Vitamin C: ৩০-এর পরও ব্রণ পিছু ছাড়ছে না? শরীরে পুষ্টির ঘাটতি বাড়িয়ে দিতে পারে সমস্যা

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: megha

Updated on: May 02, 2022 | 6:53 AM

Acne: অনেকে ৩০-এর কোটায় গিয়েও ব্রণর সমস্যা নিয়ে নাজেহাল হয়ে যান। একাধিক নামী-দামি পণ্য ব্যবহার করেও কোনও সুফল পান না।

Vitamin C: ৩০-এর পরও ব্রণ পিছু ছাড়ছে না? শরীরে পুষ্টির ঘাটতি বাড়িয়ে দিতে পারে সমস্যা
রোজের খাদ্যতালিকায় ভিটামিন সি রাখুন...
Image Credit source: istockphoto.com

Skin Health: কিছু কিছু শারীরিক অবস্থার কারণে ব্রণর (Acne) সমস্যা দেখা দেয়। বেশির ক্ষেত্রে বয়ঃসন্ধিকালে এই সমস্যা বেশি হয়। কিন্তু ২০ পার করলেও ব্রণর সমস্যা পিছু ছাড়ে না। আবার অনেকে ৩০-এর কোটায় গিয়েও ব্রণর সমস্যা নিয়ে নাজেহাল হয়ে যান। একাধিক নামী-দামি পণ্য ব্যবহার করেও কোনও সুফল পান না। এর কারণ আপনি ব্রণ হওয়ার পিছনে কোনও কারণ দায়ী তা হয়তো জানেন না। অনেকের থাইরয়েডের সমস্যা (Health Issues) রয়েছে, আর কেউ কেউ পলিসিস্ট্রিক ওভারি সিন্ড্রোমে ভুগছেন। এই ক্ষেত্রে ব্রণ সমস্যাকে খুব একটা গুরুতর হিসেবে দেখা হয় না। কিন্তু এই সব সমস্যা ছাড়াও আপনার যদি ব্রণ হয়, তাহলে সচেতন হওয়া জরুরি।

ব্রণ একটি ত্বকের অবস্থা যা হরমোনের ভারসাম্যহীনতা, দুর্বল ইমিউন সিস্টেম, এলার্জি ইত্যাদির মতো অন্তর্নিহিত কারণগুলির জন্য দেখা দেয়। আপনি ত্বকের যাবতীয় পুষ্টি পূরণের মাধ্যমে এই সমস্যা থেকে রেহাই পেতে পারেন। এখানে ভিটামিন সি একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এবং ব্রণ, ব্রেকআউটের কারণ গুলির বিরুদ্ধে লড়াই করে।

ভিটামিন সি একটি শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা আপনার ইমিউন সিস্টেমের কার্যকারিতা বাড়াতে এবং ত্বকের পুনর্জন্মে সাহায্য করে। আপনার শরীরে ভিটামিন সি-এর অভাবের কারণে ব্রণ হতে পারে। ভিটামিন সি সারা শরীরে টিস্যু নিরাময়, বৃদ্ধি এবং মেরামত করতে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ভিটামিন সি প্রভাবিত জায়গায় অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের প্রবাহ বৃদ্ধি করতে পারে, যার ফলে ত্বকের স্বাস্থ্য উন্নত হতে পারে। ভিটামিন সি ত্বককে মুক্ত র‍্যাডিকেলের হাত থেকে রক্ষা করে এবং ত্বকের পুনর্জন্মে সহায়তে করে। তাই ব্রণ চিকিৎসার ক্ষেত্রে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে ভিটামিন সি।

কোলাজেন একটি প্রোটিন যা শরীরের বিভিন্ন অংশে যেমন হাড়, রক্তনালী, পেশী, ত্বক ইত্যাদিতে পাওয়া যায়। যদিও আপনার বয়সের সঙ্গে কোলাজেনের পরিমাণ কমতে থাকে, যার ফলে ত্বকের বার্ধক্য সবার আগে নজরে পড়ে। ভিটামিন সি এই কোলাজেন উৎপাদনে সহায়তা করে। এটি কোলাজেনের উৎপাদন বাড়াতে দক্ষতার সঙ্গে কাজ করে, যা ত্বকের যাবতীয় সমস্যা এবং বার্ধক্য প্রতিরোধে কাজ করে। এমনকি আপনার ব্রণর সমস্যাকেও দূর করে দেয়।

ব্রণর লালচে ভাবের কারণ হল প্রদাহ এবং ব্রেকআউট। ভিটামিন সি-এর মধ্যে শক্তিশালী প্রদাহ বিরোধী বৈশিষ্ট্য আছে, যা ব্রেকআউটের কারণে সৃষ্ট ব্রণের লালচে ভাব কমাতে সাহায্য করতে পারে। এছাড়াও, এটি ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখতে এবং ত্বকের বর্ণের সামঞ্জস্যতা বজায় রাখতে সহায়তা করে।

আপনি যখন সরাসরি ত্বকের ওপর ভিটামিন সি প্রয়োগ করেন বা যখন আপনার শরীরে ভিটামিন সি পর্যাপ্ত পরিমাণে থাকে তখন, এটি মেলানিন উৎপাদন প্রতিরোধ করে এবং ফ্রি র‍্যাডিকেলের বিরুদ্ধে লড়াই করে। যার ফলে ব্রণ হওয়ার পর আপনার নিস্তেজ ত্বক পুনরায় উজ্জ্বলতা ফিরে পায়। এই ভিটামিন ব্রণর পাশাপাশি আপনার ব্রণ দাগকেও কমাতে সাহায্য করে।

আপনি খাদ্যের মাধ্যমে শরীরে ভিটামিন সি-এর চাহিদা পূরণ করতে পারবেন। বিভিন্ন শাক সবজি এবং ফলের মধ্যে ভিটামিন সি পাওয়া যায়। এর জন্য আপনি সাইট্রাস ফল অর্থাৎ যে কোনও লেবুর রস, ব্রকোলি, স্ট্রবেরি, টমেটো, বেল পেপার ইত্যাদি খেতে পারেন। এছাড়াও ভিটামিন সি সাপ্লিমেন্ট পাওয়া যায়, যার দ্বারা আপনি  ভিটামিন সি-এর চাহিদা পূরণ করতে পারেন।

আরও পড়ুন: মাত্র ২৫-এই বাড়তে পারে কোলেস্টেরল! ঝুঁকি এড়াবেন কীভাবে?

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla