CPIM: বামেদের মিছিলে ধুন্ধুমার, পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতে ফাটল মাথা

CPIM: মিছিলের নেতৃত্ব দিতে দেখা যায় সিপিআইএমের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুজন চক্রবর্তী, রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য অনাদি সাহু, পার্টির পূর্ব মেদিনীপুর জেলা সম্পাদক নিরঞ্জন সিহি সহ অন্যান্য নেতৃত্বকে।

CPIM: বামেদের মিছিলে ধুন্ধুমার, পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতে ফাটল মাথা
TV9 Bangla Digital

| Edited By: জয়দীপ দাস

Aug 23, 2022 | 7:03 PM

তমলুক: বামেদের (Left) মিছিলকে কেন্দ্র করে তমলুকে ধুন্ধুমার। সিটু(CITU), সারা ভারত কৃষকসভা ও ক্ষেতমজুর সংগঠনের ডাকে মঙ্গলবার বিকাল ৩টায় জেলা শাসকের দফতর অভিযান ও আইন অমান্য কর্মসূচির ডাক দেওয়া হয়। প্রথমে তমলুকের (Tamluk) নিমতৌড়ি মোড়ে সভার পর মিছিল যাওয়ার কথা ছিল জেলাশাসকের দফতরে। মিছিল এগোতেই বাধা দেয় পুলিশ। বাম-কর্মী সমর্থকদের সঙ্গে খণ্ডযুদ্ধ বেঁধে যায় পুলিশের। শুরু হয় ধস্তাধস্তি। 

মিছিলের নেতৃত্ব দিতে দেখা যায় সিপিআইএমের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুজন চক্রবর্তী, রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য অনাদি সাহু, পার্টির পূর্ব মেদিনীপুর জেলা সম্পাদক নিরঞ্জন সিহি, হিমাংশু দাস, ইব্রাহিম আলী সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দকে। এদিকে মিছিলের খবর আগেই ছিল পুলিশের কাছে। সেই মতো জেলা শাসককের দফতরের আগে ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তা বলয়ও তৈরি করা হয়েছিল। কিন্তু, মিছিলের শুরুতেই সেই নিরাপত্তা বলয় ভেঙে ফেলেন বাম কর্মীরা। এদিকে ততক্ষণে মিছিলকে ছত্রখান করতে রাস্তায় নেমেছে পুলিশের জলকামান। ছোড়া হয় টিয়ার গ্যাসের সেল। 

এদিকে পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তির সময় একাধিক বাম-কর্মী সমর্থক আহত হয়েছেন বলেও জানা যাচ্ছে। মাথাও ফেটেছে অনুপম মণ্ডল নামে এক বাম সমর্থকের। পুলিশের অভিযোগ, তাঁদের লক্ষ্য করে ইঁটও ছোড়া হয়েছে মিছিল থেকে। অন্যদিকে পুলিশের তরফে বাধা পেয়ে ৪১ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করেন বাম কর্মীরা। যার জেরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায় গোটা অঞ্চলে। বাম সমর্থক অনুপম মণ্ডল বলেন, “আইন-অমান্য করতে গিয়ে আমরা প্রথমে একটি ব্যারিকেড ভেঙে ফেলি। তখন আমরা এগোতেই পুলিশ আটকায়। ধস্তাধস্তি শুরু হয়। তখন কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে। টিয়ার গ্যাসের সেল এসে আমার মাথায় লাগে। মাথা ফেটে যায়। আমি ওখানেই পড়ে যাই।” তমলুক থানার আইসি অরূপ সরকার বলেন, “প্রায় ২ হাজার কর্মী-সমর্থকের জমায়েত হয় আজ। ডিএম অফিসের আগে আমরা ব্যারিকেড করেছিলাম। প্রথম ব্যারিকেড ওরা ভেঙে দেয়। পুলিশের সঙ্গে ধাক্কাধাক্কি করে। আমরা বারবার বলি সরকারি দফতরে জোর করে ঢুকবেন না। মাইকিংও করা হয়। কিন্তু আমাদের কথা না শুনেই ওরা পুলিশের উপর হামলা চালায়, ঢিল ছোড়ে। বাধ্য হয়ে আমাদের কাঁদানে গ্যাসের সেল ফাটাতে হয়।” 

এই খবরটিও পড়ুন

এদিকে অভিযান শেষে তিন বাম কর্মী নিখোঁজ হয়েছেন বলে দাবি করেছেন জেলা বাম নেতৃত্ব। নিখোঁজের তালিকায় রয়েছেন হলদিয়ার বাসিন্দা শেখ খলিল, সুতাহাটার বাসিন্দা তসলিমা বিবি, খেজুরির বাসিন্দা রাধা ঘোষ। এখনও পর্যন্ত মোট ২০ জন বাম-কর্মী সমর্থক আহত হয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla