Punjab Assembly Election: ভোটের লড়াই কোর্টে! কেজরীবালকে আদালতে টানতে মরিয়া চন্নি

Punjab Assembly Election: ভোটের লড়াই কোর্টে! কেজরীবালকে আদালতে টানতে মরিয়া চন্নি
ফাইল চিত্র

defamation case: চন্নির ভাইপোর বাড়িতে ইডি অভিযান নিয়ে কংগ্রেসকে সবথেকে বেশি আক্রমণ করেছে আম আদমি পার্টি। কয়েকদিন আগেই দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, চন্নির নিজের বিধানসভা কেন্দ্র চমকৌর সাহিবে তিনি পরাজিত হবেন।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: অরিজিৎ দে

Jan 21, 2022 | 5:04 PM

চণ্ডীগঢ়: আগামী মাসেই পঞ্জাব বিধানসভা নির্বাচন (Punjab Assembly Election)। নির্বাচন কমিশনের প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী ফেব্রুয়ারি মাসের ২০ তারিখ ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন সীমান্তবর্তী রাজ্যের নাগরিকরা। তার আগেই শাসক বিরোধী তরজায় উত্তপ্ত চণ্ডীগঢ়ের রাজনীতি। এবার রাজনৈতিক আক্রমণ ও পাল্টা আক্রমণ নিয়ে বল গড়াতে চলেছে কোর্টে। জানা গিয়েছে, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তথা আম আদমি পার্টি আহ্বায়ক অরবিন্দ কেজরীবালে (Arvind Kejriwal) বিরুদ্ধে মামলা করতে চলেছেন কংগ্রেস শাসিত পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চন্নি (Charanjit Singh Channi)। সূত্রের খবর, ভাইপোর বাড়িতে ইডি অভিযানের পর চরণজিৎ চন্নিকে অসৎ বলার কারণে কেজরীবালের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করতে পারেন পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী।

চন্নির অভিযোগ, অন্যের ভাবমূর্তি নষ্ট করা উদ্দেশ্যে ভিত্তিহীন অভিযোগ কেজরীবালের অভ্যেসে পরিণত হয়েছে। অতীতেও তিনি এই ধরনের কাজ করেছেন এবং বিজেপি নেতা নীতিন গড়করী, অরুণ জেটলি এবং অকালি দলের নেতা বিক্রম সিং মাজিথিয়ার কাছে ক্ষমাও চেয়েছেন। নিজের বিধানসভা কেন্দ্র চমকৌর সাহিবে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় চন্নি বলেন, সব সীম অতিক্রম করেছেন কেজরীবাল। তাই কেজরির বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ হওয়ার জন্য তিনি দলের কাছে অনুমতি চেয়েছেন। চন্নি বলেন, “আমি কেজরীবালের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করব এবং আমি দলের কাছে এই পদক্ষেপের জন্য অনুমতি চেয়েছি। আমাকে এটা করতেই হবে। তিনি আমাকে অসৎ বলেছেন এবং টুইটারেও সেই কথা লিখেছেন।”

চন্নির ভাইপোর বাড়িতে ইডি অভিযান নিয়ে কংগ্রেসকে সবথেকে বেশি আক্রমণ করেছে আম আদমি পার্টি। কয়েকদিন আগেই দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, চন্নির নিজের বিধানসভা কেন্দ্র চমকৌর সাহিবে তিনি পরাজিত হবেন। কেজরীবালের অভিযোগ ছিল, ভাইপোর বাড়ি থেকে কোটি কোটি টাকা উদ্ধার হওয়ায় পঞ্জাবের সাধারণ জনতা বিস্মিত। এই প্রশ্নের জবাবে চরণজিৎ চন্নি বলেন, “যা ঘটেছে তাতে অন্য কারোর বাড়ি থেকে টাকা উদ্ধার হয়েছে এবং অন্য জায়গাতে ইডি অভিযান চালিয়েছে। কিন্তু তাসত্ত্বেও আমার ছবির সঙ্গে টাকা ছবি যুক্ত করে আমাকে অসৎ বলে সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করেছেন। উনি আমাকে অসৎ বলছেন, ওনার ভাইপোকে যদি ইডি আটক করত তবে কি উনি নিজেকে অসৎ বলতেন? আমার বাড়ি থেকে টাকা উদ্ধায় হয়নি, ইডি আমার বাড়িতে অভিযান ও চালায়নি, তবে আমাকে কেন এই সবে জড়ানো হচ্ছে?”

উল্লেখ্য, বুধবার বেআইনি খনি উত্তোলন মামলায় পঞ্জাবের ১০ টি জায়গায় অভিযান চালায় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। চন্নির ভাইপোর বাড়ি থেকে ৮ কোটি টাকা সহ মোট ১০ কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করে ইডি। এরপর থেকেই মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ চন্নিকে নিশানা করে আম আদমি পার্টি সহ বিরোধী দলগুলি। ইডি অভিযানের প্রভাব পঞ্জাবের বিধানসভা নির্বাচনে কতটা পড়বে তার উত্তর মিলবে ১০ মার্চ।

আরও পড়ুন Manipur Assembly Election: দলকে ‘বুড়ো আঙুল’ দেখিয়ে বিজেপিতে যোগ একমাত্র তৃণমূল বিধায়কের

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA