Jalpaiguri Toto Fare: মূল্যবৃদ্ধির বাজার বলে কথা, এবার থেকে টোটোতে উঠলেই ন্যূনতম ভাড়া কত হতে চলেছে জানেন?

Jalpaiguri Toto Fare: তবে কেন পিছিয়ে থাকবে টোটো? টোটোতে চাপলেই দিতে হবে ২০ টাকা।

Jalpaiguri Toto Fare: মূল্যবৃদ্ধির বাজার বলে কথা, এবার থেকে টোটোতে উঠলেই ন্যূনতম ভাড়া কত হতে চলেছে জানেন?
জলপাইগুড়িতে টোটোর ভাড়া বাড়ানোর দাবি

জলপাইগুড়ি: মূল্যবৃদ্ধির বাজার বলে কথা! সব কিছুরই দাম বাড়ছে। জ্বালানির দাম বেড়েছে, স্বভাবতই বেড়েছে বাস টিকিটের দাম। বাজারে গেলেও ছ্যাঁকা খেতে হচ্ছে হাতে! সর্বোপরে বেড়েছে যুযুধান ‘প্রতিপক্ষ’ অটোর ভাড়াও।

তবে কেন পিছিয়ে থাকবে টোটো? টোটোতে চাপলেই দিতে হবে ২০ টাকা। ন্যূনতম ভাড়া ২০ টাকা করার দাবিতে এবার বিক্ষোভ টোটো চালকদের। নেতৃত্বে বামপন্থী টোটো চালক ইউনিয়ন।

বৃহস্পতিবার কার্যত এই সব নিয়ে উত্তপ্ত থাকে জলপাইগুড়ি। টোটোর ভাড়া ন্যূনতম ২০ টাকা করার দাবিতে পৌরসভায় বিক্ষোভ দেখান বামপন্থী টোটো চালক ইউনিয়নের নেতা-কর্মীরা। তাঁদের দাবি, সব কিছুরই যখন ভাড়া বাড়ছে, দাম বাড়ছে, তখন টোটো চালকদের অবস্থার কথাও মাথায় রাখতে হবে। এই বাজারে টিকে থাকতে গেলে অন্তত ২০ টাকা করে প্রত্যেকের ন্যূনতম ভাড়া দেওয়া উচিত। না হলে তাঁদের সংসার চলবে কীভাবে?

টোটো চালকদের ভাড়া বাড়ানোর দাবিতে আন্দোলনে নেমেছে সিআইটিইউ অনুমোদিত টোটো চালক ইউনিয়ন। ভাড়া বৃদ্ধির দাবিতে তাঁরা বুধবার দুপুরে জলপাইগুড়ি শহর জুড়ে মিছিল করেন। এরপর তাঁরা মিছিল নিয়ে পৌঁছন পৌরসভার সামনে। সেখানে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা।

তাঁদের দাবি, করোনা পরিস্থিতিতে দ্রব্য মূল্য অস্বাভাবিক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। পাশাপাশি বেড়েছে বিদ্যুতের দামও। তাই অবিলম্বে টোটোর ভাড়া বৃদ্ধি করতে হবে। নূন্যতম ভাড়া করতে হবে ২০ টাকা। এই দাবিতে তাঁরা এদিন পৌরসভার এক্সুকেটিভ অফিসারের হাতে তাঁদের স্মারকলিপি তুলে দেন।

এক টোটো চালকের বক্তব্য, “টোটোয় যদি এক জন যাত্রী ওঠেন, যেখানেই যাবেন, তাঁকে ন্যূনতম ভাড়া ২০ টাকা দিতে হবে। এটাই চাইছি আমরা। এবার যদি ওই টোটোয় আরও এক জন যাত্রী ওঠেন, তাহলে সেই ভাড়া  শেয়ার করে কমবে। কিন্তু এই সিদ্ধান্ত তো আমরা নিজেরাই নিয়ে নিতে পারি না। প্রশাসন কোনও সিদ্ধান্ত নিক। আমরা চাই, প্রশাসন টোটোচালকদের নিয়ে সংগঠিত ভাবনা চিন্তা করুক। এখানকার অনেকেই আমরা এখন টোটো চালিয়ে দিন গুজরান করি। কোভিডে আমাদের কথাও তো ভাবতে হবে।”

জলপাইগুড়ি পৌরসভার এক্সিকিউটিভ অফিসার বিজয়কুমার রায় বলেন, “দাবিদাওয়া নিয়ে ওঁরা একটি স্মারকলিপি জমা দিয়েছেন। ওঁদের দাবিদাওয়াগুলো শুনলাম। প্রথমে ওঁরাই বললেন, তাঁদের দাবিগুলি লিখিতভাবে দিলেন। টোটোর ভাড়া আগে ন্যূনতম ১০ টাকা ছিল, সেটা বাড়িয়ে ২০ টাকা করার কথা বলছেন ওঁরা। আসলে কোভিডে তাঁরা অল্প যাত্রী নিয়ে যাতায়াত করছেন। তাতে তাঁদের যা আয় হচ্ছে তাতে সংসার চলছে না।” টোটোর পার্কিং নিয়ে সমস্যার কথাও উঠে এসেছে। তিনি বলেন, “ওঁদের পার্কিং নিয়ে কিছু সমস্যা হচ্ছিল। পুলিশ প্রশাসন স্থায়ী ভাবে পার্কিংয়ের কোনও ব্যবস্থা করে দিচ্ছে না বলে ওঁরা জানিয়েছেন। ডেপুটেশনটা চেয়ারপার্সনকে দেওয়া হয়েছে। তাই তিনিই এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়ে পদক্ষেপ করবেন।”

আরও পড়ুন: Khejuri Clash: রাত পেরিয়েছে, খেজুরি-পাহারায় পুলিশ! তবে ভয়, ‘উর্দিধারী সরলেই ফের হবে না বোমাবাজি’

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla