Physical Harassment : প্রতিবেশী মানসিক ভারসাম্যহীন যুবতিকে ধর্ষণ, ছেলের শাস্তির দাবিতে থানায় ছুটলেন অভিযুক্তের মা

Arambagh : বৃহস্পতিবার দুপুরে জল খাওয়ার নাম করে ওই যুবক প্রতিবেশী ওই মানসিক ভারসাম্যহীন নির্যাতিতার বাড়িতে যায় এবং সেই সময়েই এই কুকর্ম করে অভিযুক্ত।

Physical Harassment : প্রতিবেশী মানসিক ভারসাম্যহীন যুবতিকে ধর্ষণ, ছেলের শাস্তির দাবিতে থানায় ছুটলেন অভিযুক্তের মা
নারী নির্যাতন।
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Soumya Saha

Apr 22, 2022 | 11:30 PM

আরামবাগ : বাড়িতে সেই সময় কেউ ছিল না। আর বাড়ি ফাঁকা থাকার সেই সুযোগেকে কাজে লাগিয়ে এক মানসিক ভারসাম্যহীন এবং বিশেষভাবে সক্ষম যুবতিকে ধর্ষণ। বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটেছে আরামবাগ থানা এলাকায়। অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশী এক যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনায় ইতিমধ্য়েই নির্যাতিতার মা থানায় গিয়ে ওই প্রতিবেশী যুবকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযুক্ত যুবকের মাও থানায় ছুটে এসেছেন, ছেলের উপযুক্ত শাস্তির দাবিতে। আরামবাগ থানার পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করে এবং শুক্রবার অভিযুক্ত ওই যুবককে গ্রেফতার করা হয়। জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার দুপুরে জল খাওয়ার নাম করে ওই যুবক প্রতিবেশী ওই মানসিক ভারসাম্যহীন নির্যাতিতার বাড়িতে যায় এবং সেই সময়েই এই কুকর্ম করে অভিযুক্ত।

তখন বাড়িতে অন্য কেউ ছিল না বলেই প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে। আর সেই সুযোগটাই কাজে লাগায় অভিযুক্ত। পরে ওই যুবতি তাঁর মাকে গোটা বিষয়টি জানান। তিনি বৃহস্পতিবার রাতেই আরামবাগ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন প্রতিবেশী যুবকের বিরুদ্ধে। এরপরই পুলিশ ওই যুবককে আজ গ্রেফতার করে। দুপুরের পরে ধৃতকে আরামবাগ মহকুমা আদালতে পাঠানো হয়। পুলিশ জানিয়েছে অভিযুক্ত ওই যুবকের বাড়ি নির্যাতিতা ওই যুবতির বাড়ির আশেপাশেই। এদিকে অভিযুক্ত যুবকের মাও থানায় গিয়ে ছেলের উপযুক্ত শাস্তির কথা বলেছেন। ছেলেরই শাস্তি হোক, সেই দাবি জানিয়েছেন তিনি। তিনি চান, আইনি পথে ছেলের যা শাস্তি হওয়ার, তাই হোক। আরামবাগের এই ধর্ষণের অভিযোগের জেরে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে।

অভিযুক্ত যুবকের মা জানিয়েছেন, “ছেলেকে যা শাস্তি দেওয়ার দেবে। আইন অনুযায়ী শাস্তি হবে। আমার ছেলে দোষ করেছে, আমার আর বলার কিছু নেই। আমার মেয়ের সঙ্গে যদি এমন হত, আমিও কি ছেড়ে কথা বলতাম? ওনারও যেমন মেয়ে, আমারও তেমন মেয়ে।”

রাজ্যে একের পর এক ধর্ষণের ঘটনায় কার্যত মুখ পুড়েছে সরকারের। হাইকোর্টের নির্দেশে একের পর এক ঘটনায় কখনও সিবিআই তদন্ত, আবার কখনও কোনও দুঁদে আইপিএসের পর্যবেক্ষণে পুলিশি তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে।

আরও পড়ুন : Visva Bharati: ছাত্র মৃত্যুতে উত্তাল বিশ্বভারতী, উপাচার্যের বাড়ির গেট ভেঙে ঢুকল শববাহী গাড়ি

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla