Bankura: পঞ্চায়েত নির্বাচনের মুখে আবারও পৃথক রাঢ় বঙ্গের ‘সুড়সুড়ি’ বিজেপি বিধায়কের

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: অবন্তিকা প্রামাণিক

Updated on: Nov 20, 2022 | 2:18 PM

Amarnath Sakha: বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম সহ পশ্চিমের জেলাগুলিকে নিয়ে প্রথম রাঢ়বঙ্গ নামের পৃথক রাজ্যের দাবিতে সরব হন বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ।

Bankura: পঞ্চায়েত নির্বাচনের মুখে আবারও পৃথক রাঢ় বঙ্গের ‘সুড়সুড়ি’ বিজেপি বিধায়কের
বিজেপি বিধায়ক অমরনাথ শাখা (নিজস্ব চিত্র)

বাঁকুড়া: পঞ্চায়েত নির্বাচনের মুখে ফের জোরদার হচ্ছে পৃথক রাঢ় বঙ্গের দাবি। গত কয়েকদিন আগে কলকাতায় বাঁকুড়ার পাঁচ বিধায়ক পৃথক আলাদা রাঢ় বঙ্গের দাবি তোলেন। এবার ওন্দার মুড়াকাটা গ্রামে সভা করতে গিয়ে সেই একই দাবিতে সওয়াল করলেন ওন্দার বিজেপি বিধায়ক অমরনাথ শাখা।

বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম সহ পশ্চিমের জেলাগুলিকে নিয়ে প্রথম রাঢ়বঙ্গ নামের পৃথক রাজ্যের দাবিতে সরব হন বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। এরপর থেকেই ক্রমশ জোরাল হতে থাকে পৃথক রাঢ় বঙ্গের দাবি। সম্প্রতি কলকাতায় গিয়ে বাঁকুড়ার পাঁচ বিধায়ক ফের এই একই দাবি তোলেন। সেই ঘটনার জের কাটতে না কাটতেই এবার ময়দানে নেমে মানুষের মধ্যে পৃথক রাঢ়বঙ্গের দাবি ছড়িয়ে দিতে সক্রিয় হলেন বাঁকুড়ার বিজেপি বিধায়ক অমরনাথ শাখা।

শনিবার সন্ধ্যায় বাঁকুড়ার ওন্দা ব্লকের মুড়াকাটা গ্রামে দলীয় একটি সভায় যোগ দিয়ে রাঢ়বঙ্গের প্রতি বঞ্চনার অভিযোগ তুলে পৃথক রাঢ়বঙ্গ রাজ্যের দাবি তোলেন তিনি। তাঁর অভিযোগ রাঢ়বঙ্গ সম্পদে সমৃদ্ধ হলেও সেই সম্পদ সোজা চলে যাচ্ছে কালীঘাটে। দশকের পর দশক ধরে বঞ্চনার শিকার হচ্ছেন রাঢ়বঙ্গের মানুষ। রাজ্যে বিজেপি ক্ষমতায় এলে পৃথক রাজ্য তৈরির ব্যাপারে প্র‍য়োজনীয় পদক্ষেপ করার কথাও জানিয়েছেন বিধায়ক।অমরনাথ শাখা বলেন, ‘রাঢ় বাংলা বঞ্চনার শিকার। এখানকার মানুষ সব দিক থেকে বঞ্চিত। পানীয় জলের ব্যবস্থা নেই। সমস্ত দিক থেকে বঞ্চিত। সেই কারণে আমরা সকলের বাড়ি-বাড়ি যাচ্ছি।’ যদিও, বিজেপি বিধায়কের এই দাবিকে যুক্তিহীন পাগলের প্রলাপ বলে কটাক্ষ করেছে তৃণমূল। স্থানীয় তৃণমূল নেতা বলেন, ‘এখন বিজেপি বিধায়ক কোনও প্রার্থী খুঁজে পাচ্ছেন না। তাই নিজেই মাঠে নেমে পড়েছেন। এবার মানুষকে তো কিছু বোঝাতে হবে। সেই কারণে নিজেই ভুলভাল দাবি জানাচ্ছেন।’

উল্লেখ্য, তবে শুধু রাঢ়বঙ্গ নয়, পাশাপাশি পৃথক উত্তরবঙ্গের দাবিতেও সরব হয় বিজেপির একাংশ। জন বার্লা, রাজু বিস্তা, নিশীথ প্রামাণিকের মুখে উত্তরবঙ্গের বঞ্চনার অভিযোগ শোনা গিয়েছে। অন্যদিকে কামতাপুরীর দাবি নিয়ে নতুন করে সরব হয়েছেন অনন্ত রায় (মহারাজ )। নিশীথের সঙ্গে বৈঠকও করেন তিনি। সব নিয়ে উত্তরবঙ্গ পৃথকের দাবিতে সরগরম রাজনীতি। যদিও, বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার প্রথম থেকেই বলে আসছেন, বঙ্গভঙ্গের বিরোধী তাঁর দল। কেন্দ্র থেকে এমন কোনও নির্দেশ তাঁদের কাছে আসেনি। রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীও এদিন বলেন, বঙ্গভঙ্গ কোনও স্থায়ী সমাধান নয়।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla