TOKYO OLYMPIC 2020 : কোয়ারান্টিন মুক্তি ভারতীয় শুটিং ও বক্সিং দলের

আয়োজকরা জানিয়েছেন ভারতীয় শুটিং ও বক্সিং দলকে টোকিওয় কোয়ারান্টিন পর্বে থাকতে হবে না। ভারতীয় বক্সিং দল ইতালি থেকে টোকিও পৌঁছবে। ক্রোয়েশিয়া ও ইতালি দুই দেশের করোনার নিয়মের জন্যই ছাড় পাচ্ছেন ভারতীয় শ্যুটার ও বক্সাররা।

TOKYO OLYMPIC 2020 : কোয়ারান্টিন মুক্তি ভারতীয় শুটিং ও বক্সিং দলের
মুক্তি শুটার ও বক্সারদের

টোকিও: শনিবার সকাল থেকেই চাপা টেনশন। অলিম্পিক(olympics) গেমস ভিলেজে প্রথম করোনা(covid19) সংক্রমণের খবর আসতেই একটা শীতল স্রোত বইতে শুরু করেছে অ্যাথলিট(athelete) থেকে আয়োজক, সবার মধ্যেই। তার মধ্যেই শনিবার সকালে টোকিও (tokyo) পৌঁছে গেছে ভারতীয় শুটিং(shooting) দল। বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষার পর গেমস ভিলেজে থাকার ছাড়পত্র পেয়েছেন তারা। জাগ্রেব থেকে আমস্টারডাম থেকে টোকিও পৌঁছলেন তাঁরা। বিকেলে সুখবর মানু ভাকরদের জন্য।

আয়োজকরা জানিয়েছেন ভারতীয় শুটিং ও বক্সিং দলকে টোকিওয় কোয়ারান্টিন পর্বে থাকতে হবে না। ভারতীয় বক্সিং দল ইতালি থেকে টোকিও পৌঁছবে। ক্রোয়েশিয়া ও ইতালি দুই দেশের করোনার নিয়মের জন্যই ছাড় পাচ্ছেন ভারতীয় শ্যুটার ও বক্সাররা। কোভিড টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ হলেই সরাসরি অনুশীলনে নেমে পড়তে পারবেন তাঁরা।

এদিকে করোনার জন্য জাপানের একটা অংশ মানুষ কোন ভাবেই অলিম্পিকের আয়োজন মেনে নিতে পারছেন না। গেমস শুরুর ছয় দিন আগেও জাপানের রাস্তায় বিক্ষোভের ছবি। এমনকি আইওসি সভাপতির হিরোশিমা সফরে তাঁকেও পরতে হয়েছে বিক্ষোভের মুখে। কিন্তু এখন পিছিয়ে আসার কোনও সম্ভাবনা নেই। উল্টে বিক্ষোভকারীদের উদ্দেশ্যে টমাস বাখের মন্তব্য, ‘দয়া করে বিশ্বের নানান প্রান্ত থেকে আসা অ্যাথলিটদের স্বাগত জানান।’

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla