TOKYO OLYMPICS 2020: ভারতের হকি ‘বন্দনা’

উত্তরাখণ্ডের গ্রামে গাছের ডালে ডালে চড়ে বেড়াতেন। একটা গাছের ডাল থেকে আরেকটা গাছের ডালে লাফিয়ে যেতেন। এটাই ছিল তাঁর খেলা। আর সেই খেলাই এখন তাঁকে হকিতে সাহায্য করছে।

TOKYO OLYMPICS 2020: ভারতের হকি 'বন্দনা'
নজরে বন্দনা কাটারিয়া

টোকিও: গতকালই ইতিহাস গড়েছেন বন্দনা কাটারিয়া। প্রথম ভারতীয় মহিলা হকি খেলোয়াড় হিসেবে হ্যাটট্রিক করেন তিনি। তাঁর দুরন্ত পারফরম্যান্সের সুবাদেই অলিম্পিকের শেষ আটে পৌঁছায় ভারত। কিন্তু কে এই বন্দনা কাটারিয়া? কি ভাবেই বা তাঁর উত্থান?

উত্তরাখণ্ডের রোশনাবাদ গ্রামের মেয়ে বন্দনা। বাবার অমতেই হকিকে বেছে নেওয়া। বাবা নাহার সিং কাটারিয়া ছিলেন কুস্তিগীর। কখনও চাইতেন না মেয়ে হকি খেলোয়াড় হোক। কিন্তু বন্দনার মন পড়েছিল সেই হকি স্টিকেই। বাবার চোখরাঙানিকে উপেক্ষা করেই নিজের লক্ষ্যে এগিয়ে যান। ছোট থেকেই দুষ্টুমি করতেন বন্দনা। উত্তরাখণ্ডের গ্রামে গাছের ডালে ডালে চড়ে বেড়াতেন। একটা গাছের ডাল থেকে আরেকটা গাছের ডালে লাফিয়ে যেতেন। এটাই ছিল তাঁর খেলা। আর সেই খেলাই এখন তাঁকে হকিতে সাহায্য করছে। একটা গাছের ডাল থেকে আরেকটা গাছের ডালে লাফ দেওয়ার ফলে বন্দনার রিফ্লেক্স ছোট থেকেই অনেক ভাল। শরীরকেও দ্রুত সরাতে পারেন। যা তাঁকে খেলায় সাহায্য করে।

তিন মাস আগে প্রয়াত হয়েছেন নাহার সিং কাটারিয়া। জাতীয় দলের শিবিরে থাকার সুবাদে বাবার শেষকৃত্যে হাজির থাকতে পারেননি। অলিম্পিকের আসরে মেয়ের দাপুটে পারফরম্যান্স দেখে যেতে পারেননি বন্দনার বাবা। হকিতে দেশকে সাফল্য এনে দিয়ে উত্তরাখণ্ডের মুখ উজ্জ্বল করাই এখন লক্ষ্য বন্দনা কাটারিয়ার।

       অলিম্পিকের আরও খবর জানতে ক্লিক করুনঃ টোকিও অলিম্পিক২০২০

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla