Parliament Monsoon Session 2022 : ‘লঙ্গরখানায়’ জিএসটি! আলোচনার দাবি জানিয়ে মুলতুবি প্রস্তাব আপ সাংসদের

Parliament Monsoon Session 2022 : স্বর্ণ মন্দিরের সামনে লঙ্গরখানায় জিএসটি কার্যকর করার বিরুদ্ধে আলোচনার দাবি জানিয়ে রাজ্যসভায় মুলতুবি প্রস্তাবের আবেদন জানিয়েছেন আপ সাংসদ রাঘব চাড্ডা। বাদল অধিবেশনে জিএসটি ইস্যু নিয়ে বিরোধীদের আলোচনার দাবিতে বারবার উত্তপ্ত হয়েছে সাংসদ।

Parliament Monsoon Session 2022 : 'লঙ্গরখানায়' জিএসটি! আলোচনার দাবি জানিয়ে মুলতুবি প্রস্তাব আপ সাংসদের
গ্রাফিক্স সৌজন্যে : টিভি৯ বাংলা
TV9 Bangla Digital

| Edited By: অঙ্কিতা পাল

Aug 03, 2022 | 1:14 PM

নয়া দিল্লি : সংসদে চলছে বাদল অধিবেশন। এর মধ্যেই বিভিন্ন ইস্যুতে উত্তপ্ত হয়েছে সংসদের দুই কক্ষই। জিএসটি, মূল্যবদ্ধি, পেট্রোল-ডিজেলের দাম নিয়ে সুর চড়িয়েছেন বিরোধীরা। সেই নিয়ে কক্ষের অন্দরে প্ল্য়াকার্ড হাতে বিক্ষোভ দেখানোর জন্য সাসপেনশনের মুখেও পড়েছিলেন সাংসদরা। এবার জিএসটি নিয়ে আলোচনার জন্য বুধবার সংসদে মুলতুবি প্রস্তাব আনেন আম আদমি পার্টি (AAP) সাংসদ রাঘব চাড্ডা। অমৃতসরে স্বর্ণ মন্দিরে আশেপাশের লঙ্গরখানায় (Sarais) ১২ শতাংশ জিএসটি কার্যকর করা নিয়ে আলোচনার দাবি জানিয়েছেন তিনি।

রাজ্যসভার স্পিকার এম বেঙ্কাইয়া নাইডুকে একটি চিঠি লিখে এই মুলতুবি প্রস্তাবের কথা জানিয়েছেন আপ সাংসদ। তিনি বলেছেন, ‘প্রশ্নোত্তর পর্ব ও সংসদের অন্যান্য নিয়ম অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট নিয়ম অনুযায়ী কক্ষে জ়িরো আওয়ার সাসপেন্ড করা হোক অমৃতসরে শ্রী হরমিন্দর সাহাব (স্বর্ণ মন্দির) এর আশেপাশের লঙ্গরখানায় ১২ শতাংশ জিএসটি বসানো নিয়ে আলোচনার জন্য।’ এদিকে জিএসটি ইস্যুতে এই বাদল অধিবেশনে একাধিকবার উত্তপ্ত হয়েছে সংসদ। কংগ্রেস থেকে শুরু করে বিভিন্ন বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি এই বারংবার বিক্ষোভ দেখিয়েছে। সংসদ চত্বরেও বিক্ষোভ করতে দেখা গিয়েছে তাঁদের।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি জিএসটি কাউন্সিল জিএসটি-র নয়া তালিকা নিয়ে এসেছে। সেখানে কিছু পণ্য ও পরিষেবা নতুন করে জিএসটিভুক্ত করা হয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে হোটেলের ঘর। দৈনিক ১ হাজার টাকা পর্যন্ত হোটেল ঘরেও জিএসটি বসানো হয়েছে। সেই নিয়ে সংসদে আলোচনা করতে চেয়েছেন বিরোধীরা। এদিকে বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে একাধিক বিরোধী সাংসদ বিভিন্ন মুলতুবি প্রস্তাব এনেছেন। সুইস ব্যাঙ্কে ভারতীয় টাকার পরিমাণ বৃদ্ধি নিয়ে রাজ্যসভায় জ়িরো আওয়ার নোটিস দিয়েছেন কংগ্রেস সাংসদ প্রমোদ তিওয়ারি। এদিকে রাজ্যসভায় কেন্দ্রীয় ক্রীড়া মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর জাতীয় অ্য়ান্টি-ডোপিং বিল ২০২১ নিয়ে বিবেচনা ও পাসের জন্য পেশ করতে পারেন। এর ফলে খেলার দুনিয়ায় অ্যান্টি ডোপিং কার্যকলাপ নিয়ন্ত্রণ করবে। সংসদের উচ্চকক্ষে বিবেচনার জন্য পরিবার আদালত আইন, ১৯৮৪ (Family Courts Act, 1984) পেস করবেন কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী কিরণ রিজিজু।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla