Manglahat Market Opens: ব্যবসায়ীদের তীব্র আন্দোলনে খুলে গেল মঙ্গলাহাট, আর কোভিড বিধিনিষেধ?

Howrah: করোনা পরিস্থিতিতে (Corona Situation) বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল হাওড়ার বিখ্যাত মঙ্গলাহাট। কিন্তু ব্যবসায়ীদের তীব্র আন্দোলনের মুখে ফের খুলে গেল হাট।

Manglahat Market Opens: ব্যবসায়ীদের তীব্র আন্দোলনে খুলে গেল মঙ্গলাহাট, আর কোভিড বিধিনিষেধ?
ফের খুলছে মঙ্গলাহাট। নিজস্ব চিত্র।

হাওড়া: করোনা পরিস্থিতিতে (Corona Situation) বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল হাওড়ার বিখ্যাত মঙ্গলাহাট। কিন্তু ব্যবসায়ীদের তীব্র আন্দোলনের মুখে ফের খুলে গেল হাট। আগামী রবিবার, সোমবার এবং মঙ্গলবার হাওড়া ময়দান চত্বরে ফের বসতে চলেছে বাজার।

শুক্রবারের পর শনিবারও মঙ্গলাহাটের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে হাওড়া পুরসভার প্রশাসক মণ্ডলীর চেয়ারম্যান সুজয় চক্রবর্তীর দু’ দফা বৈঠক হয়। শেষে ব্যবসায়ীরা কোভিড স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন এই প্রতিশ্রুতি দিলে প্রশাসন হাটখোলার অনুমতি দেয়। যদিও সুজয়বাবু ব্যবসায়ীদের চাপে নতি স্বীকারের কথা অস্বীকার করেন।

গত কয়েক দিন লাগামছাড়া কোভিড সংক্রমনের জেরে গত সপ্তাহে বন্ধ করে দেওয়া হয় হাওড়া ময়দান এলাকার মঙ্গলাহাট। এর ফলে বিপাকে পড়েন এক লক্ষের বেশি ছোটবড় ব্যবসায়ী এবং প্রায় ১০ লক্ষ ক্রেতা। পুলিশ এবং প্রশাসনের পক্ষ থেকে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার ফলে গত রবিবার, সোমবার এবং মঙ্গলবার মঙ্গলাহাটে বিক্রিবাটা বন্ধ ছিল। এদিকে এর প্রতিবাদে হাটের ব্যবসায়ীরা আন্দোলন শুরু করেন।

তাঁরা ১১৭ নম্বর জাতীয় সড়ক কোনা এক্সপ্রেসওয়ে এবং হাওড়া ময়দানে দফায় দফায় রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান। এর পর নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। প্রথমে গত সোমবার হাওড়ার শরৎ সদনে হাট ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক করেন পুলিশ, প্রশাসন এবং হাওড়া পুরসভার কর্তারা। পুরসভার পক্ষ থেকে হাট ব্যবসায়ীদের কাছে হাট খোলার জন্য বেশ কিছু শর্ত আরোপ করা হয়। তার মধ্যে উল্ল্যেখযোগ্য ছিল হাট খোলা থাকলে কী ভাবে কোভিড স্বাস্থ্যবিধি মানা সম্ভব তা নিয়ে তাদের লিখিত প্রস্তাব দিতে বলা হয়।

সেই মতো হাট ব্যবসায়ীরাও তাদের প্রস্তাব লিখিত আকারে পুরসভার কাছে দেয়। এর প্রেক্ষিতে শুক্রবার এবং শনিবার হাট ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুরসভার প্রশাসক মণ্ডলীর চেয়ারম্যান সুজয় চক্রবর্তীর দু’ দফায় বৈঠক হয়। মূলত হাট এলাকায় হাওড়া জেলা হাসপাতাল, হাওড়া কোর্ট, জেলা শাসকের অফিস, হাওড়া পুরসভা এবং প্রশাসনের মূল অফিসগুলি থাকার কারণে প্রশাসনের পক্ষ থেকে হাট চালু রাখার আপত্তি ওঠে।

তবে প্রশাসনিক কর্তাদের সঙ্গে আলোচনার সময় ব্যবসায়ীরা প্রতিশ্রুতি দেন ব্যবসা চলাকালীন হাট চত্বরে কোভিড বিধি পুরোপুরি মেনে চলবেন। এর পরই হাট খোলার অনুমতি দেয় প্রশাসন। জানা গিয়েছে, হাট খোলা থাকার সময় ব্যবসায়ীরা এবং পুলিশের পক্ষ থেকেও একই সঙ্গে নজরদারি চালানো হবে। হাওড়া মঙ্গলাহাট ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি জানান এর ফলে ব্যবসায়ীরা রবিবার থেকে ব্যবসা করতে পারবেন। বাজার স্যানিটাইজেশনের কাজ তাঁরা শুরু করে দিয়েছেন। এর পাশাপাশি ক্রেতা এবং বিক্রেতা যাতে সবাই মাস্ক পরেন তা দেখা হবে। সবাইকে সচেতন করতে মাইকে ঘোষণার পাশাপাশি হাট চত্বরে পোস্টার দেওয়া হবে।

এদিকে হাওড়া পুরসভা প্রশাসক মন্ডলীর চেয়ারম্যান সুজয় চক্রবর্তী ব্যবসায়ীদের চাপের কথা অস্বীকার করে বলেন মানবিক কারণে হাট করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন তাঁরা হাওড়া হাসপাতালের বাইরের অংশে বসবেন না। এছাড়াও তাঁরা নিজেরাই হাট চত্বর স্যানিটাইজ করবেন। তাই শর্ত সাপেক্ষে ব্যবসা করার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে।

আরও পড়ুন: Crime: ‘সেক্স টয়’ কিনতে চেয়েছিলেন জলপাইগুড়ির শিক্ষক, ৩৭ লাখ টাকা খরচ করার পর জানলেন… 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla