Paschim Medinipur Chaos: মিলছে না পানীয় জলটুকু পর্যন্তও, ৪০ থেকে ৪২ টি পরিবারকে বয়কটের অভিযোগ

Paschim Medinipur Chaos: মিলছে না পানীয় জলটুকু পর্যন্তও, ৪০ থেকে ৪২ টি পরিবারকে বয়কটের অভিযোগ
গ্রামবাসীদের ৪০ টি পরিবারকে বয়কটের অভিযোগ

Paschim Medinipur Chaos: দিন আনা দিন খাওয়া মানুষগুলোর অভিযোগ, তাঁরা স্থানীয় তৃণমূল নেতা, তথা অঞ্চল সভাপতি লক্ষ্মী সিটের গোষ্ঠীর লোক নয়। আর সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গত প্রায় দেড় থেকে দুই বছর ধরেই চলছে এ বয়কট অভিযোগ ওই গ্রামের বাসিন্দাদের।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: শর্মিষ্ঠা চক্রবর্তী

Jun 23, 2022 | 8:40 AM

পশ্চিম মেদিনীপুর: এক আধটা নয় প্রায় ৪০ থেকে ৪২ টি পরিবারকে বয়কট করে রাখার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে নারায়ণগড় ব্লকের মকরামপুর অঞ্চলে। অভিযোগ, তালাচক ও ফুলগেড়িয়া এই দুটি গ্রামের প্রায় ৪০ থেকে ৪২ টি বাড়ি বয়কটের স্বীকার। অভিযোগ স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের বিরুদ্ধে। তালাচক গ্রামের ২৭ টি পরিবার নিয়ে একটি আদিবাসীপাড়া । আর সেই আদিবাসী পাড়ার ২৭ টি পরিবারকেই বয়কট করে রাখা হয়েছে বিভিন্ন দিক থেকে অভিযোগ ওই গ্রামের বাসিন্দাদের।

দিন আনা দিন খাওয়া মানুষগুলোর অভিযোগ, তাঁরা স্থানীয় তৃণমূল নেতা, তথা অঞ্চল সভাপতি লক্ষ্মী সিটের গোষ্ঠীর লোক নয়। আর সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গত প্রায় দেড় থেকে দুই বছর ধরেই চলছে এ বয়কট অভিযোগ ওই গ্রামের বাসিন্দাদের। গ্রামের বাসিন্দাদের অভিযোগ, গত প্রায় দেড় থেকে দু’বছর ধরেই ওই গ্রামের কোন মানুষ কোন সরকারি সাহায্য পাননি।

সমস্ত রকম সরকারি সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত করে রাখা হয়েছে তাঁদের। এমনকি একটা এসটি সার্টিফিকেট নিতে গেলেও ফিরিয়ে দেওয়া হয় ওই গ্রামের বাসিন্দাদের। এমনকি দেওয়া হয় না পর্যাপ্ত পানীয় জল অথচ গ্রামেই রয়েছে সাব মার্শাল সরকারিভাবে পানীয় জলের ব্যবস্থা কিন্তু তা ওই নামের মানুষের জন্য চালানো হয় না ।

আদিবাসী ওইসব মানুষজন সমস্ত জায়গায় জানানোর পরও টনক নড়েনি কারও, শেষ পর্যন্ত তাঁরা সংবাদমাধ্যমের দ্বারস্থ হয়েছেন। তালাচকের ঠিক পাশের এলাকা ফুলগেড়িয়া সেখানে প্রায় ১৪ থেকে ১৫ টি বাড়িকে বয়কট করে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। এমনকি উচ্চ মাধ্যমিক পাস পরীক্ষার্থীকে কন্যাশ্রী প্রকল্প থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে অভিযোগ এক ছাত্রীর। স্কলারশিপের টাকার জন্য ফর্মে পঞ্চায়েতের যে সই লাগে সেই সইটুকুও করে দেওয়া হচ্ছে না পঞ্চায়েতের পক্ষ থেকে ।

এই খবরটিও পড়ুন

জেলা তৃণমূলের চেয়ারম্যান অজিত মাইতি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, “এই ধরনের ঘটনার সঙ্গে যে বা যাঁরা জড়িত থাকবেন, তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রশাসন কেউ ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।” তবে তালা চকের এইচ বয়কটের ঘটনা নিয়ে সরব হয়েছেন জেলা বিজেপির মুখপাত্র অরূপ দাস। তাঁর বক্তব্য, “তৃণমূল এরকম নোংরা রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত।”

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA