Period: ঋতুস্রাবের সময় মহিলা কর্মীদের লাল স্টিকার পরতে পরামর্শ! প্রবল সমালোচিত রেস্তোরাঁর মালিক

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: অংশুমান গোস্বামী

Updated on: Aug 25, 2022 | 9:30 AM

Adverse Advice: অস্ট্রেলিয়ার ওই রেস্তোরাঁ মালিকের নাম অ্যান্থনি। তিনিই তাঁর রেস্তোরাঁর মহিলা কর্মীদের ঋতুস্রাবের দিনগুলিতে লাল স্টিকার গায়ে লাগিয়ে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন।

Period: ঋতুস্রাবের সময় মহিলা কর্মীদের লাল স্টিকার পরতে পরামর্শ! প্রবল সমালোচিত রেস্তোরাঁর মালিক
প্রতীকী ছবি

লন্ডন: ঋতুস্রাবের (পিরিয়ড) সময় কাজে আসার বিদঘুটে নিদান দিয়ে প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েছেন অস্ট্রেলিয়ার এক রেস্তোরাঁ মালিক। সম্প্রতি একটি টকশো-তে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানেই সঞ্চলিকার সঙ্গে কথা বলার সময় নিজের রেস্তোরাঁর মহিলাকর্মীদের উদ্দেশে দেওয়া নির্দেশের কথা বলেছেন। নারীবিদ্বেষী সেই নির্দেশ ঘিরেই সমালোচনার ঝড় উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সে কথা বলার সময় সঞ্চালিকাও অস্ট্রেলিয়ার রেস্তোরাঁ মালিকের বক্তব্যের বিরোধিতা করেন। ওই অস্ট্রেলিয়ার রেস্তোরাঁ মালিক বলেছেন, ঋতুস্রাব চলাকালীন রেস্তোরাঁ মহিলা কর্মীদের লাল রঙের স্টিকার সেঁটে রাখার নির্দেশ দিয়েছিলেন তিনি। এই মন্তব্য নিয়েই ওই রেস্তোরাঁ মালিকের মুণ্ডপাত করেছেন নেটিজেনরা।

অস্ট্রেলিয়ার ওই রেস্তোরাঁ মালিকের নাম অ্যান্থনি। তিনিই তাঁর রেস্তোরাঁর মহিলা কর্মীদের ঋতুস্রাবের দিনগুলিতে লাল স্টিকার গায়ে লাগিয়ে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন। অ্যান্থনির বক্তব্য, মাসের ওই দিন গুলিতে মেয়েদের কিছুক্ষেত্রে বিশ্রামের দরকার হয়। কিন্তু রেস্তোরাঁ অন্য কর্মীদের পক্ষে তা বোঝা সম্ভব নয়। পুরুষকর্মীরা যদি বুঝতে পারেন মহিলার ঋতুস্রাব হচ্ছে, তাহলে তাঁরা ভারী কাজের জন্য ঋতুমতী মহিলা কর্মীদের মুক্তি দিতে পারবেন। সে জন্যই ঋতুস্রাবের দিনগুলিতে লাল স্টিকার লাগানোর পরামর্শের কথা বলেছেন।

টকশো-তে এই প্রসঙ্গ ওঠে সম্প্রতি তাঁর রেস্তোরাঁতে ঘটা একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে। ঋতুস্রাবের দিনে মেজাজ ঠিক ছিল না ওই রেস্তোরাঁর এক মহিলা কর্মীর। সে সময় রেস্তোরাঁ এক পুরুষ ম্য়ানেজার ওই মহিলা কর্মীকে নির্দিষ্ট কাজ করতে বাধ্য করান। সে সময় একটু বিশ্রাম চাইছিলেন ওই মহিলা কর্মী। তা নিয়েই ঝামেলার সূত্রপাত হয়েছিল। সেই সমস্যার সমাধানের জন্যই অ্যান্থনি এই উপায় বাতলেছেন।

যদি এই মন্তব্য নিয়ে সমালোচনা হয়েছে বিস্তর। এই নির্দেশ নারীবিদ্বেষী বলে দাগিয়েছেন নেটিজেনরা। এক জন মহিলা কেন তাঁর শারীরবৃত্তীয় প্রক্রিয়া রেস্তোরাঁ খরিদ্দার এবং অন্য সহকর্মীদে কাছে প্রকাশ করতে বাধ্য হবেন, সে প্রশ্নও উঠেছে। অনুষ্ঠানের সঞ্চালিকাও অ্যান্থনির বক্তব্যের প্রবল সমালোচনা করেন। এই মন্তব্য মহিলাদের পক্ষে অবমাননাকর বলেএ মন্তব্য করেন তিনি। যদিও সমালোচনা শুনেও নিজের বক্তব্যের পক্ষেই সওয়াল করেছেন অ্যান্থনি। এর জেরে তাঁকে কটূক্তির বাণে বিদ্ধ করেছেন নেটিজেনরা।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla