‘স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে শোকজ করা উচিৎ’, আলাপন প্রসঙ্গে আক্রমণ অভিষেকের

কিছু দিন আগেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে শোকজ করেছে কেন্দ্র। এই ঘটনায় ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতাও।

'স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে শোকজ করা উচিৎ', আলাপন প্রসঙ্গে আক্রমণ অভিষেকের
ফাইল ছবি

পাথর প্রতিমা: ‘চ্যারিটি বিগিনস অ্যাট হোম’, আলাপন ইস্যুতে এই ভাষাতেই আক্রমণ করলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। তাঁর দাবি, আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Alapan Bandopadhyay) শোকজ করার আগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে (Home Minister) শোকজ করা উচিৎ। প্রধানমন্ত্রী, মুখ্য নির্বাচনি আধিকারিককেও শোকজ করা উচিৎ বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি। অভিষেকের কথায়, ‘ওরা নিজেরা মুখটা আয়নায় দেখুক।’

এ দিন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় মোদীকে কটাক্ষ করে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর যখন বলা উচিৎ বাড়ি থেকে বেরবেন না, তখন তিনি এসে বলছেন, ‘এত বড় সভা জীবনে দেখিনি, আমি খুব খুশি হয়েছি। দেশবাসী হিসেবে এটা আমাদের দুর্ভাগ্য।’ এ দিন ইয়াস বিধ্বস্ত সুন্দরবন পরিদর্শনে গিয়ে তিনি বলেন, ‘যারা ভোটের সময় এসে খাওয়া-দাওয়া করছিল তাদের আর দেখতে পাচ্ছেন?’ তাঁর দাবি, মানুষের জীবনটা আগে, তাই তদন্তের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সদ্য রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্য সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে রাজনৈতিক তরজা তুঙ্গে ওঠে। বিতর্কের মাঝেই পদত্যাগ করেন তিনি। বর্তমানে মুখ্যমন্ত্রীর উপদেষ্টার পদ দেওয়া হয়েছে তাঁকে।

আরও পড়ুন: ‘যারা করেছে তাদের দোষ, তদন্ত হওয়া উচিৎ’, দিঘা নিয়ে আধিকারী পরিবারের দিকেই আঙুল তুললেন মমতা?

এ দিন ইয়াস বিধ্বস্ত এলাকা পরিদর্শন করেন ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ অভিষে বন্দ্যোপাধ্যায়। হেলিকপ্টার থেকে নেমে সন্দেশখালিতে লঞ্চে এলাকা পরিদর্শন করেন তিনি। ত্রাণ শিবিরে দুর্গতদের সঙ্গে কথাও বলেন তিনি। ইয়াসে লণ্ডভণ্ড হয়ে গিয়েছে সুন্দরবনের বিস্তীর্ণ এলাকা। বহু ঘর বাড়ি ভেঙে গিয়েছে। সেই সব এলাকায় নদী পথে যাওয়ার সময় হাত নাড়িয়ে বাসিন্দাদের আশ্বস্ত করেন তিনি। লঞ্চে ছিলেন পাথর প্রতিমার বিধায়ক, সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী, সেচ দফতরের আধিকারিকরা। ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন অভিষেক। বাঁধ নিয়ে তদন্তের কথাও জানিয়েছেন তিনি।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla