কোভিড হাসপাতালে নিচ্ছিল না স্বাস্থ্য সাথী কার্ড! অভিযোগ পেতেই মুশকিল আসান করলেন লাভলি মৈত্র

বেসরকারি হাসপাতালে কোভিড চিকিৎসা করাতে গিয়ে সুবিধা পাচ্ছেন না স্বাস্থ্যসাথী কার্ডের! অভিযোগ পেয়েই নিজের এলাকায় সংশ্লিষ্ট হাসাপাতালে গিয়ে কথা বললেন সোনারপুর দক্ষিণ (Sonarpur Dakshin) বিধানসভার বিধায়ক লাভলি মৈত্র (Lovely Moitra)।

কোভিড হাসপাতালে নিচ্ছিল না স্বাস্থ্য সাথী কার্ড! অভিযোগ পেতেই মুশকিল আসান করলেন লাভলি মৈত্র
নিজস্ব চিত্র

কলকাতা: বেসরকারি হাসপাতালে কোভিড চিকিৎসা করাতে গিয়ে সুবিধা পাচ্ছেন না স্বাস্থ্যসাথী কার্ডের! অভিযোগ পেয়েই নিজের এলাকায় সংশ্লিষ্ট হাসাপাতালে গিয়ে কথা বললেন সোনারপুর দক্ষিণ (Sonarpur Dakshin) বিধানসভার বিধায়ক লাভলি মৈত্র (Lovely Moitra)। ব্যস! মুশকিল আসান। স্বাস্থ্য সাথী কার্ডের সুবিধা পাওয়া যাবে, খোদ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দেয় রোগীর পরিবারকে।

মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে তৃতীয় বার শপথ গ্রহণের পরই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করে দিয়েছিলেন. বাংলায় কোভিড নিয়ন্ত্রণই তাঁর প্রথম ও প্রধান লক্ষ্য। শপথগ্রহণের পর প্রত্যেক নব নির্বাচিত বিধায়কও সেই কাজে তৎপর। সম্প্রতি সোনারপুরের বাসিন্দারা অভিযোগ করেন, একটি বেসরকারি হাসপাতালে কোভিড চিকিৎসা করাতে গিয়ে স্বাস্থ্যসাথী কার্ডের সুবিধা পাচ্ছেন না তাঁরা।

বিষয়টি সম্পর্কে অবগত ছিলেন সোনারপুর দক্ষিণের বিধায়ক লাভলি মৈত্রও। অভিযোগ পাওয়ার পরই তিনি শনিবার রাতে চলে যান ওই কোভিড হাসপাতালে ৷ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বসে কথা বলেন তিনি ৷ কথা হয় রোগীর পরিজনদের সঙ্গেও ৷ হাসপাতালের পক্ষ থেকে তাঁকে জানানো হয়, স্বাস্থ্যসাথী কার্ডের চিকিৎসা করিয়েও তাঁরা সময়মত টাকা পাচ্ছিলেন না৷ তবে বিধায়কের হস্তক্ষেপে সমস্যার সমাধান হয়৷ স্বাস্থ্যসাথী কার্ডের সুবিধা পাওয়া যাবে বলে জানায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ৷ আপাতত এই হাসপাতালে কোভিড চিকিৎসার জন্য ৬০টি বেড রয়েছে ৷

আরও পড়ুন: শপথ নিয়েই কোভিড নিয়ন্ত্রণে তৎপর রাজ! বারাকপুরে ২০০ বেডের কোভিড হাসপাতাল তৈরির উদ্যোগ

লাভলি মৈত্র বলেন, “ম্যানেজারের ফোন নম্বর নিয়ে রেখেছি। ওঁরা আমাকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, কোভিড রোগীর স্বাস্থ্য সাথী কার্ড থাকলে, তাঁরা তাঁকে সেই সুবিধা দেবেন। আমি গোটা বিষয়টির ওপর নজর রাখছি। ভবিষ্যতে আবারও কোনও রোগীর পরিবারের তরফে অভিযোগ পেলে ম্যানেজারের সঙ্গে কথা বলব।”

 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla