সুন্দরবনের চরে রোদ পোহাচ্ছিল, মৃত ভেবে বসেন দম্পতি! স্ত্রীকে কাছে টেনে বাঘের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন স্বামী, তারপর…

ইয়াসে বিপর্যস্ত গোটা গ্রাম। খুইয়েছিলেন মাথার ছাদটুকুও। তবে পেটে তো কিছু দিতে হবে! ভোরের আলো ফোটার আগেই স্বামী ও প্রতিবেশীর সঙ্গে কাঁকড়া ধরতে গিয়েছিলেন সুন্দরবনে (Sundorbon)।

সুন্দরবনের চরে রোদ পোহাচ্ছিল, মৃত ভেবে বসেন দম্পতি! স্ত্রীকে কাছে টেনে বাঘের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন স্বামী, তারপর...
মৃত মহিলা

সুন্দরবন: ইয়াসে বিপর্যস্ত গোটা গ্রাম। খুইয়েছিলেন মাথার ছাদটুকুও। তবে পেটে তো কিছু দিতে হবে! ভোরের আলো ফোটার আগেই স্বামী ও প্রতিবেশীর সঙ্গে কাঁকড়া ধরতে গিয়েছিলেন সুন্দরবনে (Sundorbon)। কিন্তু সেখানে যে ওঁত পেতে অপেক্ষা করেছিল ক্ষুধার্ত রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারও। আরও একবার সুন্দরবনে কাঁকড়া ধরতে গিয়ে বাঘের হানায় মৃত্যু হল মহিলা মৎস্যজীবীর। মৃতের নাম ভগবতী মণ্ডল (৩৮)। মঙ্গলবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে সুন্দরবন ব্যাঘ্র প্রকল্পের সজনেখালি রেঞ্জের অন্তর্গত ঝিলা ৪ জঙ্গলের গোলভক্সা খালে।

ভগবতীর বাড়ি গোসাবা ব্লকের লাহিড়িপুরের চরঘেরি গ্রামে। পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার ভগবতী মন্ডল স্বামী অতিন মন্ডল ও অপর প্রতিবেশী সবিতা মন্ডলকে নিয়ে খুব ভোরে রওনা দেন ঝিলা ৪ জঙ্গলে। নদীর চরে একটি বাঘকে শুয়ে থাকতে দেখেছিলেন ওঁরা। কিন্তু ভেবেছিলেন সেটি মৃত বাঘ। বিশেষ আমল দেননি তাতে। আপন মনেই কাঁকড়া ধরতে থাকেন তাঁরা। কাঁকড়া ধরার সময়ে চরের কাছাকাছি চলে গেলে আচমকাই বাঘটি লাফিয়ে পড়ে ভগবতীর ওপর।

স্ত্রীকে চোখের সামনে ওই অবস্থায় দেখে বাঘের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন স্বামী অতীন। বাঘে-মানুষের দীর্ঘক্ষণ চলে লড়াই। শেষে মানুষের কাছে হার মেনে জঙ্গলে ফেরে বাঘ। কিন্তু ততক্ষণে যে সব শেষ! বাঘ কামড় বসিয়ে দিয়েছিল ভগবতীর ঘাড়ে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে সেখানেই মৃত্যু হয় তাঁর।

আরও পড়ুন: চিনার পার্কের বিলাসবহুল হোটেলেই ভ্যাকসিনেশন! TV9 বাংলার স্টিং ক্যামেরায় ধরা পড়ল ছবি

স্ত্রীর দেহ নিয়ে নৌকা বয়ে ফের গ্রামে ফেরেন স্বামী। কান্নায় ভেঙে পড়েছে পরিবার। লকডাউন তো ছিলই, কিন্তু ইয়াসের ধাক্কা আর সামলাতে পারেনি সুন্দরবন। বহু মানুষ কর্মহীন। পেটের টানেই জঙ্গলমুখী হচ্ছেন অনেকে। আর তাতেই মৃত্যু শিয়রে! বৈধ অনুমতি নিয়েই তাঁরা কাঁকড়া ধরতে গিয়েছিলেন কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla