পরবর্তী সময়ে বাবল ক্লান্তি খেলোয়াড়দের মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত করে তোলে। বিরাট কোহলি থেকে জসপ্রীত বুমরা, প্রত্যেকেই বাবল ক্লান্তির প্রভাবের কথা বলেছিলেন। এমনকি আইপিএল থেকে তো নামই তুলে নেন বিদেশের কয়েকজন ক্রিকেটার।

জয় শাহ বলেন, ‘বলয়ে থাকাটা খুব কঠিন খেলোয়াড়দের কাছে। হোটেলের মধ্যে একটা পারিবারিক পরিবেশ থাকলেও, বাবল ক্লান্তি খেলোয়াড়দের মানসিক ভাবে প্রভাব ফেলেছিল। আইপিএলের ক্ষেত্রে আমরা নির্দিষ্ট হোটেল বুক করে রেখেছিলাম। গোটা টুর্নামেন্টটাই একটা ভেনুতে হয়েছে। প্রত্যেক দলের জন্যই বিশেষ ব্যবস্থা রেখেছিলাম। যাতে খোলা মনে প্রত্যেকে থাকতে পারে।’

আইপিএলের লিগ পর্যায়ের ৭০টা ম্যাচ সুষ্ঠু ভাবে সম্পন্ন করায় মুম্বই আর মহারাষ্ট্র ক্রিকেট সংস্থার প্রশংসা করেন বোর্ড সচিব জয় শাহ। গত বছর আইপিএলের মাঝে কোভিড থাবা বসালেও, এ বারে কোনও ব্যাঘাত ঘটেনি। দিল্লি ক্যাপিটালস শিবিরে কয়েকজন করোনা সংক্রমিত হলেও, তা বড়সড় আকার ধারণ করেনি। সূচি মেনেই হয়েছে সমস্ত ম্যাচ। বায়ো বাবলে আর থাকতে না হওয়ায় ক্রিকেটাররা মানসিক ভাবে অনেকটাই স্বস্তি পেলেন।

আরও পড়ুন: IPL 2022: জেনে নিন কোন পথে আইপিএল-২০২২ এর ফাইনালে রাজস্থান রয়্যালস

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA