কোভিডের তৃতীয় ঢেউ চিন্তা বাড়ালো স্বাস্থ্য বিমা কোম্পানিগুলির

Insurance Claim: স্টার হেলথ অ্যান্ড অ্যালায়েড ইনসিওরেন্সের এমডি আনন্দ রায়ের বক্তব্য, কোম্পানিগুলি প্রিমিয়ামের হার পরিবর্তন করার ব্যাপারে জানুয়ারির শেষ দিক পর্যন্ত কিছু বিষয় নিশ্চিত করবে। তিনি বলেন, যে গতিতে কোভিডের সংখ্যা বাড়ছে, সেই গতিতে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সংখ্যা বাড়েনি। এই কারণে ক্লেমের সংখ্যাও এখনও নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

কোভিডের তৃতীয় ঢেউ চিন্তা বাড়ালো স্বাস্থ্য বিমা কোম্পানিগুলির
কোভিড চিকিৎসায় নয়া গাইডলাইন (প্রতীকী ছবি)
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Shubhendu Debnath

Jan 13, 2022 | 4:51 PM

নয়া দিল্লি: করোনা মহামারির (Covid-19) তৃতীয় ঢেউয়ে বড় সংখ্যক মানুষ দ্রুতগতিতে সংক্রমিত হচ্ছেন। দেশে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বর্তমানে সাড়ে নয় লক্ষেরও বেশি। যা গত ৭ মাসের তুলনায় অনেকটাই বেশি। করোনা সংক্রমণের সংখ্যা বাড়ায় হাসপাতালে রোগীর সংখ্যাও বেড়েছে। আর এর পাশাপাশি ইনসিওরেন্স ক্লেমের (Insurance claims) সংখ্যাও বাড়ছে। বিমা কোম্পানিগুলির চিন্তা দ্বিতীয় ঢেউয়ে ইনসিওরেন্স ক্লেমের সংখ্যা এত বেড়েছিল যে বিমা কোম্পানিগুলির উপর এর প্রভাব সরাসরি দেখতে পাওয়া গিয়েছিল। আশঙ্কা রয়েছে যে এবারের তৃতীয় ঢেউয়ে আগের চেয়ে অনেক দ্রুতগতিতে ছড়ানোর কারণে ক্লেমও সেই অনুপাতে বাড়তে পারে।

দ্বিতীয় ঢেউয়ে বেড়েছিল লোকসানের অনুপাত

অনেকেই জানেন যে গত বছর কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়ে ইনসিওরেন্স ক্লেমের সংখ্যা অনেক বেশি ছিল। এর ফলে বিমা কোম্পানিগুলি চাপের মুখে পড়েছিল। তাদের হারের অনুপাতও দ্রুতগতিতে বেড়ে গিয়েছিল। এই বিষয়টিকে মাথায় রেখে বিমা নিয়ন্ত্রক সংস্থা IRDA বিমা কোম্পানিগুলিকে প্রিমিয়ামের হার ৫ শতাংশ বাড়ানোর অনুমতি দিয়েছিল। কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়েই বিমা কোম্পানিগুলির লোকসানের হার বেড়েছিল, যা গত বছর অক্টোবর মাস থেকে ঠিক হতে শুরু করেছিল। এখন যে গতিতে এই সময় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে, তাতে আগামী দিনে বিমা কোম্পানিগুলি নিজেদের প্রিমিয়ামের হার আবারও বাড়াতে পারে। বাজার বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য অনুযায়ী, কোভিডেক তৃতীয় ঢেউয়ের কারণে অনেক বেশি সংখ্যক মানুষ বিমা পলিসি কিনতে পারেন।

মৃদু উপসর্গে বেশি হওয়ায় ক্লেম নিয়ন্ত্রণে

স্টার হেলথ অ্যান্ড অ্যালায়েড ইনসিওরেন্সের এমডি আনন্দ রায়ের বক্তব্য, কোম্পানিগুলি প্রিমিয়ামের হার পরিবর্তন করার ব্যাপারে জানুয়ারির শেষ দিক পর্যন্ত কিছু বিষয় নিশ্চিত করবে। তিনি বলেন, যে গতিতে কোভিডের সংখ্যা বাড়ছে, সেই গতিতে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সংখ্যা বাড়েনি। এই কারণে ক্লেমের সংখ্যাও এখনও নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। একইভাবে অন্যান্য কোম্পানিগুলিরও বক্তব্য যে কোভিড সংক্রমণের সংখ্যা দ্রুতগতিতে বাড়া বজায় থাকলে প্রিমিয়াম বাড়াও সম্ভব হতে পারে।

আরও পড়ুন: পেনশনভোগী জন্য বড় খবর, বদলালো আরও একটি নিয়ম

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla