অফিসে গেলেই মিলবে টিকা, বড় ঘোষণা কেন্দ্রের

১১ এপ্রিল থেকেই সরকারি-বেসরকারি অফিসগুলিতে টিকাকরণ শুরু করার নির্দেশ দিয়ে ইতিমধ্যেই প্রত্যেক রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মুখ্য সচিবকে চিঠি পাঠিয়েছে কেন্দ্র।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 18:29 PM, 7 Apr 2021
অফিসে গেলেই মিলবে টিকা, বড় ঘোষণা কেন্দ্রের
প্রতীকী চিত্র।

নয়া দিল্লি: বারবার বিশেষজ্ঞরা বলছেন করোনা রোখার মূল অস্ত্র ভ্যাকসিন। তাই দেশে দ্রুত টিকাকরণের কাজ চলছে জোর কদমে। দ্রুত সকলকে টিকার আওতায় নিয়ে আসতে গোটা এপ্রিল মাস জুড়ে ছুটির দিনেও টিকাকরণ চালাচ্ছে কেন্দ্র। এ বার সরকারি-বেসরকারি দুই চাকুরিজীবীদের করোনা টিকায় নিয়ে আসতে একেবারে অফিসে পৌঁছে যাচ্ছে কেন্দ্র। সরকারি বা বেসরকারি যে অফিসই হোক না কেন, সেখানে যদি ১০০ জন টিকা পাওয়ার জন্য বৈধ হন এবং যদি তাঁরা টিকা নিতে চান, তাহলে অফিসেই টিকাকরণ খোলার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্র।

১১ এপ্রিল থেকেই সরকারি-বেসরকারি অফিসগুলিতে টিকাকরণ শুরু করার নির্দেশ দিয়ে ইতিমধ্যেই প্রত্যেক রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মুখ্য সচিবকে চিঠি পাঠিয়েছে কেন্দ্র। যেখানে টিকাকরণকে আরও দ্রুত করার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্র। চিঠিতে স্বাস্থ্যসচিব রাজেশ ভূষণ লিখেছেন, “সরকারি ও বেসরকারি ক্ষেত্রে যদি ১০০ জন বৈধ টিকাপ্রাপক থাকেন, তাহলে একটি ভ্যাকসিনেশন সেন্টারের সঙ্গে সেই অফিসকে জুড়ে দিতে হবে।” তাই প্রত্যেক রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলকে প্রস্তুতিও সেরে ফেলার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

প্রসঙ্গত, দেশে এখন স্রেফ ৪৫-ঊর্ধ্বরাই করোনা টিকা পান। তবে বিভিন্ন সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে আক্রান্ত হচ্ছেন কম বয়সীরাও। তাই দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবাল ও মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে কেন্দ্রের কাছে করোনা টিকা সব বয়সীদের জন্য আবেদন করেছিলেন। তবে সাংবাদিক বৈঠক করে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যসচিব রাজেশ ভূষণ জানিয়েছেন, এখনই বয়স নির্বিশেষে সকলকে করোনা টিকা দেওয়া সম্ভব নয়। কারণ যাঁদের টিকা অধিক প্রয়োজনীয়, তাঁদেরই আগে টিকা দিতে হবে।

আরও পড়ুন: টিকাকরণে দ্রুততার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ‘সঙ্কট মোচন’ তকমা কেন্দ্রীয়মন্ত্রী মুক্তারের