Howrah : ‘পুলের মাঝখানে ফেলে দিয়েছিলেন’, ডুমুরজলায় জলে ডুবে বালকের মৃত্যুতে প্রশিক্ষকদের বিরুদ্ধে FIR

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: Sanjoy Paikar

Updated on: Jul 03, 2022 | 12:10 AM

Howrah : বিদীপ্তর পরিবারের অভিযোগ, তাদের ছেলেকে অন্য এক প্রশিক্ষক সাঁতার শেখান। গতকাল ওই প্রশিক্ষকের বদলে অন্য জন সাঁতার শেখাচ্ছিলেন। ক্লাবের বিরুদ্ধে ওঠা গাফিলতির অভিযোগ অস্বীকার করলেন সম্পাদক।

Howrah : 'পুলের মাঝখানে ফেলে দিয়েছিলেন', ডুমুরজলায় জলে ডুবে বালকের মৃত্যুতে প্রশিক্ষকদের বিরুদ্ধে FIR

হাওড়া : ডুমুরজলায় সুইমিং পুলে সাঁতার শিখতে গিয়ে মৃত্যু হয়েছে বছর নয়েকের বিদীপ্ত ঘোষের। তার মৃত্যুতে এবার প্রশিক্ষকের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ উঠল। বিদীপ্তর মা আগেই প্রশিক্ষকদের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ এনেছিলেন। এবার সরাসরি চ্যাটার্জিহাট থানায় প্রশিক্ষকদের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ এনে এফআইআর দায়ের করলেন মৃত বালকের মামা গৌতম ঘোষ।

অভিযোগ, শুক্রবার বিকেলে সুইমিং পুলের এক প্রশিক্ষক সাঁতার শেখাতে গিয়ে পুলের মাঝখানে ফেলে দেন বিদীপ্তকে। সেখান থেকে পাড়ে আসতে গিয়েই অতিরিক্ত জল খেয়ে দম আটকে গিয়ে তার মৃত্যু হয়। এমনকী যে প্রশিক্ষক এই কাজটি করেন তিনি বিদীপ্তর প্রশিক্ষক নন। অন্যদিন তিনি বিদীপ্তকে সাঁতার শেখান না। অন্য এক প্রশিক্ষকই শেখান। কিন্তু শুক্রবার ওই প্রশিক্ষক ছিলেন না বলে এদিন জানান বিদীপ্ত-র মা।

শুধু প্রশিক্ষকের গাফিলতি নয়, ডুমুরজলা স্পোর্টস কমপ্লেক্সে ‘স্বামীজী সংঘ’ নামে ওই ক্লাবের সুইমিং পুলের পরিকাঠামো নিয়েও অভিযোগ তোলেন মৃত বালকের পরিবারের সদস্য ও স্থানীয় বাসিন্দারা। তাঁদের অভিযোগ, ৫০ মিটার লম্বা ও ২৫ মিটার চওড়া সুইমিং পুলটির জল নিয়মিত পরিষ্কার করা হয় না। ঘোলা জলে গেঁড়ি, শামুক, মাছ ঘুরে বেড়ায়। তার মধ্যেই ঝুঁকি নিয়ে বালক-বালিকাদের সাঁতার শেখানো হয়। হাওড়া সিটি পুলিশের এক পদস্থ আধিকারিক জানান, কীভাবে মৃত্যু হল ওই নাবালকের, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এদিকে ওই ক্লাবের বিরুদ্ধে ওঠা গাফিলতির অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন সম্পাদক তপন দাস। শনিবার তিনি জানালেন, শুক্রবার বিদীপ্ত যখন সাঁতারের প্রশিক্ষণ নিচ্ছিলে তখন ৯ জন প্রশিক্ষক সুইমিং পুলে ছিলেন। প্রায় ৩০ জনকে অন্যান্য দিনের মতোই যত্ন সহকারেই প্রশিক্ষণ দিচ্ছিলেন তাঁরা। কারও কোনও গাফিলতি ছিল না। সম্পাদকের কথায়, কোনও নির্দিষ্ট বালক-বালিকার পিছনে নির্দিষ্ট কোনও প্রশিক্ষক থাকে না। সকলেই সকলকে সাঁতার শেখান। প্রতিদিনই ৯ থেকে ১০ জন প্রশিক্ষকের অধীনে প্রায় ৪০ থেকে ৫০ জন করে সাঁতার শেখে। পাশাপাশি তিনি এও জানালেন, ১৯৮৩ সাল থেকে চালু হওয়া ডুমুরজলা স্টেডিয়ামের ওই সুইমিং পুলটি নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণ করা হয়। আগে ওখানে একটি পুকুর ছিল। ওই পুকুরটিকে সাজিয়েই পরবর্তীকালে সুইমিং পুলটি তৈরি করা হয়। বর্তমানে এটির প্রায় ৪ ফুট গভীরতা রয়েছে।

শনিবার সকালে ডুমুরজলায় সুইমিং পুলটি পরিদর্শনে যান হাওড়া পুরনিগমের মুখ্য প্রশাসক সুজয় চক্রবর্তী। তিনি জানান, জায়গাটি পুরনিগমের নয়, হাওড়া ইমপ্রুভমেন্ট ট্রাস্ট বা এইচআইটির। আর হাওড়া শহরের বুকে এই ধরনের সুইমিং পুলকে লাইসেন্স পুর প্রশাসন দেয় না। হাওড়া ডিস্ট্রিক্ট সুইমিং অ্যাসোসিয়েশনের তরফে লাইসেন্স দেওয়া হয়। তবুও হাওড়া পুর প্রশাসনের তরফে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এই প্রসঙ্গে হাওড়া ডিস্ট্রিক্ট সুইমিং অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক দেবাশিস পাত্র জানালেন, তাঁরাই ক্লাবগুলিকে নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে সুইমিং পুল করার অনুমোদন দেন। এই ধরনের অনভিপ্রেত ঘটনা যাতে না ঘটে তার জন্য সুইমিংপুলগুলির উপর এবার নজরদারির পরিকল্পনা করছেন তাঁরা।

এই খবরটিও পড়ুন

বিদীপ্ত একটি বেসরকারি ইংরেজি মাধ্যম স্কুলে চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ত। শনিবার তার ব্রজনাথ লাহিড়ি লেনের বাড়িতে গিয়ে দেখা গেল শোকে ভেঙে পড়েছেন স্কুল শিক্ষিকা মা সুমনা ও রেলে কর্মরত বাবা বিভাস। পরিবারের আনা লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা শুরু করার পাশাপাশি পুলিশ সূত্রে খবর প্রশিক্ষকদের এ বিষয়ে শীঘ্রই জিজ্ঞাসাবাদের কাজ শুরু করা হবে।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla