West Bengal Assembly Election 2021 Phase 3: আইএসএফ কর্মীদের বেধড়ক মারধরের অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে, জখম ৮

ভোট দিতে গিয়ে অশান্তি, মহিলা-সহ জখম হলেন মোট ৮ জন। এঁরা সবাই ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্টের (ISF) কর্মী বলে খবর। অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল (TMC)

West Bengal Assembly Election 2021 Phase 3: আইএসএফ কর্মীদের বেধড়ক মারধরের অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে, জখম ৮
নিজস্ব চিত্র

ক্যানিং: ভোট চলাকালীন ভোটাদের হুমকি এবং বেধড়ক মারধর করার অভিযোগ উঠলো তৃণমূলের বিরুদ্ধে। ঘটনায় কয়েকজন মহিলা-সহ জখম হয়েছেন মোট ৮ জন। এঁরা সবাই ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্টের (ISF) কর্মী বলে খবর। বুধবার তৃতীয় দফা ভোটের দিন ঘটনাটি ঘটেছে ক্যানিং পশ্চিম বিধানসভা কেন্দ্রের নিকারীঘাটা গ্রাম পঞ্চায়েতের ২৩৭ এবং ২৩৮ নম্বর গড়খালি দেশকল্যাণ অবৈতনিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে।

এদিকে এই ঘটনার খবর পেয়ে অকুস্থলে পৌঁছয় বিশাল কেন্দ্রীয় বাহিনী। তার পর নিয়ন্ত্রণে আসে পরিস্থিতি। জানা গিয়েছে, এদিন শান্তিপূর্ণ ভাবেই ভোট গ্রহণ চলছিল। কিন্তু নিকারীঘাটা গ্রাম পঞ্চায়েতের ২৩৭ ও ২৩৮ নম্বর বুথে অশান্তির খবর আসে। বেশ কয়েকজন সাধারণ ভোটারের অভিযোগ, তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্য সাজাহান গাজীর নেতৃত্বে সাধারণ ভোটার ও আইএসএফ কর্মীরা যখন ভোট দিয়ে বাড়িতে ফিরছিলেন তাঁদের আচমকা লাঠি ও বাঁশ দিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয়। ঘটনায় জখম হয়েছেন বেশ কয়েকজন আইএসএফ কর্মী-সমর্থক। জখম হল মহিলা সহ মোট ৮ জন।

অন্যদিকে এই হামলার ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্য সাজাহান গাজীর দাবি, ভোট শান্তিপূর্ণ ভাবে হয়েছে। তবে আইএসএফ ও বিজেপির লোকজন ভোটারদের অতর্কিতভাবে লাঠি নিয়ে আক্রমণ করে বলে তাঁর অভিযোগ। তাঁরা রুখে দাঁড়িয়েছিলেন বলে দাবি গাজীর।

আরও পড়ুন: ‘আমি বলব বুঝে নিবি’, ইশারায় কী ডায়লগ বললেন মহাগুরু?

প্রসঙ্গত, এদিন বিধানসভা নির্বাচনের (West Bengal Assembly Election 2021) তৃতীয় দফার (3rd phase) হুগলি, হাওড়া ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার মোট ৩১ টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। কমিশনের তরফে জানানো হয়েছে, এদিনের ভোটগ্রহণ পর্বে বিক্ষিপ্ত অশান্তি ছাড়া মোটের ওপর শান্তিপূর্ণ ভোট হয়েছে। খানাকুলে ৪ জন, আরামবাগে ৫ জন এবং উলুবেড়িয়া ২ জন মিলিয়ে তৃতীয় দফার ভোটপর্বে হিংসার ঘটনায় মোট ১১ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla