‘হেডস্যারের মেয়ে হলে এমন করতে পারত!’, স্কুলের ‘গাফিলতি’, খেসারত দিলেন পড়ুয়ারা!

HS Result: যজ্ঞেশ্বর ইনস্টিটিউশনের প্রায় ১৩৮ জন পড়ুয়ার অভিযোগ, উচ্চমাধ্যমিকেপ ফলপ্রকাশের এক সপ্তাহ কেটে গেলেও হাতে আসেনি মার্কশিট।

'হেডস্যারের মেয়ে হলে এমন করতে পারত!', স্কুলের 'গাফিলতি', খেসারত দিলেন পড়ুয়ারা!
বিক্ষোেভরত পড়ুয়া, নিজস্ব চিত্র

পশ্চিম বর্ধমান: উচ্চমাধ্যমিকের (HS Examination) ফল প্রকাশ হলেও স্কুলের ‘গাফিলতির’ জেরে হাতে মিলল না মার্কশিট। বিক্ষোভ শতাধিক পড়ুয়ার। শুক্রবার, আসানসোলের সালানপুর ব্লকের বৃহত্তম শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আছড়া যজ্ঞেশ্বর ইনস্টিটিউশনের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

যজ্ঞেশ্বর ইনস্টিটিউশনের প্রায় ১৩৮ জন পড়ুয়ার অভিযোগ, উচ্চমাধ্যমিকের (HS Examination) ফলপ্রকাশের এক সপ্তাহ কেটে গেলেও হাতে আসেনি মার্কশিট। অভিযোগ, ছাত্র ছাত্রীদের তথ্যই শিক্ষা সংসদে জমা দেয়নি স্কুল কর্তৃপক্ষ। ফলে রেজাল্ট মেলেনি। পড়ুয়াদের বিক্ষোভের জেরে এতটাই উত্তপ্ত হয়ে স্কুল চত্বর যে ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছয় পুলিশ। বিক্ষোভের মুখে পুলিশের সঙ্গে পড়ুয়াদের ধ্বস্তাধ্বস্তি হয় বলে অভিযোগ।

বিক্ষোভরত এক পড়ুয়ার কথায়, “আমরা বলেই কি আমাদের রেজাল্ট নিয়ে এমন ছেলেখেলা করা যায়! হেডস্য়ারের ছেলেমেয়ে হলে এমন করতে পারত! আজ আমরা কলেজে ভর্তি হব কী করে! তারমধ্যে পুলিশ এসে আমাদের মারছে। স্কুলে এসে ঝড়বৃষ্টি মাথায় করে দাঁড়িয়ে রয়েছি। স্কুলের স্যারেদের কোনও হুঁশ রয়েছে!”

ঘটনায়, সমস্যা সমাধানের চেষ্টার আশ্বাস দেয় স্কুল কর্তৃপক্ষ। বিক্ষোভের পর উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক হয় ওই স্কুলে। ওই বৈঠকে ছিলেন প্রধান শিক্ষক সহ পরিচালন সমিতির সদস্যরা। কীভাবে এই ঘটনা ঘটল তা খতিয়ে দেখা হবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ওই বৈঠকে। ছাত্রছাত্রীদের যাতে এক বছর নষ্ট না হয়, তাও দেখা হবে বলে আশ্বাস স্কুল কর্তৃপক্ষের।

পাশাপাশি, বিক্ষোভের মুখে ১০ দিনের মধ্যে রেজাল্ট তৈরির আশ্বাস দিয়েছেন প্রধান শিক্ষক। বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন মহল থেকে চেষ্টা করা হয় যাতে নতুন করে পরীক্ষার্থীদের তথ্য জমা দিয়ে রেজাল্ট তৈরি করিয়ে আনা যায়। সেজন্য রাজ্যের স্কুল শিক্ষা সচিব, শিক্ষা মন্ত্রীর কাছে দরবার করা হয়েছে। আরও পড়ুন: Exclusive Manoj Jha: মমতা বড় নাম, তবে মুখের রাজনীতি চান না আরজেডি-র ‘ভাইরাল সাংসদ’ মনোজ ঝাঁ

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla